রবিবার, জুন ২৭, ২০২১

আতঙ্কে পাঁচ শতাধিক পরিবার

  |   রবিবার, ২৭ জুন ২০২১ | প্রিন্ট  

আতঙ্কে পাঁচ শতাধিক পরিবার

উজানের ঢলে নীলফামারীর ডিমলার দোহলপাড়া গ্রামের পুর্বপাড়ার গ্রাম রক্ষা বেড়িবাঁধটি ভাঙনের কবলে পড়েছে। রোববার পর্যন্ত বাঁধটির বিভিন্ন অংশে ছোটখাটো ভাঙন দেখা দিলেও একটি অংশের প্রায় ১শ মিটার নদীগর্ভে বিলীন হয়েছে। এতে আতঙ্ক বিরাজ করছে স্থানীয় ৫ শতাধিক পরিবারের মাঝে।তিস্তা নদী পাড়ের এ বাঁধ দ্রুত সময়ের মধ্যে সংস্কার ও ভাঙন রোধে ব্যবস্থা না নিলে যে কোনো সময় এসব পরিবার পানিবন্দিসহ হাজার একর আবাদি জমি জলমগ্ন হতে পারে, পাশাপাশি বেশকিছু বসতভিটা ও আবাদি জমি নদীগর্ভে বিলীন হওয়ার আশঙ্কা করছেন তারা।
 
সরেজমিনে জানা যায়, সপ্তাহখানেক আগে উজানের ঢলে তিস্তা নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় আকস্মিক এ ভাঙন শুরু হয়। দু-একদিন পর পানি কিছুটা কমতে থাকার সাথে সাথে ভাঙনের তীব্রতা বাড়তে থাকে। ভাঙনে প্রতিদিনই যুক্ত হচ্ছে নতুন অংশ। প্রবীণ ও মধ্য বয়সের মধ্যে জামাল উদ্দিন, আব্দুল্লাহ, সুফিয়া বেগম, আবু তালেবসহ স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, ভাঙনের শুরুর প্রায় এক সপ্তাহ হয়ে গেলেও প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ তো দুরের কথা, সংশ্লিষ্টরা এক নজর দেখতেও আসেনি। ইতোমধ্যে অনেকেই নিজের বসতভিটা রেখে আত্মীয়-স্বজনের বাড়িতে আশ্রয় নিয়েছেন। ভাঙন ঠেকানো ও সংস্কার করা না হলে হুমকিতে পড়বে দোহলপাড়া গ্রোয়িং বাঁধ, পাগলপাড়া বাজারসহ ইউনিয়নটির পুরো ২ নং ওয়ার্ড ও এর আশপাশের এলাকা।
 
খগাখড়িবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম লিথন বলেন, বাঁধটি দ্রুত মেরামত ও পূননির্মাণের ব্যবস্থা গ্রহণ না করলে ক্ষতির পরিমাণ ভয়াবহ রূপ নিতে পারে।পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) ডালিয়া ডিভিশনের দায়িত্বে থাকা নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, বিষয়টি জানার পর রোববার সেখানে প্রতিনিধি পাঠানো হয়েছে। পর্যবেক্ষণ রিপোর্ট অনুসারে বাঁধ রক্ষায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।ডিমলা উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা জয়শ্রী রানী রায় বলেন, ওই এলাকার চেয়ারম্যানকে বিস্তারিত জানাতে বলেছি।খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।


Posted ১১:৩৮ পিএম | রবিবার, ২৭ জুন ২০২১

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement