• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    আড়াই হাজার কোটি টাকা ক্ষতি ১৯ দিনে

    অনলাইন ডেস্ক | ২৮ এপ্রিল ২০১৭ | ৪:৩৫ অপরাহ্ণ

    আড়াই হাজার কোটি টাকা ক্ষতি ১৯ দিনে

    হাজারীবাগের ট্যানারিগুলোর সেবা সংযোগ বন্ধ করে দেওয়ার ১৯ দিনে দেড় হাজার কোটি টাকার রপ্তানি আদেশ বাতিল হয়েছে বলে দাবি করেছেন চামড়াশিল্প রক্ষা ঐক্য পরিষদের নেতারা। তাঁরা বলছেন, এই কয়েক দিনেই এ শিল্পে মোট ক্ষতির পরিমাণ দাঁড়িয়েছে আড়াই হাজার কোটি টাকার বেশি।
    গতকাল বৃহস্পতিবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে (ডিআরইউ) ঐক্য পরিষদ আয়োজিত ‘মিট দ্য প্রেস’ অনুষ্ঠানে তাঁরা এ দাবি করেন।
    ঐক্য পরিষদের নেতারা বলেন, ৯ এপ্রিল উচ্চ আদালতের দেওয়া আদেশ অনুসারে সাভারের চামড়াশিল্প নগরে ১৫ দিনের মধ্যে গ্যাস-সংযোগ দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু এখন পর্যন্ত মাত্র ৯টি কারখানাকে সংযোগ দেওয়া হয়েছে। অথচ আবেদন করেছে ১৪০টি কারখানা। এখন এ ব্যাপারে তাঁরা আইনের দ্বারস্থ হওয়ার কথা ভাবছেন।
    পরিবেশদূষণ রোধে হাজারীবাগ থেকে ১৫৪টি ট্যানারি সাভারে সরিয়ে নিতে ১ হাজার ৭৯ কোটি টাকা ব্যয়ে একটি প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে সরকার। সাভারের হেমায়েতপুরে হরিণধরা গ্রামে প্রায় ১৯৯ একর জমিতে গড়ে তোলা হয়েছে চামড়াশিল্প নগর। এই প্রকল্প নেওয়া হয় ২০০৩ সালে। ১৩ বছরে দফায় দফায় সময় বেঁধে দিয়েও অধিকাংশ ট্যানারিকে সাভারে নেওয়া যায়নি। আবার সেখানে প্রয়োজনীয় অবকাঠামোও যথাসময়ে সরকার তৈরি করতে পারেনি বলে অভিযোগ করে আসছেন ব্যবসায়ীরা। সর্বশেষ উচ্চ আদালতের নির্দেশে ৮ এপ্রিল হাজারীবাগের ট্যানারিগুলোর গ্যাস-বিদ্যুৎ ও পানির সংযোগ বন্ধ করে দেয় পরিবেশ অধিদপ্তর। ফলে বন্ধ হয়ে যায় এখানকার সব উৎপাদনের কাজ।
    এরপর থেকেই চামড়াশিল্প নগরে কেন্দ্রীয় বর্জ্য শোধনাগার (সিইটিপি), ক্রোম রিকভারি ইউনিট ও ডাম্পিং ইয়ার্ড নির্মাণ, সেখানে সর্বোচ্চ আদালতের নির্দেশ অনুসারে গ্যাস-বিদ্যুতের ব্যবস্থা নিশ্চিত করা, কারখানা বন্ধ থাকার সময়ে শ্রমিক কর্মচারীদের বেতন-ভাতা পরিশোধের জন্য এককালীন অর্থ বরাদ্দ, উৎপাদন বন্ধ থাকায় যেসব রপ্তানি আদেশ বাতিল হবে এবং ক্রেতারা যে ক্ষতিপূরণ দাবি করবেন, সে অর্থ সরকারের পক্ষ থেকে পরিশোধের উদ্যোগ নেওয়াসহ ৯ দফা দাবিতে আন্দোলন করছে এই খাতসংশ্লিষ্ট ১৯টি সংগঠনের সমন্বয়ে গঠিত চামড়াশিল্প রক্ষা ঐক্য পরিষদ।
    গতকালের অনুষ্ঠানে ঐক্য পরিষদের কো-চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান শাহীন আহমেদ বলেন, এই শিল্পের সঙ্গে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে প্রায় এক কোটি লোক জড়িত। উৎপাদন বন্ধ থাকায় এর মধ্যেই ১ হাজার ৫০৫ কোটি টাকার রপ্তানি আদেশ বাতিল হয়েছে। ট্যানারি মালিক, এই খাতসংশ্লিষ্ট বিভিন্ন অ্যাসোসিয়েশন ও ব্যবসায়ীদের ক্ষতি ২ হাজার ৬০০ কোটি টাকার বেশি। অথচ এখনো সাভারে সিইটিপি ঠিকভাবে কাজ করছে না। তিনটি ক্রোম রিকভারি ইউনিটের কাজও শুরু হয়নি।
    শাহীন আহমেদ আরও বলেন, ‘৮ এপ্রিল সেবা সংযোগ বন্ধের পরদিন আদালত ১৫ দিনের মধ্যে সাভারে গ্যাস-সংযোগ দিতে নির্দেশ দিয়েছিলেন। এর মধ্যে ১৪০ জন মালিক গ্যাস-সংযোগের আবেদন করলেও পেয়েছেন মাত্র ৯ জন।’ এই অবস্থায় সুপ্রিম কোর্টের অবকাশ শেষ হলেই আদালতে যাওয়ার কথা বললেন এই নেতা।
    ঐক্য পরিষদের আরেক কো-চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ ফিনিশড লেদার, লেদারগুডস অ্যান্ড ফুটওয়্যার এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ চামড়া খাতে বিদ্যমান ‘অচলাবস্থার’ জন্য সাভারে প্রকল্প বাস্তবায়নকারী সংস্থা বিসিককে দায়ী করেন। শিল্পনগরে কবে নাগাদ উৎপাদন শুরু করা সম্ভব হবে, তা নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেন তিনি।
    অনুষ্ঠানে ঐক্য পরিষদের সদস্যসচিব আবুল কালাম আজাদসহ পরিষদভুক্ত ১৯টি সংগঠনের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।


    Facebook Comments Box


    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
    ১০১১১২১৩১৪
    ১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
    ২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
    ২৯৩০৩১  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4757