• শিরোনাম

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    আলফাডাঙ্গা উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে কাপ পিরিচের গণজোয়ার

    মিয়া রাকিবুল,আলফাডাঙ্গা প্রতিনিধিঃ | ১৪ মার্চ ২০১৯ | ২:৩৮ অপরাহ্ণ

    আলফাডাঙ্গা উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে কাপ পিরিচের গণজোয়ার

    আলফাডাঙ্গা উপজেলাবাসীর সুখ-দুঃখ, হাসি-কান্না,আনন্দ-বেদনায় রচিত যে মহাকাব্য গ্রামীণ জীবনকে কেন্দ্র করেই আবর্তিত সেই উপজেলাবাসীর অধিকাংশ মানুষের বসবাস প্রত্যান্ত গ্রামে।এসব মানুষের মাঝে ভোটের উৎসবে চেয়ারম্যান পদে জনপ্রিয়তায় এগিয়ে যুবলীগ নেতা এ.কে.এম জাহিদুল হাসান (জাহিদ)।উঠছে কাপ-পিরিচের গণজোয়ার।মাঠে-ঘাটে বইছে কাপ-পিরিচ প্রতীকের সুবাতাস।কখনও কোন নির্বাচনে অংশ না নিলেও এবার প্রথম পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে অংশ নেওয়ায় এ.কে.এম জাহিদুল হাসান জাহিদকে সাধারণ ভোটাররা হেভিওয়েট প্রার্থী হিসেবেই দেখছেন।

    জানা গেছে, আগামী ১৮মার্চ ফরিদপুর জেলার আলফাডাঙ্গা উপজেলা পরিষদ নির্বাচন। ৬টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভা নিয়ে আলফাডাঙ্গা উপজেলা পরিষদ গঠিত। এতে মোট ৮৩ হাজার ৩ শত ৭০ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন।

    সব মিলিয়ে সংশ্লিষ্ট এলাকায় ভোটের উৎসবমূখর পরিবেশ ও প্রচারণার আমেজ জানিয়ে দেয় যে, নির্বাচন একদম দোড়গোড়ায়।এমনকি চায়ের দোকান,পাড়া মহল্লা, মাঠ-ঘাট, হাট-বাজার সর্বত্র সাধারণ মানুষের মাঝে চলছে ভোটের আলোচনা।

    বিভিন্ন ইউনিয়ন পর্যায়ের গ্রাম এলাকা ঘুরে জানা গেছে, উপজেলা চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী এ.কে.এম জাহিদুল হাচান (জাহিদ) সদর ইউনিয়নের দীর্ঘ দিনের সাবেক চেয়ারম্যান প্রয়াত আবু বক্কার মিয়ার পুত্র ও বর্তমান চেয়ারম্যান এ.কে.এম আহাদুল হাচান (আহাদ) এর ছোট ভাই।তাই উপজেলা জুড়ে তার রয়েছে ব্যাপক পরিচিতি।এ সুবাদে আলফাডাঙ্গা উপজেলার বিভিন্ন উন্নয়ন কাজের সাথে জাহিদের রয়েছে বুড়াইচ,গোপালপুর, টগরবন্ধ,বানা ও পাঁচুড়িয়া ইউনিয়নবাসীর সাথে নিবিড় সর্ম্পক।এসব এলাকায় রয়েছে জাহিদের কাপ-পিরিচ প্রতীকের বিশাল ভোটের ব্যাংক।শুধু তাই নয়,উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী তরুণ উদীয়মান জননেতা, পরিচ্ছন্ন রাজনীতিতে বিশ্বাসী এবং ৬টি ইউনিয়নে রয়েছে বিশাল কর্মীবাহিনী ও ক্লিন ইমেজ।এছাড়াও দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে দল পরিচালনায় অত্যন্ত দক্ষতার পরিচয় দেয়ার পাশাপাশি কোন বিতর্কের ছাপ নেই এ.কে.এম জাহিদুল হাসানন জাহিদের অতীত জীবনে।ফলে সব দিক থেকে জাহিদ এগিয়ে রয়েছেন।

    পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, সভ্রান্ত পরিবারের সন্তান, সততা, দক্ষতা ও ক্লিন ইমেজ পুত্রের জয়লাভের ভিতকে শক্তিশালী করে তুলছে।অন্যান্য প্রার্থীর নামে মাঠে-ঘাটে সমালোচনা উঠলেও জাহিদ এদিক থেকে রয়েছেন সবার উর্ধ্বে।ফলে এবার নির্বাচনে সাধারণ ভোটাররা জাহিদকে বেশ গুরুত্বের সাথে দেখছেন।

    উপজেলার অনেক সাধারন ভোটার জানান, তাই নির্বাচনের দিনক্ষণ যতই ঘনিয়ে আসছে জাহিদের জয়ের পাল্লা ততই ভারি হচ্ছে।উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে দলীয় মনোনয়ন নৌকা প্রতীক থাকলেও আ’লীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র চেয়ারম্যন প্রার্থীর থাকছে কাপ পিরিচ প্রতীক।দলীয় হিসাব যেটাই হোক না কেন, প্রতিদ্বন্দিতাকারী প্রার্থীদের মধ্যে তুলনা মূলক সৎ, যোগ্য, স্বচ্ছ ব্যক্তি এ বারের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী এ.কে.এম জাহিদুল হাসান (জাহিদ)। দলীয় আদর্শের প্রতি অবিচল ত্যাগ, দৃঢ় চেতনা ও সংগ্রামী জাহিদের পক্ষে কাজ করছেন উপজেলারর অনেক সাধারণ ভোটাররা।ফলে সাধারণ ভোটারদের কাছে বেশ জনপ্রিয় এবং একজন যোগ্য প্রার্থী হিসেবে যতই দিন যাচ্ছে ততই তার ভোট পরিধি বৃদ্ধি পাচ্ছে।

    Comments

    comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০
    ১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
    ১৮১৯২০২১২২২৩২৪
    ২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী