শুক্রবার, জুন ২৬, ২০২০

করোনায় বিনামূল্যে অক্সিজেন, শয্যা; মসজিদই এখন চিকিৎসা কেন্দ্র

  |   শুক্রবার, ২৬ জুন ২০২০ | প্রিন্ট  

করোনায় বিনামূল্যে অক্সিজেন, শয্যা; মসজিদই এখন চিকিৎসা কেন্দ্র

বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস ভয়াল কালো থাবা বসিয়েছে ভারতেও। এই মহামারী ভাইরাসকে ঠেকাতে দেশটিতে চলছে লকডাউন। বিভিন্ন জায়গায় আটকে পড়েছেন পরিযায়ী শ্রমিকরা।‌ তাদের ইফতার পালনের জন্য নিজেদের একটি হলের দরজা খুলে দিয়েছিল বৈষ্ণোদেবী ট্রাস্ট মন্দির কর্তৃপক্ষ।
আর এবার মানবিকতার আরেক দিক তুলে ধরল মহারাষ্ট্রের ভিওয়াণ্ডির এক মসজিদ। সেখানকার হলেই গড়ে উঠল করোনা রোগীদের চিকিৎসা কেন্দ্র।
ভারতের স্থানীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা যায়, আক্রান্তের তালিকায় দেশে সবার ওপর মহারাষ্ট্র। সেই রাজ্যেরই ভিওয়াণ্ডিতে মৃত্যুর হার দেশে সর্বাধিক। ৫.‌৩ শতাংশ। জনবহুল এই জেলায় আবারও ১৫ দিনের লকডাউন ঘোষণা করেছে পৌর কর্তৃপক্ষ। তাতেও সংক্রমণ ঠেকানো যায়নি। প্রায় কোনো হাসপাতালেই শয্যা নেই। রোগীর ভিড়। জরুরি পরিষেবা পর্যন্ত মিলছে না।
এই পরিস্থিতেতে এগিয়ে এল জামাত-ই-ইসলামি হিন্দের স্থানীয় শাখা এবং শান্তিনগর ট্রাস্ট। ১৮ জুন শহরের মক্কাহ মসজিদে কোভিড রোগীদের চিকিৎসার জন্য অস্থায়ী কেন্দ্র গড়ে তোলে। যারা হাসপাতালে জায়গা পাবেন না, তাদের এখানে রাখা হবে। অবশ্যই সঙ্কটজনক নয়, এমন রোগী। মসজিদের হলে শয্যা এবং অক্সিজেনের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। সেসবের জন্য রোগীকে কোনো টাকা দিতে হবে না। সারা দিন ছয়‌ জন স্বাস্থ্যকর্মী রোগীদের খেয়াল রাখেন। দিনে দু’‌জন চিকিৎসক এসে রোগীদের দেখে যান।
জামাত-ই-ইসলামির ভিওয়াণ্ডির সদস্য আওসাফ আহমেদ ফালাহি জানান, জেলার হাসপাতালগুলোর ওপর চাপ কমাতেই এই উদ্যোগ। স্বেচ্ছাসেবীরা রোগীদের বাড়ি বিনামূল্যে অক্সিজেন পৌঁছানোরও কাজ করছেন। সূত্র: আজকাল।


Posted ৯:২৪ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, ২৬ জুন ২০২০

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

Archive Calendar

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০  
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি) মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।
বার্তা ও সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭।

হেল্প লাইনঃ ০১৭১২১৭০৭৭১

E-mail: [email protected] | [email protected]