• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    ইয়ারেই কয় বাপের ব্যাটা সাদ্দাম

    শহীদুল ইসলাম বেলায়েত | ০১ মে ২০১৭ | ৫:০৩ অপরাহ্ণ

    ইয়ারেই কয় বাপের ব্যাটা সাদ্দাম

    ভাতিজা ফজর আলীর কাছে শুনলাম ভাগিনা আতর আলী কয়দিন আগে তার বউরে নিয়া এক ডাইরেক বাসে চইড়া ফরিদপুর যাইতিছিল। ভালো মনে কইরা কম পয়সায় টিগিট কাইটা আরেক ভাগিনা মুক্তা মিয়া ডাইরেক ঢাকার গাড়িতে তাগো উঠেইয়া দিছিল। এমন ডাইরেক গাড়িতে উঠেইয়া দিছিল যে,কয় হাত যায় আর মানুষ উঠায়। গাড়িখান দুই মাইল যাইয়া ত্যাল মবিল নিতি পরায় এক ঘুন্টা কাটাইয়া দিল।
    প্যাট ভইরা ত্যাল খাইয়া গাড়ির গতর আর নড়েনা। শ্যাষে সব্বাই গাড়িরত্যা নাইম্যা গইড়া গরুর মতোন ধাক্কাইয়া যাও চালাইতি শুরু করলো,কিন্তু আরেক মাইল যাওয়ার আগেই ফটাস কইরা এক চাক্কা বাস্টো হইয়া ধপ্পাস কইরা খাড়াইয়া পড়লো। অনেক কষ্টে চাক্কা বদলাইয়া পুখুইরা বাজার পযন্ত যাইতিই গাড়ির ঠ্যাংগের বল এমনভাবে পইড়া গেল যে,আর নড়ন চড়ন নাই। ডিরাইভার সব্বাইরে কইয়া দিল গাড়ি চলতি চলতি খুব কিলান্ত হইয়া পড়ছে, চলার খ্যামতা নাই। ভাগিনা বউ রাগের গুতায় গজর গজর করতিছিল। গাড়ি ভর্তি মাইনষের সামনে বেইজ্জতি হওয়ার ভয়ে ভাগিনা আর মুখ খোলে নাই। চল্লিশ মিনিটের রাস্তা যাইতি মোটে তিন ঘুন্টা লাগলো।
    ফরিদপুর যাইয়া ভাগিনা বউ আমার ভাগিনা বাবারে ক্যাম্বায় সাইজ করছিলো তা আর আপনাগো শুনার কাম নাই।ভাগ্যি ভালো বাস আলাগো হত্তালের আগের দিন বাড়ি ফিরা আইছিল। নইলি আরো কতো মসিবতে যে পড়তি হইতো তা আল্লাই জানে। বাপের ব্যাটা আমাগো নৌকা মনতিরী শাজাহান ভাই। তার চোরে ইশারায় সারা দ্যাশের গাড়ি যেমন বন্ধ হইয়া যায় আবার তার মুখের একখান কথায় দ্যাশের সব গাড়ির হেলপার ডিরাইভাররা গাড়ি ভাঙ্গা,রাস্তায় আগুন জ্বালানো বন্ধ কইরা দিলো। প্যাসেনজারগো হাত আর ঘাড় ধইরা গাড়িরত্যা ছ্যাড় ছেড়াইয়া মানুষ নামানো বন্ধ হইয়া গেল। সেকেন্ডের মইধ্যে হত্তাত ছাইড়া সব্বাই সুড় সুড়েইয়া গাড়িতে উইঠা গাড়ি ইস্টাট কইরা দিল। ইয়ার আগে আমাগো আরেক মনতিরী ওবায়দুল সাব কতো কইরা গাড়ি ছাড়তি কইলো,কিন্তু কোন কাম হয় নাই।
    পুলিশ ভাইরাও চিষ্টা-তদবির কম করে নাই। শাজাহান ভাই খালি কইলো,গাড়ি চলবি,অমনি গাড়ি চলতি লাগলো। আমাগো আর বুঝতি বাকি থাকলোনা,কার খ্যামতা কতো। ইয়ারেই কয় বাপের ব্যাটা সাদ্দাম। ইয়ার আগেও কয়বার দেখছি,গাড়িআলাগো হত্তাল হইলি শাজাহান ভাই ছাড়া কাম হয় নাই। তার কাছে সব মিয়াই কাইত। এমন একজন খ্যামতাবান মাইনষের নামে কিরমিনালরা কতো কি কইয়া বেড়াইতিছে। দ্যাশ ঠিক মতোন চালাইতি গেলি মাঝে মইধ্যে এই রকম টাইট দিতি হয়। অনেক বড় মিয়ারা লিকচার মারতিছে,শাজাহান ভাইর চাকরী বলে নট হইয়া যাবি। কথাখান কওয়া যতো সুজা,কামডা করা কিন্তু অতো সুজা না। দুয়া করি আল্লায় তারে কিয়ামত পযন্ত বাচাইয়া রাখুক। আমার শ্যাষ কথা হইলো,যাগো অতো মরার ভয়,তাগো রাস্তা দিয়া না যাইয়া জঙ্গল দিয়াই যাওয়া ভালো। তাইলে আর চাক্কার তলে পইড়া মরা লাগবিনা।


    Facebook Comments Box


    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
    ১০১১১২১৩১৪
    ১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
    ২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
    ২৯৩০৩১  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4757