• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    অতিরিক্ত পুলিশ সুপার খোরশেদ অালমের সফলতা ও জনপ্রিয়তার গল্প

    মোঃ লুৎফুর রহমান | ২৮ আগস্ট ২০১৭ | ৬:২২ অপরাহ্ণ

    অতিরিক্ত পুলিশ সুপার খোরশেদ অালমের সফলতা ও জনপ্রিয়তার গল্প

    ৩১ অাগস্ট অতিরিক্ত পুলিশ সুপার খোরশেদ অালমের জন্মদিন। কুমিল্লা জেলার বৃহত্তর লাকসামের মনোহরগঞ্জ উপজেলার অন্তর্গত ভরণিখন্ড গ্রামে এক মহান কবির জন্ম, নাম তার খোরশেদ অালম। সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্ম নেয়া খোরশেদ অালমের পিতার নাম মরহুম অহিদুর রহমান। খোরশেদ অালম খুব ছোটবেলা থেকেই প্রখর মেধার অধিকারী ছিলেন। তিনি ক্লাস ওয়ান থেকে ক্লাস টেন পর্যন্ত ক্লাসে প্রথম স্থান ধরে রেখেছেন। তিনি ৫ম ও ৮ম শ্রেণিতে বৃত্তি প্রাপ্ত হয়েছেন। ১৯৯৯ সালে এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে সমগ্র মনোহরগঞ্জ উপজেলায় সর্বোচ্চ মার্ক পেয়ে স্টার মার্ক সহ প্রথম স্থান অর্জন করেন। অতঃপর তিনি ২০০১ সালে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজ থেকে কৃতিত্বের সাথে এইচ.এস.সি পরীক্ষায় স্টার মার্ক নিয়ে প্রথম স্থান অর্জন করেন। তিনি ২০০১ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে তীব্র প্রতিযোগিতাপূর্ণ ভর্তি পরীক্ষায় কৃতিত্বের সাথে উত্তীর্ণ হয়ে তথ্য, বিজ্ঞান ও গ্রন্থাগার বিষয়ে ভর্তি হয়ে ২০০৭ সালে প্রথম শ্রেণীতে উত্তীর্ণ হন। মেধাবী এই ছাত্র রাজনীতির মাঠেও তার মেধার স্বাক্ষর রেখেছেন।
    খোরশেদ অালম ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি। ছাত্র রাজনীতির উত্তাল দিনগুলোতে খোরশেদ অালম রাজপথে সক্রিয় অংশগ্রহণের পাশাপাশি লেখা-পড়ায় প্রচুর মনোযোগী ছিলেন। তিনি ২০০৮ সালে কৃতিত্বের সাথে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তথ্য, বিজ্ঞান ও গ্রন্থাগার ব্যাবস্থাপনা বিভাগ থেকে স্টার মার্ক সহ প্রথম বিভাগে উত্তীর্ণ হন। ছাত্রজীবন শেষে তিনি ২৯তম বিসিএসে উত্তীর্ণ হয়ে সহকারী পুলিশ কমিশনার হিসেবে ডিএমপিতে যোগদান করেন। ডিএমপিতে থাকাকালীন সিনিয়র এএসপি, সিনিয়র এএসপি থেকে এডিসি হিসেবে পদোন্নতি পান। বর্তমানে তিনি বাংলাদেশ পুলিশের সাভার সার্কেলে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হিসেবে কর্মরত অাছেন। তার এই সফলতার পিছনে রয়েছে একাগ্রতা, অধ্যাবসায়, এগিয়ে যাওয়ার দৃঢ় চেতনা।
    তিনি মহসীন হলের অাবাসিক ছাত্র থাকাকালীন রাজনৈতিক কর্মসূচি পালন শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগার ও হলে লেখাপড়ায় ডুবে থাকতেন। তিনি ছোটবেলা থেকেই পরোপকারী একজন মানুষ। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে জানা যায়, তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যায়নকালীন সময়ে সাধারণ শিক্ষার্থীদের অধিকার অাদায়ে সচেতন ছিলেন। এছাড়া তিনি অসহায় ছাত্র/ছাত্রীদের বিপদের বন্ধু হিসেবেই পরিচিত ছিলেন। তিনি নিজের খরচের টাকায় অন্য অসহায় ছাত্রদের পাশে দাঁড়াতেন। তার এই পরোপকারীতা কর্মজীবনে প্রবেশের পর অারো বৃদ্ধি পায়। তিনি উপার্জিত অর্থের একটি বৃহৎ অংশ সাধারণ ছাত্র/ছাত্রী ও অসহায় মানুষদের পিছে ব্যায় করেন। এছাড়া মানুষের বিপদ-অাপদে তিনি ত্রাণ কর্তার ভূমিকায় অাবিভূত হন। বৃহত্তর লাকসামের এই কৃতি সন্তান ইতোমধ্য দেশ-বিদেশে ব্যাপক পরিচিত ও প্রশংসিত হচ্ছেন। অামরা বাংলাদেশ পুলিশের এই বীর সেনানীর সুউজ্জ্বল ভবিষ্যত কামনা করি।


    Facebook Comments


    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২
    ১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
    ২০২১২২২৩২৪২৫২৬
    ২৭২৮২৯৩০৩১  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4755