• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    গত তিন মাসে পদ্মা সেতুতে বসেনি কোনও স্প্যান

    ডেস্ক | ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ১০:৩১ পূর্বাহ্ণ

    গত তিন মাসে পদ্মা সেতুতে বসেনি কোনও স্প্যান

    গত তিন মাসে পদ্মা সেতুতে কোনও স্প্যান বসেনি। চলতি বছরের ২৯ জুন সর্বশেষ ১৪ নম্বর স্প্যান বসানো হয়। ২০১৭ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর বসানো হয় সেতুর প্রথম স্প্যান। সেতুর ৪২ পিয়ারের ওপর স্প্যান বসানো হবে ৪১টি। সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, পদ্মা নদীতে তীব্র স্রোতের কারণে স্প্যান বসানোর কাজ করতে পারছে না প্রকৌশলী ও শ্রমিকরা। স্রোত কমলে স্প্যান বসানোর কাজ আবার শুরু হবে।


    পদ্মা সেতু সংশ্লিষ্ট প্রকৌশল সূত্রে জানা গেছে, মাওয়া কন্সট্রাকশন ইয়ার্ড থেকে ‘তিয়ান ই’ ভাসমান ক্রেন স্প্যান বহন করে নিয়ে আসে সেতু এলাকায়। পরে পিলারের ওপর বসানো হয়। নদীতে তীব্র স্রোত থাকায় ক্রেনের সামনে এগিয়ে যাওয়া এবং স্প্যান বসানোর কাজ করা যাচ্ছে না। তাই আপাতত স্প্যান বসানোর কাজ বন্ধ রয়েছে। তবে সেতুর অন্য কাজ চলছে।


    পদ্মা সেতুতে দুই ধরনের স্প্যান বসবে। নদীর মধ্যে থাকা ৪২টি পিলারের ওপর ৪১টি স্প্যান (সুপার স্ট্রাকচার) থাকবে স্টিলের। নদীর দুই পাড়ে থাকা ভায়াডাক্টের ওপর সাতটি করে ১৪টি রেলওয়ে স্প্যান থাকবে। এছাড়া জাজিরা প্রান্তে ২৩৪টি সুপার-টি গার্ডার ও মাওয়া প্রান্তে ২০৪টি সুপার-টি গার্ডার মিলিয়ে মোট ৪৩৮টি সুপার-টি গার্ডার বসবে। এতে মোট রোডওয়ে স্প্যান হবে ৮৩টি। এ পর্যন্ত স্টিলের স্প্যান বা সুপার স্ট্রাকচার বসানো হয়েছে ১৪টি।

    আর রেলওয়ে গার্ডারের স্প্যান বসেছে সাতটি। তবে রোডওয়ে সুপার-টি গার্ডারের কোনও স্প্যান এখনও বসানো হয়নি। কাজ চলছে।

    এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে পদ্মাসেতু প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক প্রকৌশলী শফিকুল ইসলাম বলেছেন, ‘বিষয়টি অত্যন্ত টেকনিক্যাল। নদীর তলদেশে মাটির স্তরের গঠন নিয়ে জটিলতা কাটিয়ে বর্ষায় নদীর প্রবল স্রোতকে উপেক্ষা করে চলছে এ নির্মাণযজ্ঞ। এসব প্রতিকূলতা জয় করে মূল সেতুর পাইলিংয়ের কাজ চলছে পদ্মার দুই তীরে।’

    তিনি আরও বলেন, পদ্মা সেতুর রঙ হবে সোনালী। তবে রাতে সেতুটিতে জ্বলবে বাংলাদেশের জাতীয় পতাকার আদলে লাল ও সবুজ বাতি। সেভাবেই সেট করা হবে বাতি। পদ্মা নদীর পানির স্তর থেকে ৫০ ফুট উচুতে বসানো হচ্ছে প্রতিটি স্প্যান।

    পদ্মা সেতুর অগ্রগতি প্রসঙ্গে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আসলে কোনও কাজ থেমে নাই। দিনরাত সেতুর কাজ চলছে। আশা করছি ২০২১ সালের জুনের আগেই পদ্মা সেতু যান চলাচলের খুলে দেওয়া সম্ভব হবে।’

