সোমবার, মার্চ ৩০, ২০২০

শিরোনাম >>
শিরোনাম >>

করোনা ভাইরাস থেকে মুক্তি পেতে আল কুরআনের ভাষ্য অনুযায়ী আমাদের করণীয়

জাওহার ইকবাল খান   |   সোমবার, ৩০ মার্চ ২০২০ | প্রিন্ট  

করোনা ভাইরাস থেকে মুক্তি পেতে আল কুরআনের ভাষ্য অনুযায়ী আমাদের করণীয়

করোনাভাইরাস নিঃসন্দেহে আসমানী বালা প্রকারান্তরে মানুষের হাতের কামাই। আল্লাহ সুবহানাহুওয়া তা’আলার নির্দেশে সংক্রামিত হয়েছে এবং তার নির্দেশেই গোটা পৃথিবীতে নির্মূল হবে। দয়াময় আল্লাহর কাছে সে প্রার্থনা করছি। আল্লাহ তা’আলা কুরআনুল কারীমে ইরশাদ করেন
بسم الله الرحمن الرحيم،ظهر الفساد في البر والبحر بما كسبت ايدي الناس ليذيقهم بعض الذي عملوا لعلهم يرجعون
অর্থাৎ স্থলে জলে মানুষের কৃতকর্মের দরুন বিপর্যয় ছড়িয়ে পড়েছে। আল্লাহ তাদেরকে তাদের কর্মের শাস্তি আস্বাদন করতে চান, যাতে তারা পূর্বের জায়গায় ফিরে আসে। (সূরা আর-রূম,আয়াত নং-41)
তাফসীরে রুহুল মাআনী তে এসেছে, বিপর্যয় মানি দুর্ভিক্ষ মহামারী অগ্নিকাণ্ড ইত্যাদি আর বর্তমানে তা করোনাভাইরাস। আল্লাহ তাআলা অন্য আয়াতে এরশাদ করেন
وما اصابكم من مصيبه فبما كسبت ايديكم ويعفو عن كثير
অর্থাৎ আর তোমাদেরকে যেসব বিপদাপদ স্পর্শ করে তা তোমাদের হাতের কামাই, তোমাদের এই কীর্তি কর্মের কারণে আর অনেক গুনাহ তো আল্লাহ তাআলা এমনিতেই ক্ষমা করেছেন। আল্লাহ তায়ালা আরও ইরশাদ করেন
فانتقمنا من الذين اجرموا وكان حقا علينا نصر المؤمنين
অর্থাৎ আমি অপরাধীর কাছ থেকে প্রতিশোধ গ্রহন করেছি আর মুমিনদের সাহায্য করা তো আমার দায়িত্ব ছিল।
আল্লাহ তাআলা বান্দাদের কাছে অতি দয়ালু। আর তিনি তার ওয়াদা কখনো বরখেলাপ করেন না। এরশাদ হচ্ছে
وربك الغفور ذو الرحمة لويؤاخذهم بما كسبوا لعجل لهم العذاب بل لهم موعد ليجدوا من دونه موءلا
অর্থাৎ আপনার পালনকর্তা ক্ষমাশীল, দয়ালু ।যদি তিনি তাদের কৃতকর্মের জন্য পাকড়াও করতেন, তবে তাদের জন্য শাস্তি ত্বরান্বিত করতেন, কিন্তু তাদের জন্য রয়েছে একটি প্রতিশ্রুত সময়, যা থেকে তারা সরে যাওয়ার জায়গা পাবে না। এ করোনাভাইরাস মহামারী থেকে আল্লাহ সুবহানাহুওয়া তা’য়ালা রক্ষা করার ওয়াদা করেছেন তার বান্দাদেরকে, আল্লাহ কুরআনুল কারীমে ইরশাদ করেন
وماكان الله معذبهم وهم يستغفرون
অর্থাৎ তারা যতক্ষণ ক্ষমাপ্রার্থনা করতে থাকবে আল্লাহ সুবহানাহুওয়া তা’য়ালা তাদের উপর আযাব দেবেন না। আল্লাহ অন্য জায়গায় বলেন
وعلى الله فليتوكل المؤمنون
অর্থাৎ একমাত্র আল্লাহ তালার উপরে মুমিনদের ভরসা করা উচিত। এ মহামারী করোনা ভাইরাস থেকে নিষ্কৃতি পাওয়ার জন্য আরও এরশাদ করেন
ففروا الى الله اني لكم منه نذير مبين ولا تجعلوا مع الله الها اخر اني لكم منه نذير مبين
