বুধবার ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৭ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

এসকে সিনহার বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিলেন বড় ভাই ও ভাইপো

  |   সোমবার, ২৮ ডিসেম্বর ২০২০ | প্রিন্ট  

এসকে সিনহার বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিলেন বড় ভাই ও ভাইপো

সাবেক প্রধান বিচারপতি এসকে সিনহার দুর্নীতির মামলা নতুন মোড় নিয়েছে। ফারমার্স ব্যাংকের ৪ কোটি টাকা ঋণ জালিয়াতি ঘটেছে সাবেক প্রধান বিচারপতি এসকে সিনহার নির্দেশ, তত্ত্বাবধান ও প্রভাবে- আদালতে এমন বিস্ফোরক সাক্ষ্য দিয়েছেন এসকে সিনহার বড়ভাই নরেন্দ্র কুমার সিনহা ও ভাইপো শঙ্কজিত সিংহ।
সোমবার (২৮ ডিসেম্বর) ১৬তম সাক্ষী হিসেবে ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৪ এর বিচারক শেখ নাজমুল আলমের আদালতে সাক্ষ্য দেন তারা। দুই সাক্ষী আদালতকে জানান, ২টি অ্যাকাউন্ট খোলা, সেগুলোতে ৪ কোটি ঋণ জমা হওয়া, সেই টাকা ২টি পে অর্ডারের মাধ্যমে বিচারপতি সিনহার অ্যাকাউন্টে স্থানান্তরসহ পুরো বিষয়টিই সাবেক বিচারপতির নির্দেশে ও তত্ত্বাবধানে হয়েছে।
দুর্নীতি দমন কমিশনের আইনজীবী আহমেদ আলী সালাম সময় সংবাদকে বলেন, সাবেক প্রধান বিচারপতি সিনহার বড় ভাই ও ভাইপো’র সাক্ষীতে সুস্পষ্ট হয়েছে এসকে সিনহার ঋণ জালিয়াতির বিষয়টি।
তবে আসামিপক্ষের আইনজীবী মো. শাহিনূর ইসলাম সময় সংবাদকে বলেন ‘বিচারের এই পর্যায়ে এসে এখনও সাবেক প্রধান বিচারপতি ঋণ জালিয়াতি করেছেন এমনটা বলা যাবে না।’
নৈতিক স্খলনের অভিযোগে দেশ ছাড়ার পর সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার বিরুদ্ধে দুর্নীতি ও জালিয়াতির বিভিন্ন অভিযোগ উঠতে থাকে। অভিযোগ ওঠে, দুর্নীতির টাকা দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের নিউজার্সিতে নিজের আপন ছোট ভাই অনন্ত কুমার সিনহার নামে বাড়ি কিনেছেন তিনি। বাড়িটির দাম প্রায় দুই কোটি ৩০ লাখ টাকা। আর ক্ষমতার অপব্যবহার করে ফারমার্স ব্যাংক থেকে ৪ কোটি টাকা ঋণ জালিয়াতির বিচার চলছে দেশের আদালতে।
মামলার ১৮ সাক্ষীর মধ্যে ১৬ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ শেষ হয়েছে। গত ১৩ আগস্ট ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৪ এর বিচারক শেখ নাজমুল আলম সিনহাসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন।
গত ১০ ডিসেম্বর আদালতে এ চার্জশিট জমা দেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা দুর্নীতি দমন কমিশনের পরিচালক বেনজীর আহমেদ। এর আগে ৪ ডিসেম্বর কমিশনের সভায় ১১ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র অনুমোদন দেয়া হয়।
মামলার আসামিদের মধ্যে রয়েছে ফারমার্স ব্যাংক লিমিটেডের অডিট কমিটির সাবেক চেয়ারম্যান মো. মাহবুবুল হক চিশতী (বাবুল চিশতী) বর্তমানে কারাগারে আছেন, ফারমার্স ব্যাংকের সাবেক এমডি এ কে এম শামীম, ফার্স্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট স্বপন কুমার রায়, ভাইস প্রেসিডেন্ট মো. লুৎফুল হক, সাবেক এসইভিপি গাজী সালাহউদ্দিন, টাঙ্গাইলের বাসিন্দা মো. শাহজাহান ও একই এলাকার বাসিন্দা নিরঞ্জন চন্দ্র সাহা জামিনে আছেন।
সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা, ফারমার্স ব্যাংকের ফার্স্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট সাফিউদ্দিন আসকারী, রণজিৎ চন্দ্র সাহা ও তার স্ত্রী সান্ত্রী রায় পলাতক রয়েছেন।

Facebook Comments Box


Posted ৪:৪৯ অপরাহ্ণ | সোমবার, ২৮ ডিসেম্বর ২০২০

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০