    সেতু বিভাগের সচিব আনোয়ারুল ইসলাম জানিয়েছেন, চলতি বছরের ২৮ আগস্ট পর্যন্ত সেতুর মোট প্রকল্পের অগ্রগতি হয়েছে ৭৩ শতাংশ। মূল সেতুর বাস্তব কাজের অগ্রগতি হয়েছে ৮৩ শতাংশ এবং আর্থিক অগ্রগতি হয়েছে ৭২ শতাংশ। মূল সেতুর সবক’টি পাইল ড্রাইভিংয়ের কাজ শেষ হয়েছে। সংযোগ সড়কের কাজ ১০০ শতাংশই শেষ হয়েছে। ১৪ কিলোমিটার নদীশাসন কাজের মধ্যে ৬.৬০ কিলোমিটার নদী শাসনের কাজ সম্পন্ন হয়েছে। মূল সেতুর ৪২টি পিয়ারের মধ্যে ৩১টি পিয়ারের কাজ শেষ হয়েছে। বাকি ১১টি পিয়ারের কাজ চলছে। ডিসেম্বরের মধ্যে কাজ শেষ হবে। সেতুর মাওয়া সাইটে এ পর্যন্ত ট্রাস এসেছে ২৭টি। যার মধ্যে ১৪টি স্থাপন করা হয়েছে। মাওয়া ও জাজিরা পয়েন্টে ভায়েডাক্টের পাইলিং ও পিলারের কাজ শেষ হয়েছে। বর্তমানে পিয়ার ক্যাপের কাজ শেষ পর্যায়ে এবং গার্ডার স্থাপনের কাজ চলছে।

    সূত্র আরও জানিয়েছে, রোডওয়ে স্লাবের জন্য মোট ২ হাজার ৯১৭টি প্রি-কাস্ট স্লাবের প্রয়োজন হবে। এর মধ্যে ২ হাজার ৭৫৪টি স্লাব তৈরির কাজ শেষ হয়েছে। বাকি স্লাব তৈরির কাজ চলছে। মূল সেতু কাজের চুক্তিমূল্য ১২ হাজার ১৩৩ কোটি টাকার মধ্যে এ পর্যন্ত ব্যয় হয়েছে ৮ হাজার ৭৩২ কোটি টাকা। অপরদিকে নদী শাসন কাজের চুক্তি মূল্য ৮ হাজার ৭০৭ কোটি টাকার মধ্যে এ পর্যন্ত ব্যয় হয়েছে ৪ হাজার ১৮৪ কোটি টাকা।

    ‘আমাজনকে পৃথিবীর ফুসফুস মনে করা ভুল’
    আমাজন ব্রাজিলের সার্বভৌম অংশ বলে মন্তব্য করেছেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জাইর বোলসোনারো। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে দেয়া বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।
    এছাড়া, আমাজন রেইনফরেস্ট’কে মানবজাতির ঐতিহ্য ও পৃথিবীর ফুসফুস হিসেবে বিবেচনা করা’কে ভুল ধারণা বলেও আখ্যা দিয়েছেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট।

    আমাজনের দাবানল নিয়ন্ত্রণে তার দেশ ব্যর্থ, আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের প্রকাশিত এমন প্রতিবেদনকে উত্তেজনাপূর্ণ বলে অভিযোগ করেন জাইর বোলসোনারো। সহায়তার পরিবর্তে কিছু দেশ আমাজনের দাবানল নিয়ে অসম্মাজনক আচরণ করছে বলেও অভিযোগ তার।

    সম্প্রতি আমাজনের সক্রিয় হাজারো দাবানল নিয়ন্ত্রণ এবং এর ফলে ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকদের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ না করায় বোলসোনারো সরকারের উদাসীনতাকে দায়ী করে পরিবেশবাদীরা।

    Facebook Comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩
    ১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
    ২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
    ২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4673