অর্থাৎ তোমরা আল্লাহর দিকে রুজু হও, আমি তার তরফ থেকে তোমাদের জন্য সুস্পষ্ট সতর্ক কারি। আর আল্লাহর সাথে অন্য আরেকজন ইলাহ সাব্যস্ত করো না, আমি তাঁর তরফ থেকে তোমাদের জন্যে সুস্পষ্ট সতর্ককারী। আল্লাহ সুবহানাহুওয়া তা’য়ালা আমাদেরকে সময় দিয়েছেন অবসরের সুযোগ করে দিয়েছেন, তাকে একান্ত ভাবে ডাকার সময় করে দিয়েছেন, অতএব তার কাছে প্রার্থনা তার কাছে এস্তেগফার তার কাছে মিনতি, তিনি আমাদেরকে এ মহামারি ভাইরাস থেকে নিষ্কৃতি দান করবেন এবং যাবতীয় বিপদ আপদ থেকে উদ্ধার করবেন, আর আমরা তো উপায় জাহানের কল্যাণ এর প্রত্যাশী। আল্লাহ তা’আলা কুরআনুল কারীমে ইরশাদ করেন
فان مع العسر يسرا ان مع العسر يسرا فاذا فرغت فانصب والى ربك فارغب,
অর্থাৎ নিশ্চয় কষ্টের সাথে স্বস্তি রয়েছে, নিশ্চয়ই কষ্টের সাথে শান্তি রয়েছে অতএব হে রাসুল আপনি যখন দাওয়াত ও তাবলীগের কাজ থেকে অবসর পান, অন্য কাজের জন্য তৈরি হয়ে যান, আর তা হল এই যে, আপনার রবের প্রতি আত্মনিয়োগ করুন। অর্থাৎ তওবা ইস্তেগফার ও দোয়ার মাধ্যমে আপনার রবের প্রতি মনোনিবেশ করুন এবং তাঁর সান্নিধ্যে পেতে মগ্ন হন।
বিশ্ব মহামারী করোনাভাইরাস নামক আল্লাহর গজব থেকে মুক্তি একমাত্র আল্লাহর কাছেই রয়েছে।
বিশ্বের কোন শক্তি এর মোকাবেলা করার কোন ক্ষমতা নেই।
তাই কাঁদো মালিকের দরবারে,
সদা রোনাজারি সহকারে।
“তোল দুই হাত,
করো মোনাজাত,
পাবে রহমত,
মিলিবে নাজাত”।
# আসুন তাই আল্লাহর দরবারে সকল গুনাহ ক্ষমা চেয়ে খাঁটি তওবা করি।
# পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ ওয়াক্তমত আদায় করি।
# অন্যান্য সকল ফরয-ওয়াজিব গুলি মেনে চলি।
# বিশ্বস্বাস্থ্য মহা বৈজ্ঞানিক রাজ মুহাম্মাদুর রাসুলুল্লাহ (সঃ) এর সুন্নত গুলি বেশি আমল করার চেষ্টা করি। সাথে এই দোয়া বেশি বেশি পড়বেন।
اللهم اني اعوذ بك من البرص والجنون
والجذام ومن سيء الاسقام.
উচ্চারণ – আল্লাহুম্মা ইন্নি আউযুবিকা মিনাল বারাসি ওয়াল যুনুনি ওয়াল জুযামি ওয়া মিন ছাইয়্যি ইল আসক্বাম।
(আবু দাউদ তিরমিযী)
اللهم اني اعوذ بك من البلاء والوباء ومن سيء الكروما لي خمسة واطفي بيها حر الوباء الحاطمة المصطفى والمرتضى وابناهما و الفاطمية.
উচ্চারণঃ-আল্লাহুম্মা ইন্নি আউযুবিকা মিনালা বালা-ই ওয়াল ওবা-ই অমিল ছাইয়্যিইল করোনা
লি- খমছাতুন উতফি বিহাহাররুল ওবা-ইল হাতিমা আল মোস্তফা ওয়ান মুরতাদা ওয়া ইবনাহুমা ওয়াল ফাতিমা।
# অবশ্যই পরিবেশ নিয়ন্ত্রণে সরকারের আইন, পরামর্শ, নির্দেশ মেনে চলুন।
* জাওহার ইকবাল খান
সিনিয়র সাব এডিটর, দৈনিক ভোরের পাতা ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, ঢাকা সাব-এডিটরস কাউন্সিল।


Posted ১১:৫৫ এএম | সোমবার, ৩০ মার্চ ২০২০

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement