• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    কাশিয়ানীতে ইউপি সদস্যকে শারীরিক ভাবে লাঞ্চিত করলো চেয়ারম্যানের ভাই

    কাশিয়ানী (গোপালগঞ্জ) প্রতিনিধি: | ০৭ জানুয়ারি ২০১৯ | ৩:০৮ অপরাহ্ণ

    কাশিয়ানীতে ইউপি সদস্যকে শারীরিক ভাবে লাঞ্চিত করলো চেয়ারম্যানের ভাই

    গোপালগঞ্জ জেলার কাশিয়ানীতে জমি দখলের প্রতিবাদ করাতে এক ইউপি সদস্যকে শারিরীক ভাবে লাঞ্চিত করেছে চেয়ারম্যানের ভাই। লঞ্ছিত করার প্রতিবাদ সোমবার চেয়ারম্যানের পদত্যাগের দাবীতে বিক্ষোভ করেছে ইউপি সদস্যরা এবং এলাকাবাসী।
    এলাকাবাসী সূত্রে জানাগেছে,কাশিয়ানী উপজেলার পারুলিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ মকিমুল ইসলাম মকিমের ভাই মোঃ মিলন পারুলিয়া ইউনিয়নের লক্ষীপুর গ্রামের সংখ্যালগু বিজয় কৃষ্ণ মৃধা ও গোপাল চন্দ্র মৃধার ভোগদখলীয় সম্পত্তিতে তিতাগগ্রামের মনা মিয়ার ছেলে কামাল হত্যাকান্ড মামলার মুল আসামী মাদক ব্যাবসায়ী মোঃ চানঁ মিয়া চাঁনুকে বাড়ি করে দিতে ভেকু দিয়ে মাটি কাটে।
    পারুলিয়া ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের মেম্বর সাধন কুমার এতে বাঁধ সাজে এবং মিলনকে বলেন,তার বিরুদ্ধে হত্যাকান্ড ও মাদক ব্যবসার অভিযোগ রয়েছে। আমার এলাকায় অধিকাংশ হিন্দু সম্প্রদায়ে লোকজনের বসবাস। একটি শান্তিপূর্ণ জায়গা সেখানে চানুর মত একজন খারাপ লোক বাড়ি করলে এলাকা মাদকে ছেয়ে যাবে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে চেয়ারম্যানের ভাই মোঃ মিলন ৭ নং ওর্য়াডের মেম্বর সাধন কুমারকে গত রবিবার বিকালে সাজাইল বাজারে শ,শ, লোকজনের মধ্যে ফিল্মি স্টাইলে মারধর করে। সাধন কুমার মেম্বরকে মারধর ও শারিরীক ভাবে লাঞ্ছিত করার প্রতিবাদে সোমবার ওই জমির এলাকায় (লক্ষিপুর গ্রামে) সকালে পারুলিয়া ইউনিয়নের ১২ ইউ.পি সদস্য ও কুমারীয়া, লক্ষীপুর, কেষ্টপুর পারুলিয়া,সোনাডাঙ্গা গ্রামের শ’শ লোক চেয়ারম্যান মোঃ মকিমুল ইসলাম মকিমের পদত্যাগের দাবীতে মিছিল ও সমাবেশ করে। সেই সাথে শ’শ লোকজন একত্রিত হয়ে আবার সেই কাটা মাটি ভরাট করে। এ ব্যাপারে জমির মালিক বিজয় কৃষ্ণ মৃধা ও গোপাল চন্দ্র মৃধা বলেন, আমাদের পৈত্রিক সম্পত্তি তবে বর্তমানে সরকারি হয়ে গেছে। তবে চেয়ারম্যার মোঃ মকিমুল ইসলাম মকিমের ভাই মোঃ মিলন জোর করে আমাদের ভোগ দখলীয় সম্পত্তিতে মাদক ব্যাবসায়ী মোঃ চাঁন মিয়া চাঁনুকে জোর করে বাড়ি করে দিচ্ছে।
    এ ব্যাপারে পারুলিয়া ইউনিয়নের মেম্বর সাধন কুমার জানায়,আমি শুধু বলেছি চানু একজন নাম করা ব্যাবসায়ী কাশিয়ানী থানায় তার বিরুদ্ধে বেশ কয়েকটি মাদক মামলা রয়েছে তাকে আমার এলাকা বাড়ি করে দিও না তাতে আমার এলাকায় মাদক ছড়িয়ে যাবে। আর সে কারনে আমাকে সাজাইল বাজারে প্রকাশ্য দিবালোকে মারধর করে। তার বিরুদ্ধে এলাকাবাসীর প্রতিবাদ করছে। মিলনের বিরুদ্ধে এলাকায় অনেক ধরনের অভিযোগ রয়েছে।
    চেয়ারম্যান মোঃ মকিমুল ইসলাম মকিম মোবাইল ফোনে এ প্রতিবেদককে বলেন, আমার এসব ব্যাপারে কোন প্রকার সংশ্লিষ্টতা নেই। তবে ঘটনাটি আমি শুনেছি।


    Facebook Comments


    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4673