• শিরোনাম

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    ফারুক খানকে মন্ত্রী হিসেবে দেখতে চায় গোপালগঞ্জ-১ আসনের জনগণ

    নিজস্ব প্রতিবেদক | ২৫ মে ২০১৯ | ৯:২৪ অপরাহ্ণ

    ফারুক খানকে মন্ত্রী হিসেবে দেখতে চায় গোপালগঞ্জ-১ আসনের জনগণ

    গোপালগঞ্জ জেলার স্বনামধন্য অঞ্চল কাশিয়ানী-মুকসুদপুর। এই অঞ্চলের অনেক ইতিহাস ও ঐতিহ্য রয়েছে। আবহমানকাল থেকে এ অঞ্চলে অনেক ইতিহাস বিখ্যাত ও দেশের স্বনামধন্য ব্যক্তিত্ব জন্ম নিয়েছেন। তার মধ্যে অন্যতম কর্নেল (অব.) মুহাম্মদ ফারুক খান এমপি।

    তিনি দেশ ও জাতির একনিষ্ঠ সেবক ও জনদরদী। তার যোগ্যতা বলে তিনি গোপালগঞ্জ-১ আসনে ব্যাপক উন্নয়ন কাজ করেছেন।
    মুহাম্মদ ফারুক খান এমপি কাশিয়ানী-মুকসুদপুর বাসীর সুখে দু:খে আছে এবং থাকবেন বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। গোপালগঞ্জ-১ আসনের উন্নয়ন ও মানুষের সাথে তার আন্তরিকতা চিরদিন স্মরণ রাখবে।
    দীর্ঘ সময় থেকে উন্নয়ন বঞ্চিত ও পিছিয়ে পড়া এ জনপদের অগ্রগতির জন্য ১৯৯৬ সাল থেকে এ পর্যন্ত ৫ বার এ এলাকার সর্বস্তরের জনসাধারণ সুনিশ্চিত রায়ের মাধ্যমে নির্বাচিত করে পার্লামেন্টে পাঠিয়েছে গোপালগঞ্জ-১ আসনের মা ও মাটির সন্তান মুহাম্মদ ফারুক খানকে।
    দলের দুঃসময়ের কাণ্ডারী মুহাম্মদ ফারুক খান এমপি নিজ এলাকার মানুষের ডাকে নাড়ির টানে ছুটে যান। সরকারের একজন প্রভাবশালী সাবেক মন্ত্রী এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য হওয়ার পরও সারাদেশের পাশাপাশি নিজ নির্বাচনী এলাকাকে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে দেখেন। তার নির্বাচনী এলাকা কাশিয়ানী-মুকসুদপুরকে নিয়ে তিনি উনয়ন চিন্তায় বিভোর থাকেন। অনুন্নত, অবহেলিত ও পিছিয়ে পড়া এ অঞ্চলের অগ্রগতি ও উনয়ন কাজে মনোনিবেশ করেন।
    কাশিয়ানী-মুকসুদপুর বাসী যা অতীতে কল্পনাও করতে পারেনি তা করে দেখিয়েছেন কর্মবীর মুহাম্মদ ফারুক খান এমপি। তার অবদানে উন্নয়নে উন্নয়নে বদলে যাচ্ছে কাশিয়ানী-মুকসুদপুর।
    ১৯৯৬ থেকে ২০১৮, দীর্ঘ এ পথ-পরিক্রমায় জনগনের প্রতি তার ভালবাসা-কমিটমেন্ট ছিলো চোখে পড়ার মত। এলাকার উন্নয়নে তিনি ছিলেন নিবেদিতপ্রাণ। নিজেকে রেখেছেন দূর্নীতিমুক্ত। সজ্জন রাজনীতিবিদ হিসেবে সারাদেশের মানুষের কাছে তিনি পরিচিত।
    ওয়ান ইলেভেনে জননেত্রী শেখ হাসিনার পাশে ছিলেন সর্বশক্তি দেয়ে। শেখ হাসিনার সরকারে বাণিজ্যমন্ত্রী, বেসামরিক বিমান ও পর্যটনমন্ত্রী হিসেবে দক্ষতার সাথে কাজ করেছেন। বর্তমানে বেসামরিক বিমান ও পর্যটন মন্ত্রণালয়বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি। এছাড়া কয়েকটি সংসদীয় কমিটিতে আছেন সদস্য পদে। ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশেন নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী তাকে আস্থায় এনে সমন্বয়কের দায়িত্ব দিয়েছিলেন। আস্থার প্রতিদান দিয়ে আনিসুল হককে বিজয়ী করে এনেছেন অক্লান্ত পরিশ্রমের বিনিময়ে।
    বাংলাদেশের বাণিজ্যিক সুবিধা আদায়ে পৃথিবীর নানা দেশে যাচ্ছেন জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতিনিধি হয়ে, প্রতিনিধি দলের নেতা হিসেবে। জাতিসংঘ-বিশ্বব্যাক-শান্তিরক্ষী মিশন তথা আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর যেখানে বাংলাদেশর স্বার্থ আছে সেখানেই পাঠানো হচ্ছে সরকার প্রধানের আশির্বাদপুষ্ট নেতা ফারুক খানকে।
    ওয়ান ইলেভেনে দুঃসময়ের নেতা, দল ও নির্বাচনী এলাকার উন্নয়নে নিবেদিতপ্রাণ ফারুক খানকে মূল্যায়ন করে এবার তাকে গুরুত্বপূর্ন মন্ত্রনালয়ের মন্ত্রী বানানোর জন্য আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার কাছে জোর দাবি জানিয়েছে গোপালগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগ ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিসহ জেলার সর্বস্তরের জনগন।


    Comments

    comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩
    ১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
    ২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
    ২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী