মঙ্গলবার, মার্চ ১০, ২০২০

ইন্টারপোলের কাছে আটজনের তালিকা দিয়েছে দুদক

ডেস্ক   |   মঙ্গলবার, ১০ মার্চ ২০২০ | প্রিন্ট  

ইন্টারপোলের কাছে আটজনের তালিকা দিয়েছে দুদক

অবৈধভাবে ব্যাংক বা আর্থিক প্রতিষ্ঠানের টাকা কিংবা সরকারি অর্থ আত্মসাৎ করে বিদেশে পালিয়ে থাকা আট ব্যক্তিকে ফেরাতে আন্তর্জাতিক পুলিশ সংস্থা ইন্টারপোলের কাছে তাদের তালিকাসহ বিস্তারিত তথ্য দিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়া, কানাডাসহ বিভিন্ন দেশে অর্থপাচার করে পালিয়ে থাকা এমন ৭০ জনের একটি তালিকাও তাদের হাতে প্রস্তুত আছে বলে জানান দুদক চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ।
মঙ্গলবার (১০ মার্চ) দুদক কার্যালয়ে সংস্থাটির চেয়ারম্যান বলেন, ‘অর্থপাচারের অভিযোগে ইতিমধ্যেই অনেক মামলা হয়েছে। আদালতের আদেশ নিয়ে ওই অপরাধীদের দেশে ফিরিয়ে এনে বিচারের মুখোমুখি করতে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কমিশন। একই সঙ্গে পাচার করা অর্থও ফেরত আনার উদ্যোগ নেওয়া হবে।’
যে আটজনের তালিকা ইন্টারপোলকে দেওয়া হয়েছে তাদের বিষয়ে জানতে চাইলে ইকবাল মাহমুদ বলেন, ‘নিরাপত্তার স্বার্থে আমরা তাদের নাম ও তালিকা প্রকাশ করছি না। কারণ নাম ও তালিকা প্রকাশ করলে অপরাধীরা স্থান পরিবর্তন করে ফেলে। সে কারণেই আমরা এই মুহূর্তে তালিকা দেবো না।’
দুদক চেয়ারম্যান বলেন, ‘যিনি বা যারা অবৈধভাবে ব্যাংকের বা সরকারি অর্থ আত্মসাৎ ও পাচার করে বিদেশে বিলাসবহুল জীবন যাপন করছেন, তাদের প্রত্যেককেই অপরাধের জন্য বিচারের মুখোমুখি হতে হবে। ইন্টারপোলসহ আন্তর্জাতিক সব আইনি প্রক্রিয়া ও কৌশল প্রয়োগ করে অপরাধীদের দেশে ফিরিয়ে এনে বিচারের মুখোমুখি করা হবে।’
রাজনৈতিক ব্যক্তি কিংবা আমলাদের দুর্নীতির বিষয়ে দুদকের শিথিলতা নিয়ে প্রশ্ন করা হলে চেয়ারম্যান বলেন, ‘কে পলিটিকাল লিডার, কে আমলা এটা দেখার সুযোগ দুদকের নেই। দুদক দেখবে তার জ্ঞাত আয়বহির্ভূত কী আছে, সে কোনো ধরনের দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত কি না। দোষী হলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’
দুদকের একটি সূত্র জানায়, পাচার করা অর্থ ফেরত আনতে বাংলাদেশ ব্যাংক, বাংলাদেশ ফিন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট (বিএফআইইউ), অ্যাটর্নি জেনারেলের অফিস, দুর্নীতি দমন কমিশন, জাতীয় রাজস্ব বোর্ড, সিআইডি কাজ করছে। কিন্তু এ সংস্থাগুলোর মধ্যে সমন্বয়ের অভাব রয়েছে। যে কারণে পাচার করা অর্থ ফিরিয়ে আনার বিষয়ে দৃশ্যমান কোনো অগ্রগতি নেই।
তবে এবার এককভাবে পাচার করা অর্থ ফেরত আনার উদ্যোগ নিচ্ছে দুদক। এ ক্ষেত্রে কমিশনের পক্ষ থেকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সহায়তাও চাওয়া হয়েছে। সেই পরিপ্রেক্ষিতে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে বিদেশে অবস্থানরত দেশীয় দূতাবাসগুলোকে দুদককে সহযোগিতা করতে জরুরি নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।
সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, মালয়েশিয়া, কানাডা, সুইজারল্যান্ড, সিঙ্গাপুর, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও মধ্যপ্রাচ্যসহ বিভিন্ন দেশে বাংলাদেশ থেকে বিপুল পরিমাণ অর্থ পাচারের অভিযোগ পেয়েছে দুদক।


Posted ৫:২২ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ১০ মার্চ ২০২০

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

Archive Calendar

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১