• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    ইবির সেই অস্ত্রধারী এখন ঢাবির সহকারী অধ্যাপক

    অগ্রবাণী ডেস্ক | ২০ এপ্রিল ২০১৭ | ৮:২৩ পূর্বাহ্ণ

    ইবির সেই অস্ত্রধারী এখন ঢাবির সহকারী অধ্যাপক

    কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) অস্ত্র চালানোর প্রশিক্ষণ নিতে গিয়ে সংবাদের শিরোনাম হওয়া সেই শিক্ষককে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। প্রভাষক পদ থেকে সম্প্রতি তাকে পদোন্নতি দিয়ে সহকারী অধ্যাপক করা হয়েছে।


    বিষয়টি নজরে আনলে এ নিয়ে ক্যাম্পাসে সমালোচনার ঝড় ওঠে। প্রাচ্যের অক্সফোর্ডখ্যাত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে এমন একজন সমালোচিত ও বিতর্কিত ব্যক্তিকে শিক্ষক নিয়োগ দেয়ায় ক্ষুব্ধ শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। এ ক্ষেত্রে কর্তৃপক্ষের ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে।

    ajkerograbani.com

    অস্ত্রধারী ওই ব্যক্তি হলেন মো. মতিয়ার রহমান। তিনি একসময় ইবির পরিসংখ্যান বিভাগের শিক্ষক ছিলেন। পরে নিয়োগ পান জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে। জগন্নাথের প্রভাষক থাকাবস্থায় তিনি সাবেক কর্মস্থল ইবিতে গিয়ে অস্ত্রের প্রশিক্ষণ নেন। বর্তমানে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত পরিসংখ্যান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক। তার গ্রামের বাড়ি কুড়িগ্রামে।

    বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, ২০১৬ সালের ১৭ জুলাই মতিয়ার ঢাবিতে প্রভাষক পদে নিয়োগ পান। সম্প্রতি তাকে পদোন্নতি দিয়ে সহকারী অধ্যাপক করা হয়েছে বলে যুগান্তরকে নিশ্চিত করেছেন বিভাগের প্রশাসনিক কর্মকর্তা শেখ জামিরুল ইসলাম।

    ২০১৪ সালে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) সংলগ্ন নির্জন স্থান মফিজ লেকে অস্ত্রের প্রশিক্ষণ নেন মতিয়ার রহমান এবং ইবির গণিত বিভাগের সাবেক শিক্ষক ও বর্তমান বিসিএস ক্যাডার (অর্থনীতি) আজিজুল হক মামুন। এ দু’জনের মধ্যে মামুন ছিলেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহসভাপতি। মতিয়ার ছিলেন মামুনের ঘনিষ্ঠ বন্ধু। তারা একই সঙ্গে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে নিয়োগ পেয়েছিলেন। তাদের প্রশিক্ষণ দেন বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের তৎকালীন যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সজিবুল ইসলাম সজিব।

    ২০১৪ সালের ৮ সেপ্টেম্বর ‘ছাত্রলীগ নেতার কাছে অস্ত্র চালানো শিখছেন শিক্ষক’ শিরোনামে একটি দৈনিকে সচিত্র সংবাদ প্রকাশিত হয়। ওই সংবাদের পর এ নিয়ে দেশব্যাপী বিশেষ করে শিক্ষাঙ্গনগুলোতে তোলপাড় শুরু হয়। পরদিন ইবির প্রক্টর ড. মাহবুবর রহমানকে অব্যাহতি দেয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এ ছাড়া অস্ত্রের প্রশিক্ষক ছাত্রলীগ নেতা সজিবুল ইসলাম সজিবকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়। দুই শিক্ষকের বিচারের দাবি উঠেছিল বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে। পরে বিষয়টি আড়ালে চলে যায়। সূত্র: যুগান্তর [LS]

    Facebook Comments Box

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
    ১০১১১২১৩১৪
    ১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
    ২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
    ২৯৩০৩১  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4757