রবিবার, মার্চ ১, ২০২০

অসহায় বাবার কাঁধে খুন হওয়া দুই সন্তানের লাশ

ডেস্ক   |   রবিবার, ০১ মার্চ ২০২০ | প্রিন্ট  

অসহায় বাবার কাঁধে খুন হওয়া দুই সন্তানের লাশ

মৃত্যু চিরন্তর সত্য। কিন্তু বাবার আগে ছেলেদের মৃত্যু মেনে নেয়া কষ্টকর। আর এর চেয়েও বেশি কষ্টের বাবা বেঁচে থাকতেই তার দুই ছেলে যখন অন্যের হাতে খুন হয় আর সেই লাশ বাবাকেই কাঁধে তুলে নিতে হয়।
নিষ্ঠুর বাস্তবতা হলো এমনটাই ঘটেছে বাবু খানের সাথে। তাকে তার দুই সন্তানের লাশ নিয়ে আসতে হয় হাসপাতাল থেকে। আর এরপর দাফন-কাফনের ব্যবস্থা করতে হয় নিজ হাতে।
ভারতের দিল্লির উত্তর-পূর্বাঞ্চলের মুস্তাফাবাদের এই পিতার কষ্টের কাহীনি এরই মধ্যে দেশে দেশে আলোচনা-সমালোচনার জন্ম দিয়েছে। উগ্র হিন্দুত্ববাদীরা দাঙ্গা বাঁধিয়ে নিরীহ মুসলিমদের যেভাবে হত্যা করছে তা নিয়ে তিরস্কার করেছেন অনেকেই।
বাবু খান যখন হাসপাতালে তার আহত ছেলেদের দেখতে যান তখন অ্যাম্বুলেন্সে তাকে বসিয়ে তার হাতে একটি কাগজ ধরিয়ে দিয়ে ভারী কণ্ঠে চিকিৎসকদের তরফ থেকে বলা হয়- ‘ডেথ সার্টিফিকেট’। এরপর দুই ছেলের নিথর দেহ তুলে দেয়া হয় গাড়িতে।
পরে হাসপাতাল থেকে বাড়ি আসার সময় পর্যন্ত পুরোটা সময়ই নিশ্চুপ ছিলো বাবু।
বাড়ি এসে সাদা কাপড়ে মোড়া দুই পুত্র আমির খান (৩০) ও হাশিম আলীকে (১৯) অ্যাম্বুলেন্স থেকে নামায় স্থানীয়রা। এ সময় বাবু পাশে দাঁড়িয়ে শুধু দেখেছেন। প্রিয় কারও মৃত্যুতে মানুষ বুকফাটা আর্তনাদ করলেও বাবু খান তার দুই আত্মজের চিরবিদায়পত্র হাতে পেয়েও তেমন কিছু করেননি।
জানা যায়, দাঙ্গার ঘটনায় অন্য সংখ্যালঘু মুসলিমদের মতোই বাবু খানের এই দুই পুত্রকে মারতে মারতে নিথর করে ফেলে উগ্রবাদীরা। পরে তাদের গুরু ত্যাগ বাহাদুর হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসকরা দু’জনকে মৃত ঘোষণা করেন। হাসপাতালে ময়নাতদন্তের পর শনিবার আমির ও হাশিমের মরদেহ বুঝিয়ে দেয়া হয় তাদের বাবা বাবু খানকে।
অ্যাম্বুলেন্সে দুই পুত্রের মরদেহ এবং হাতে তাদের ‘ডেথ সার্টিফিকেট’ নিয়ে রোববার বিকেলে বাড়ি ফেরেন পঞ্চাশোর্ধ্ব বাবু খান।


Posted ১১:২১ অপরাহ্ণ | রবিবার, ০১ মার্চ ২০২০

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

Archive Calendar

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১  
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি) মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।
বার্তা ও সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭।

হেল্প লাইনঃ ০১৭১২১৭০৭৭১

E-mail: [email protected] | [email protected]