• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    আগে দেশের জন্য কিছু করে সংস্কৃতি নিয়ে ইত্তেজিত হন: প্রিয়তি

    অনলাইন ডেস্ক: | ২০ জুলাই ২০১৭ | ৩:৫৮ অপরাহ্ণ

    আগে দেশের জন্য কিছু করে সংস্কৃতি নিয়ে ইত্তেজিত হন: প্রিয়তি

    সমাজের বিভিন্ন বিচ্যুতি নিয়ে বরাবরই গলা চড়ান বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত মিজ আর্থ ইন্টারন্যাশনাল মাকসুদা আক্তার প্রিয়তি। দুই সন্তানকে নিয়ে আয়ারল্যান্ডে বসবাসরত স্বাধীনচেতা প্রিয়তি নানা চ্যারিটি কাজে নিজেকে নিয়োজিত রাখেন। মডেলিং থেকে আয় করা অর্থ দিয়ে দেন অসহায়দের জন্য। নিজের কাছে যেটা যৌক্তিক মনে করেন, সেটাই করে ফেলেন। কে কী ভাবলো তা নিয়ে কখনো মাথা ঘামান না। নানা কারণে তিনি আলোচিত ও সমালোচিত। সম্প্রতি নিজে বডি পেইন্টিংয়ের ছবি ফেসবুকে দিয়ে নতুন করে আলোচনা-সমালোচনায় এসেছেন। একপক্ষ তাকে বাহবা দিচ্ছেন, অন্য পক্ষ তিরস্কার করছেন। কেউ বলছেন, নগ্ন হয়ে বডি পেইন্টিং আমাদের সমাজ, সংস্কৃতি, ধর্ম সমর্থন করে না। যারা তিরস্কার করছেন, প্রিয়তি তাদেরকে জবাব দিয়েছে নিজের মতো করে।

    বাংলাদেশ সময় বৃহস্পতিবার সকালে নিজের বডি পেইন্টিংয়ের ছবি ফেসবুকে দিয়ে প্রিয়তি লেখেন, ”শরীর দেখানো আসলে কোন সাহসীকতা নয় বরং তা জোরালো আত্মবিশ্বাস, নিজের শরীরের প্রতি । শরীর দেখানোর মতো শরীর থাকতে হয় এবং সেই শরীর দেখার জন্য চার দেয়ালের বাইরের পৃথিবীতে দৃষ্টিও থাকতে হয়। গর্বও তখন হয় যখন আত্মবিশ্বাস থাকে তার প্রধান শাখা।


    দুঃখজনকভাবে মূর্খ আর প্রতিহিংসা পরায়ণ জীবের এই কথা গুলো বোঝার আওতায় আসবে না।”

    এর কয়েকঘণ্টা পরে তিনি ফেসবুকে আরও একটি স্ট্যাটাস দেন। তাতে লিখেছেন-

    ajkerograbani.com

    ”ধর্ম , সমাজ ও সংস্কৃতি এই তিনটার দোহাই আমাকে দিয়ে লাভ নেই , এই গুলোর দোহাই আমাকে বিচলিত করে না, কেননা, আমি যখন অসুস্থ হয়ে বিছানায় পড়ে থাকি বা কাজ করতে পারি না তখন এই তিনটার একটিও এসে আমার বাচ্চাদের খাবার দিয়ে যায় না বা স্কুলের খরচ বা আমার বাসার বিল , কোনটাই না। সুতরাং, কেউ আমাকে ইমোশনালি ব্ল্যাকমেইল বা অপদস্ত করতে চাইলে আপনারাই হতাশ হবেন , আমাকে তিল পরিমাণ হেলাতে পারবেন না। ব্যাংক ব্যালেন্স আমার সব সময়ের মতোই শুন্য থাকে। ব্যাংক ব্যালেন্স নিয়ে তো আর আমি কবরে যাবো না। নিজের ঢোল নিজে পিটাতে হয় না , তাই শিখেছিলাম , কিন্তু মাঝে মাঝে হয়তো পিটাতে হয় সময়ের স্বার্থে । আমার মডেলিং থেকে উপার্জন করা কোন আয় আমার বাসায় আসে না, চলে যায় বিভিন্ন চ্যারিটির কাজে । কেননা মিডিয়াতে কাজ আমার পেশা নয় , করা হয় শখে কিন্তু যখন কাজ করি তা করি আমার সর্বশক্তি দিয়ে, কিছু মানুষের উপকারের স্বার্থে। নিজের জীবন বা জীবিকার জন্য আমার ভিন্ন পেশা রয়েছে , যা আপনাদের সবারই জানা। যতদিন ফিজিক্যালি ফিট থাকবো ততদিন পর্যন্ত আমার পাইলট চাকুরীও থাকবে।

    আচ্ছা , যাদের আমার কাজ নিয়ে নেতিবাচক ধারনা রয়েছে/ তৈরি হয়েছে তাদেরকে বলছি, আপনি একজন পথশিশুর পড়াশুনার দায়িত্ব নিন , আমাদেরকে দেখান , যদি তখন আমাকে কিছু বলার থাকলে বলুন, আমি আপনার গালি ফ্রিতে নিয়ে নিব। নিজের সমাজের/ দেশের মানুষের জন্য আগে কিছু করুন , করিয়ে দেখান , তারপর না হয় সমাজ/দেশ/ ধর্ম/ সংস্কৃতি নিয়ে উত্তেজিত হন।
    ”সবার আগে মানুষ সত্য……

    বিঃ দ্রঃ আমি বাংলা এবং ইংলিশ দুইটাতেই কাঁচা , অর্থাৎ ভাষাগত দুর্বলতা আছে , কোথাও কোন ভুল হলে ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন। সবার প্রতি ভালোবাসা রইলো ।”

    Facebook Comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২
    ১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
    ২০২১২২২৩২৪২৫২৬
    ২৭২৮২৯৩০৩১  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4755