বৃহস্পতিবার ২৯শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১৪ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

করোনাভাইরাস: বিশ্বজুড়ে মৃত্যু প্রায় ৭৬ হাজার

ডেস্ক   |   মঙ্গলবার, ০৭ এপ্রিল ২০২০ | প্রিন্ট  

করোনাভাইরাস: বিশ্বজুড়ে মৃত্যু প্রায় ৭৬ হাজার

করোনাভাইরাসের আক্রমণে বিশ্বজুড়ে সোমবার গত ২৪ ঘণ্টায় প্রাণ হারিয়েছেন আরও ৫ হাজারের বেশি মানুষ। ফলে এই ভাইরাসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে প্রায় ৭৬ হাজারে এসে দাঁড়িয়েছে।
ওয়ার্ল্ডোমিটারের পরিসংখ্যান বলছে, মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত মারা গেছেন মোট ৭৫ হাজার ৮৯৬ জন।
করোনাভাইরাসে মৃত্যুর তালিকায় এখনও বিশ্বের শীর্ষ স্থানটি ধরে রেখেছে ইতালি। তবে দেশটি তাদের রোজকার মৃত্যুর হারে কিছুটা লাগাম টেনেছে। গত সপ্তাহে মৃত্যুর সংখ্যাটা এক লাফে অনেকটাই নামিয়ে আনতে পেযেছে ইতালি। সোমবার সেখানে মারা গেছে ৬৩৬ জন এবং নতুন সংক্রমিত হয়েছে ৩৫৯৯ জন।
এর মাত্র একদিন আগে আর্থাৎ রোববার সেখানে মৃত্যু হয়েছিল ৫২৫ জনের। দেশে করোনা সংক্রমণের পর থেকে যা সর্বনিম্ন বলেই জানিয়েছে স্থানীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। ওই দিন নতুন করে সংক্রমিত হন চার হাজার ৩১৬।
এর আগে প্রতিদিন যে সংখ্যাটা ছিল ৬ হাজার বা তারও বেশি। ইটালির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সূত্রে জানানো হয়েছে, গত কয়েক সপ্তাহ ধরে মৃত্যুর গ্রাফটা যে ভাবে ঊর্ধ্বমুখী হচ্ছিল, তা অনেকটাই নামিয়ে আনা হয়েছে। সংক্রমণ যাতে আর বাড়তে না পারে তার জন্য কড়া পদক্ষেপ নিয়েছে প্রশাসন।
জন্স হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্য অনুযায়ী, এই মুহূর্তে ইটালিতে আক্রান্ত প্রায় এক লাখ ৩৩ হাজার মানুষ। আর মারা গেছে মোট ১৬ হাজার ৫২৩ জন।
জন্স হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের রিপোর্ট অনুযায়ী, গোটা বিশ্বে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১৩ লাখ ৫৮ হাজার ৯৪৩ জন।
সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের মানুষ। মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত তিন লাখ ৬৭ হাজার ৬৫০ জন। তার পরেই রয়েছে স্পেন, ইটালি ও জার্মানি।
করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শুরু হয়েছিল চীন থেকে। কিন্তু এই দেশ সংক্রমণ এবং মৃত্যুর হার অনেকটাই কমিয়ে এনেছে দ্রুত। ফলে সংক্রমণ ও মৃত্যুর তালিকায় অনেকটাই নিচে নেমে এসেছে তারা। এখন দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা হচ্ছে ৮১ হাজার ৭৪০ জন।
তবে যুক্তরাষ্ট্র এবং ইউরোপের দেশগুলি যেমন স্পেন, ইটালি, ফ্রান্স এবং জার্মানিতে সংক্রমণ এবং মৃত্যু লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। শুরুর দিকে সংক্রমণের তালিকার অনেকটাই নিচের দিকে ছিল যুক্তরাষ্ট্র। চীন ছিল শীর্ষস্থানে। এই মুহূর্তে সংক্রমণের দিক থেকে সকলকে টপকে গিয়েছে ডোনাল্ড ট্রাম্পের দেশ। সেখানে আক্রান্ত হয়েছেন তিন লাখ ৬৮ হাজারের বেশি মানুষ।
পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যুও, প্রায় ১১ হাজার। সংখ্যার হিসাবে ১০ হাজার ৯৪৩ জন।
সবচেয়ে খারাপ অবস্থা নিউইয়র্কের। তবে পরিস্থিতি ধীরে ধীরে উন্নতি হচ্ছে বলে জানিয়েছেন গভর্নর অ্যান্ড্রু কুয়োমো। গত দু’দিনে মৃত্যুর হার যেমন কমেছে, পাশাপাশি সংক্রমণেও অনেকটা রাশ টানা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি। এই সংখ্যা কমার কারণ হিসাবে সামাজিক দূরত্বের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ।
করোনায় আক্রান্তের দিক দিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে স্পেন। সেখানে আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ৪০ হাজার ৫১০ জন। তবে স্পেনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, সোমবার নতুন আক্রান্তের সংখ্যাটা অনেকটাই কমেছে। যা গত দু’সপ্তাহের মধ্যে সবচেয়ে কম। প্রতি দিনের মৃত্যুর হারও সামান্য কমেছে।
জার্মানিতে মোট করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৩ হাজার ৩৭৫ জন এবং মারা গেছেন ১৮১০ জন মানুষ।
আক্রান্তে সংখ্যায় লাখের ঘরের দিকে ছুটেছে ফ্রান্সও। দেশটিতে এই মুহূর্তে মোট আক্রান্তের পরিমাণ ৯৮ হাজারের বেশি মানুষ। আর মোট মৃত্যু ৮ হাজার ৯১১ জন।
এদের মধ্যে সোমবার গত ২৪ ঘণ্টাতেই মারা গেছে ৮৩৩ জন, যা ইউরোপের অন্যান্য দেশের তুলনায় অনেক বেশি।

Facebook Comments Box


Posted ৬:৩৫ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ০৭ এপ্রিল ২০২০

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১