• শিরোনাম

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    অলির অনুষ্ঠানে যাওয়ায় জাগপা সভাপতিকে বহিষ্কার করলেন সাধারণ সম্পাদক

    নিজস্ব প্রতিবেদক | ০৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৯:৩১ অপরাহ্ণ

    অলির অনুষ্ঠানে যাওয়ায় জাগপা সভাপতিকে বহিষ্কার করলেন সাধারণ সম্পাদক

    বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের ঐক্য বিরোধী অবস্থানকে কেন্দ্র করে ভেঙে যাচ্ছে জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি (জাগপা)। আর এ বিরোধকে কেন্দ্র করে সভাপতি সাধারণ সম্পাদককে এবং সাধারণ সম্পাদক সভাপতিকে বহিষ্কার করছে এবং অব্যাহতি দিচ্ছে। যার ফলে দলের মধ্যে বিভেদ ও বিশৃঙ্খলা দেখা দিয়েছে। জাগপার একটি নির্ভরযোগ্য সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

    সূত্রটি জানায়, সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক একে অপরকে বহিষ্কার ও অব্যাহতি দেওয়ার কারণে জাগপা দুই ভাগে বিভক্ত হয়ে গেছে। এক পক্ষের নেতৃত্ব দিচ্ছেন ব্যারিস্টার তাসমিয়া প্রধান। আর অপর পক্ষের নেতৃত্ব দিচ্ছেন খন্দকার লুৎফর রহমান।


    এদিকে গণমাধ্যমে পাঠানো জাগপার বিবৃতি থেকে জানা গেছে, গত ২৭ জুন জাতীয় মুক্তি মঞ্চের ঘোষণা দেন লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এলডিপি) সভাপতি অলি আহমদ। আর দলের সাথে আলোচনা ও সিদ্ধান্ত না করে ওই মঞ্চে যাওয়ার জন্য জাগপার সভাপতি ব্যারিস্টার তাসমিয়া প্রধানের কাছে লিখিত জবাব চান দলটির সাধারণ সম্পাদক খন্দকার লুৎফর। দলের সভাপতির কাছে লিখিত জবাব চাওয়ার অপরাধে গত ১ জুলাই খন্দকার লুৎফর রহমানকে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়। যদি পরিবর্তিতে খন্দকার লুৎফরের বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়। তবে গত ৩ সেপ্টেম্বর জাগপার সাধারণ সম্পাদক হিসেবে আসাদুর রহমান খানের নাম ঘোষণা করেন তাসমিয়া প্রধান।

    বিবৃতিতে বলা হয়, জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টির সভাপতি ব্যারিস্টার তাসমিয়া প্রধান আসাদ গেট দলীয় কার্যালয়ে জাগপার জাতীয় নির্বাহী কমিটির সভায় সর্বসম্মতিক্রমে ও গঠনতন্ত্রের ১৫ (খ) ধারা মোতাবেক জাগপা কেন্দ্রীয় কমিটির ১নং যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আসাদুর রহমান খানকে জাগপার ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব প্রদান করেন।

    অপরদিকে দলের ও জোটের ঐক্যবিরোধী অবস্থান গ্রহণ ও গঠনতন্ত্র লঙ্ঘন করার দায়ে জাগপা সভাপতি ব্যারিস্টার তাসমিয়া প্রধান ও যুগ্ম সম্পাদক আসাদুর রহমান খানকে (বর্তমান সাধারণ সম্পাদক) অব্যাহতি প্রদান করা হয়। একই সাথে দলের সহ-সভাপতি খন্দকার আবিদুর রহমানকে দলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হিসাবে দায়িত্ব প্রদান করা হয়।

    শনিবার রাজধানীর এক রেস্তোরায় অনুষ্ঠিত জাগপার এক সভায় এ সিদ্ধান্তের নেওয়ার হয় বলে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়।

    বিবৃতিতে বলা হয়, ২০ দলীয় ঐক্য বিরোধী অবস্থান গ্রহণ করে জাতীয় মুক্তি মঞ্চে অংশগ্রহণকে কেন্দ্র করে দলের মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি ও গঠনতন্ত্র লঙ্ঘন করে সাধারণ সম্পাদককে বহিষ্কার করে নতুন ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মনোনয়নের পরিপ্রেক্ষিতে জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি-জাগপার কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির এক সভা দলের সহ-সভাপতি খন্দকার আবিদুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।

    সভায় ব্যাপক আলোচনার ভিত্তিতে এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয় যে, শফিউল আলম প্রধানের প্রদর্শিত পথের বাইরে জাগপার নতুন কোন পথ নেই। সুতরাং বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের বাইরে নতুন কোন প্লাটফর্মে জাগপা অংশগ্রহণ করেতে পারে না। জাগপা কোন ষড়যন্ত্রের হাতিয়ার হিসাবে ব্যবহৃত হতে পারে না। তাই জাগপা ২০ দলীয় জোটের শরিক হিসাবে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি, গণতন্ত্র ও জনগণের ভোটাধিকার প্রতিষ্ঠায় চলমান আন্দোলনে তার সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকার করতে প্রস্তুত।

    জানতে চাইলে খন্দকার লুৎফর রহমান বলেন, আমরা শফিউল আলম প্রধানের প্রদর্শিত পথে রাজনীতি করি। তার আর্দশের বাইরে যাওয়া সম্ভব নয়। এই পথে আছি বলেই আমাকে বহিষ্কার করা হয়েছে। আর আমাকে বহিষ্কার করার কারণে আমরা তাসমিয়া প্রধান ও আসাদুর রহমান খানকে জাগপা থেকে অব্যাহতি দিয়েছি।

    জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি (জাগপা) এখন থেকে দুইভাগে বিভক্ত বলেও জানান খন্দকার লুৎফর রহমান। তবে এ বিষয়ে জানতে তাসমিয়া প্রধানের সঙ্গে মোবাইল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তিনি ফোন ধরেননি।

    Comments

    comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩
    ১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
    ২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
    ২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী