রবিবার, মার্চ ১৫, ২০২০

‘কলেমা পড়, তোকে মেরে ফেলব, বলছিলেন আরডিসি নাজিম’

ডেস্ক   |   রবিবার, ১৫ মার্চ ২০২০ | প্রিন্ট  

‘কলেমা পড়, তোকে মেরে ফেলব, বলছিলেন আরডিসি নাজিম’

মধ্যরাতে বাসার দরজা ভেঙে তুলে নিয়ে গিয়ে কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসকের অফিসে নির্যাতনের রোমহর্ষক বর্ণনা দিয়েছেন ঢাকা ট্রিবিউনের কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি সাংবাদিক আরিফুল ইসলাম।
রবিবার জামিনে বেরিয়ে নিজের ওপর অমানসিক নির্যাতনের বর্ণনা দিয়েছেন তিনি। তিনি বলেন, আরডিসি (সিনিয়র সহকারী কমিশনার-রাজস্ব) নাজিম উদ্দিনের নেতৃত্বে আমাকে একটি কক্ষে নিয়ে বিবস্ত্র করে বেধড়ক মারধর করে এবং বলে তোর ভিডিও করে রাখছি। এসময় অকথ্য ভাষায় গালাগালি করা হয়।
রবিবার (১৫ মার্চ) দুপুরে জামিনে মুক্ত হন আরিফ। এরপর তাকে নিয়ে যাওয়া হয় কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে।
হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে ঘটনার বর্ণনা করেন আরিফুল। বলেন, ‘শুক্রবার (১৩ মার্চ) রাত ১২টার পর খেয়ে শুয়ে পড়ি। তখন একজন বাড়ির দরজায় ধাক্কা দেন। পরিচয় জানতে চাইলে কেউ পরিচয় জানাননি। পরে আমি সদর থানার ওসিকে ফোন দেই। ফোন দেওয়ার কথা শুনে বাইরে থাকা আরডিসি (সিনিয়র সহকারী কমিশনার-রাজস্ব) নাজিম উদ্দিনের নেতৃত্বাধীন লোকজন দরজা ভেঙে বাসায় ঢোকে। ঘরে ঢুকেই আরডিসি নাজিম উদ্দিন আমার মাথায় কিল-ঘুষি মারতে শুরু করেন। মারতে মারতে আমাকে টেনে হিঁচড়ে গাড়িতে তুলে চোখ-হাত-পা বেঁধে ফেলা হয়। এরপর আমাকে অজ্ঞাত স্থানে নিয়ে এনকাউন্টার দিতে চায়। আমাকে বারবার বলে, তুই কলেমা পড়ে ফেল, তোকে এনকাউন্টার দেওয়া হবে। তোকে গুলি করে মেরে ফেলব।’


Posted ৬:৩৮ অপরাহ্ণ | রবিবার, ১৫ মার্চ ২০২০

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

Archive Calendar

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১  
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি) মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।
বার্তা ও সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭।

হেল্প লাইনঃ ০১৭১২১৭০৭৭১

E-mail: [email protected] | [email protected]