• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    অর্থনীতির বিপর্যয় বয়ে আনছে ইন্টারনেট : জ্যাক মা

    অনলাইন ডেস্ক | ২৫ এপ্রিল ২০১৭ | ৮:১৬ অপরাহ্ণ

    অর্থনীতির বিপর্যয় বয়ে আনছে ইন্টারনেট : জ্যাক মা

    এ বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় অনলাইন স্টোরের তালিকা করতে গেলে সেখানে খুব বেশি নাম আসবে না। গুটিকয়েকের মধ্যে অন্যতমটির নাম আলিবাবা। সম্প্রতি ইন্টারনেট বিষয়ে গোটা বিশ্বকে সাবধান বাণী দিয়েছেন আলিবাবা গ্রুপ হোল্ডিং লিমিটেডের প্রতিষ্ঠাতা জ্যাক মা। তিনি বলেন, যুগ যুগ যন্ত্রণা সইতে প্রস্তুতি নিতে হবে সমাজকে। কারণ অর্থনৈতিক ব্যবস্থাকে বিপর্যস্ত করে তুলবে এই ইন্টারনেট।


    চীনের ঝেনঝু-এ উগ্যোক্তাদের নিয়ে আয়োজিত এক কনফারেন্সে জ্যাক মা আরো বলেন, সেই সঙ্গে ইন্টারনেট ভিত্তিক অর্থনীতি ও রোবটনির্ভর অবস্থার কারণে আমরা যে ক্ষতির সম্মুখীন হবো, তার মাত্রা কিছুটা কমিয়ে আনতে পরিস্থিতির সঙ্গে তাল মিলিয়ে শিক্ষাব্যবস্থা প্রবর্তন ও রোবটের সঙ্গে কাজের বিষয়ে নীতিমালা প্রণয়ন করতে হবে।

    ajkerograbani.com

    জ্যাকের বক্তব্য ছিল স্পষ্ট অশনিবার্তা। বলেন, আগামী ৩০ বছরের মধ্যে এই পৃথিবী সুখের চেয়ে যন্ত্রণাই বেশি দেখবে। ইন্টারনেটের কারণে চাকরি হারাবে মানুষ। আসছে তিন যুগের মধ্যে শিল্পখাত ও জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে সামাজিক সংঘাত দেখা দেবে।

    আসলে জ্যাক মা যেমনতর মানুষ, এ বক্তব্য তার ব্যক্তিত্বের সঙ্গে মেলে না। তিনি আসলে এখানে নিজেকে ভবিষ্যতদ্রষ্টা এবং উন্নত ভবিষ্যত গড়ার কারিগর হিসাবে তুলে ধরতে চান। তিনি ব্যাখ্যা করেন, ই-কমার্স শুরুর প্রথম দিকেই তিনি মানুষকে গতানুগতিক বাণিজ্যব্যবস্থা ধ্বংসের বিষয়ে সাবধান করেছিলেন। কিন্তু খব কম সংখ্যক মানুষই তার কথা পাত্তা দিয়েছেন।

    তিনি বলতে থাকেন, ১৫ বছর আগে আমি ২০০ থেকে ৩০০টি বক্তব্য এ কথা তুলে ধরেছি। বলেছি, ইন্টারনেট সব ধরনের শিল্পখাতের অগ্রগতিকে বিঘ্নিত করবে। কিন্তু তখন কেউ আমার কথা শোনেননি। কারণ আমি তখন গুরুত্বপূর্ণ কেউ ছিলাম না।

    ৫২ বছর বয়সী এই কিংবদন্তি ব্যবসায়ী গতানুগকির ব্যাংকিং ব্যবস্থার সমালোচক। তার মতে, ঋণব্যবস্থা সমাজের সকল সদস্যদের জন্য উন্মুক্ত করা উচিত।

    চায়না এন্টারপ্রেনার ক্লাব আয়োজিত এই কনফারেন্সে উপস্থিত ছিলেন চীনের নতুন উদ্যোক্তারাও। সেখান জ্যাক মা-কে সেলিব্রিটি ব্যবসায়ীর মতো অভ্যর্থনা জানানো হয়। মানুষ ভীড় করে জ্যাকের কাছে আসেন এবং তার সঙ্গে সেলফি তোলেন। তার সঙ্গে কিছু কথা বলার সুযোগ কেউ ছাড়েননি।

    রোবট ও কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার বিষয়ে তিনি সাবধান করে দিয়ে বলেন, যন্ত্রের তাই করা উচিত যা মানুষ করতে পারে না। শুধুমাত্র এদিক থেকেই কর্মক্ষেত্রে যন্ত্রগুলো মানুষের পাশাপাশি কাজ করতে পারে। সূত্র: ব্লুমবার্গ

    Facebook Comments Box

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
    ১০১১১২১৩১৪
    ১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
    ২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
    ২৯৩০৩১  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4757