শনিবার ২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১০ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

করোনার টিকা নিবন্ধন করতে গেলেন মৃত্যুর তিন বছর পর

ডেস্ক রিপোর্ট   |   শনিবার, ৩১ জুলাই ২০২১ | প্রিন্ট  

করোনার টিকা নিবন্ধন করতে গেলেন মৃত্যুর তিন বছর পর

ঝিনাইদহ পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাঞ্চন নগরের শেখ মোহাম্মদ আলীর ছেলে এসএম আনোয়ার হোসেন। করোনাভাইরাসের টিকার জন্য নিবন্ধন করতে গিয়ে জানতে পারলেন তিন বছর আগে মারা গেছেন তিনি। বাড়িতে ফিরে পরিবারকে এ তথ্য জানাতেই সবার চোখ কপালে উঠল।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, এসএম আনোয়ার নির্বাচন কমিশনের খাতায় ২০১৮ সাল থেকেই মৃত। ওই বছর পৌরসভা থেকে স্মার্টকার্ড গ্রহণ করেন তিনি। এরপর কোনো নির্বাচনে ভোট দিতে যাননি। ভোটার তালিকায়ও তিনি মৃত।


ভোটার তথ্য সংগ্রহকারী ঝিনাইদহ ওয়াজির আলী স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষক শরিফুল ইসলাম জানান, বাড়ির লোকজনের কাছে শুনে আনোয়ারের তথ্য ফর্ম পূরণ করা হয়েছে। ইচ্ছাকৃত বা উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে কিছুই করা হয়নি। এটা ভুল করে হতে পারে বলে স্বীকার করেন তিনি।

সদর উপজেলা নির্বাচন অফিসার মো. মশিউর রহমান জানান, তথ্যগত ভুল হয়েছে। আবেদন করে সংশোধন করা যাবে।


ঝিনাইদহ সদর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. শামীম কবির জানান, সরকার ৮০ শতাংশ লোককে টিকার আওতায় আনার চিন্তা করেছে। সে লক্ষ্যে নিবন্ধন ছাড়া শুধুমাত্র জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর লিখে রেখে টিকা দেওয়ার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। এ ব্যবস্থা চালু হলে এসএম আনোয়ার টিকা নিতে পারবেন।

এদিকে নির্বাচন অফিসের দৃষ্টিতে এমন ঘটনা খুব ছোট হলেও এ সমস্যায় ভুগছেন অনেকেই। কারো বাবা-ছেলের বয়সের পার্থক্য দুই বছর, নামের বানান ভুল, সার্টিফিকেটে এক নাম জাতীয় পরিচয়পত্রে আরেক নাম, প্রকৃত বয়সের চেয়ে জাতীয় পরিচয়পত্রে বয়স ১৫-২০ বছর কম- এমন সমস্যা নিয়ে প্রতিদিন নির্বাচন অফিসে ভিড় করতে দেখা যায় অসংখ্য মানুষকে।

ভুক্তভোগীদের দাবি, সরজমিনে না গিয়ে তথ্য সংগ্রহকারীরা নিজেদের খেয়াল খুশিমতো তথ্য দেওয়ায় এ পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে।

Facebook Comments Box

Posted ১২:৫৩ অপরাহ্ণ | শনিবার, ৩১ জুলাই ২০২১

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০