• শিরোনাম

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    গর্ভের সন্তানের পিতৃত্ব কাশিয়ানীর ছাবুসহ ২ যুবক দাবি করলেও কথা বলছেন না সেই নারী

    ডেস্ক | ১১ জুন ২০১৯ | ২:৩২ অপরাহ্ণ

    গর্ভের সন্তানের পিতৃত্ব কাশিয়ানীর ছাবুসহ ২ যুবক দাবি করলেও কথা বলছেন না সেই নারী

    ১০ বছর ঘর করে স্বামীকে তালাক দিয়ে অন্য ছেলের সঙ্গে ২ মাস সংসার করে আবার সেই পুরাতন স্বামীর ঘরে ফিরলেন নাজমা। এটা খবর নয়, খবর হচ্ছে তার গর্ভের সন্তানের পিতৃত্ব দাবি করছেন সাবেক ও বর্তমান স্বামী। এ ঘটনায় কথা বলতে রাজি হননি নাজমা।

    ঘটনা ফরিদপুরের নগরকান্দায়। এই নিয়ে কয়েক দফায় সালিশ করেও কোন সমাধান করতে পারেনি গ্রাম্য মাতবররা।

    জানা গেছে, উপজেলার পুরাপাড়া ইউনিয়নের গোয়ালদি গ্রামের আলমগীর কাজির মেয়ে নাজমা বেগমের সঙ্গে প্রায় ১০ বছর আগে গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলার জুনাসুর গ্রামের বাদশা লস্করের ছেলে ছাবু লস্করের বিয়ে হয়। পরে নাজমা বেগম ২০১৮ সালের ৩০ আগস্ট ছাবুকে তালাক দেন। পরে নিজের গ্রামের লাল মোল্লার ছেলে হেলাল মোল্লার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে নাজমার। এরপর ২০১৮ সালের ২৭ ডিসেম্বর হেলালের সঙ্গে নাজমার বিয়ে হয়। পরে চলতি বছরের ১ মার্চ নাজমা হেলালকে তালাক দিয়ে পূর্বের স্বামী ছাবুর সঙ্গে সংসার শুরু করেন। এরই মাঝে নাজমা সন্তানসম্ভবা হয়ে পড়েন। বর্তমানে হেলালের দাবি এই সন্তান তার, অন্যদিকে এই সন্তান নিজের বলে দাবি করেন ছাবুও।

    হেলাল নাজমার গর্ভের সন্তানকে নিজের দাবি করে বলেন, এই সন্তান আমার।

    অন্যদিকে গর্ভের সন্তান নিজের দাবি করে ছাবু বলেন, হেলাল আমার সঙ্গে যুদ্ধ শুরু করেছে। সেজন্য নাজমাকে দিয়ে হেলালের বিরুদ্ধে নারী নির্যাতন মামলা করিয়েছি।

    তবে এ বিষয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে রাজি হননি নাজমা।

    এ বিষয়ে পুরাপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুস সোবহান মিয়া বলেন, বিষয়টি নিয়ে এলাকায় মিমাংসার চেষ্টা চলছে। শিগগিরই বিষয়টি মিমাংসা করে দিব।

    Comments

    comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
    ১০১১১২১৩১৪
    ১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
    ২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
    ২৯৩০  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী