সোমবার, অক্টোবর ১৮, ২০২১

একাধিক নারীর সঙ্গে ‘অবৈধ সর্ম্পক’ ছিল নোবেলের

ডেস্ক রিপোর্ট   |   সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১ | প্রিন্ট  

একাধিক নারীর সঙ্গে ‘অবৈধ সর্ম্পক’ ছিল নোবেলের

দেশের সমালোচিত গায়ক মাইনুল আহসান নোবেল। ওপার বাংলার একটি রিয়েলিটি শো থেকে পরিচিতি পেয়েছেন। তারপর নানা বিতর্কিত কর্মকাণ্ডে জড়িয়েছেন নিজেকে। সম্প্রতি বিচ্ছেদ ইস্যুতে আবারও আলোচনায় নোবেল। গত ১১ সেপ্টেম্বর তাকে তালাক নোটিশ পাঠিয়েছেন মেহরুবা সালসাবিল।

তালাক নোটিশে সালসাবিল উল্লেখ করেছেন, স্ত্রী হিসেবে দুই বছরের খোরপোষ দিতে অক্ষমতা, স্বামীর মস্তিষ্ক বিকৃত, কাবিনের শর্ত লঙ্ঘন, বিবাহ প্রদত্ত কাবিন শর্ত লঙ্ঘন, চরিত্রহীনতা ও নির্যাতনকারী, পরকীয়ায় লিপ্ত, প্রচণ্ড মারধর করে এবং মাদকদ্রব্য গ্রহণকারী হওয়ায় নোবেলের সাথে সংসার করতে চাইছেন না সালসাবিল।


নাম প্রকাশ না করার শর্তে নোবেলের ঘনিষ্ঠ একটি সূত্র সময় নিউজকে জানান, একাধিক নারীর সঙ্গে অবৈধ সর্ম্পক ছিল নোবেলের। তাদের ঘনিষ্ঠ ছবি সময় নিউজের হাতে এসেছে। এগুলো থেকেই তার অবৈধ সর্ম্পকের প্রমাণ পাওয়া গেছে। এর মধ্যে বিমানবালা, স্কুলছাত্রী, বিদেশি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত নারী রয়েছেন। এছাড়া শোবিজের দুই অভিনেত্রীর সঙ্গেও তার শারীরিক সম্পর্ক ছিল বলেও জানা গেছে।

সময় নিউজের হাতে আসা স্ক্রিনশটে দেখা গেছে, এক নারীর সঙ্গে আপত্তিকর চ্যাট করেছেন নোবেল। কিছুদিন আগে নোবেল তার ফেসবুকে এক নারীর সঙ্গে মাদক নেওয়ার ছবি শেয়ার করেছিলেন। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, তিনি একজন বিমানবালা। ‘জ’ অধ্যক্ষরে তার নাম। তার ফেসবুকেও নোবেলর সঙ্গে ছবি দেখা গেছে।


এছাড়া এই বিমানবালার সঙ্গে নোবেলের বিভিন্ন সময়ে তোলা ছবি সময় নিউজে সংরক্ষণ করা আছে। ‘ম’ অধ্যক্ষরে নারায়ণগঞ্জের এক স্কুলছাত্রীর সঙ্গে প্রেম করেছেন নোবেল। তার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ ছবিও পাওয়া গেছে। ‘ন’ অধ্যক্ষরে কলকাতার এক নারীর সঙ্গে নোবেলের অবৈধ সম্পর্ক ছিল বলে জানা গেছে।

‘ম’ অধ্যক্ষরে ধানমন্ডি এলাকার এক স্কুল ছাত্রীর সঙ্গে সম্পর্ক ছিল নোবেলের। নাম প্রকাশ না করার শর্তে সূত্র জানায়, ওই মেয়েকে বিয়ের আশ্বাস দিয়ে শারীরিক সম্পর্ক গড়েছিলেন নোবেল। সে ছবি এবং ভিডিও নিয়ে তাকে ব্ল্যাকমেইল করার চেষ্টা করেন নোবেল। বাধ্য হয়ে ওই স্কুলছাত্রী পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছিলেন। তার সঙ্গেও আপত্তিকর চ্যাটের স্ক্রিনশট সময় নিউজের হাতে আছে।

এসব বিষয়ে জানতে নোবেলের ব্যক্তিগত নাম্বারে একাধিকবার ফোন করেও পাওয়া যায়নি তাকে। খুদে বার্তা পাঠিয়েও পাওয়া যায়নি নোবলকে। সূত্র জানায়, এসব সম্পর্কের কথা জানেন নোবেলের স্ত্রী। তারপরই তিনি বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

যোগাযোগ করা হলে নোবেলের স্ত্রী মেহরুবা সালসাবিল বলেন, ‘নোবেলের বিষয়ে তো আপনারা সবই জানেন। ও বান্দরবন গিয়ে কী করেছে সবই নিউজ হয়েছে। নিজের ফেসবুকে মাদক নেওয়ার ছবি নিজেই শেয়ার করেছে। এগুলো নিয়ে নতুন করে কিছু বলার নেই।’

২০১৯ সালের ১৫ নভেম্বর নোবেলকে বিয়ে করেছিলেন মেহরুবা সালসাবিল। ভালোবেসে বিয়ে করেছিলেন তারা। কিন্তু দাম্পত্য জীবন সুখের হয়নি তাদের। গত ১১ সেপ্টেম্বর তাকে তালাক নোটিশ পাঠিয়েছেন মেহরুবা সালসাবিল। গত ৬ অক্টোবর দুপুরে সময় নিউজকে বিষয়টি জানিয়েছিলেন সালসাবিল নিজেই।

Posted ৩:৪৫ অপরাহ্ণ | সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

Archive Calendar

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১