• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    কাশিয়ানীতে গো-খাদ্য সংকট; বিপাকে খামারিরা

    নিজস্ব প্রতিবেদক | ০৭ আগস্ট ২০২০ | ২:০৭ অপরাহ্ণ

    কাশিয়ানীতে গো-খাদ্য সংকট; বিপাকে খামারিরা

    মধুমতি নদী ও বিল রুট ক্যানেলের পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলার নতুন নতুন এলাকা বন্যায় প্লাবিত হচ্ছে। এসব বন্যাদুর্গত এলাকায় দেখা দিয়েছে মারাত্মক গো-খাদ্য সংকট। বন্যায় নষ্ট হয়ে গেছে কৃষকের সংগৃহীত খড়। পানিতে ডুবে গেছে মাঠ-ঘাট, গো-চারণভূমি, ফসলি জমি ও চাষকৃত ঘাসের ক্ষেত। ফলে এ সংকট দেখা দিয়েছে। খাদ্যের দামও বেড়ে গেছে প্রায় দ্বিগুণ।


    কাশিয়ানী পূর্বপাড়া এলাকার খামারি শহিদুল আলম মুন্না জানান, বন্যায় পশু খাদ্যের মারাত্মক সংকট দেখা দিয়েছে। বন্যার আগে এক কাহন (১২৮ আটি) খড়ের দাম ছিল ১৮শ’ থেকে ২ হাজার টাকা। যা এখন কিনতে হচ্ছে ৪৫শ’ থেকে ৫ হাজার টাকায়। খৈ-কুঁড়া, ভুষির দামও বেড়েছে অস্বাভাবিক।


    উপজেলার হুগলাকান্দী গ্রামের খামারি গিয়াস উদ্দিন গালিব বলেন, ‘বন্যা মরার উপর খাঁড়ার ঘা হয়ে দেখা দিয়েছে। করোনার সংকট কাটতে না কাটতে দেখা দিয়েছে বন্যা। বন্যায় আমার ১৩ বিঘা জমির রোপন করা ঘাস তলিয়ে গেছে। কয়েকদিন ধরে কৃষকের দ্বারে দ্বারে ঘুরেও মেলাতে পারছি না খড়। গরুর খাবার জোগাড় করতে প্রতিনিয়ত সংগ্রাম করতে হচ্ছে।’

    রাজপাট গ্রামের কৃষক সালাম মোল্লা বলেন, ‘নিজেরা কোনমতে দুইবেলা খাবার পাইলেও গরুর জন্য খাবার জোগাড় করতে পারছি না। চারদিক পানিতে তলিয়ে গেছে। কোথায় ঘাস-কুটো নাই। গরু নিয়ে খুব চিন্তায় আছি।’

    কাশিয়ানী উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা মানবেন্দ্র মজুমদার বলেন, ‘মাঠ-ঘাট, গো-চারণভূমি ও আবাদকৃত ঘাস তলিয়ে যাওয়ায় গো-খাদ্যের সংকট দেখা দিয়েছে। এতে খড় ও দানাদার খাদ্যের ওপর নির্ভর করতে হচ্ছে খামারিদের। আমরা গো-খাদ্য সংকট মোকাবিলায় খামারিদের বিভিন্ন পরামর্শ দিয়ে যাচ্ছি।’

    Facebook Comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    webnewsdesign.com

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4669