• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    গাজীপুরের ১টি পোশাক কারখানায় ভূত আতঙ্ক, ‘ভূত’ তাড়াতে মিলাদ

    অগ্রবাণী ডেস্ক | ০৭ আগস্ট ২০১৭ | ৯:১৭ পূর্বাহ্ণ

    গাজীপুরের ১টি পোশাক কারখানায় ভূত আতঙ্ক, ‘ভূত’ তাড়াতে মিলাদ

    গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলায় একটি পোশাক কারখানার শ্রমিকদের মধ্যে ভূত আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। ‘ভূত’ তাড়াতে শ্রমিকদের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে আজ রোববার দিনভর নানা ঝাড় ফুঁক, কোরআন শরিফ তেলাওয়াত ও মিলাদের আয়োজন করে কারখানা কর্তৃপক্ষ।


    পুলিশ, এলাকাবাসী ও কারখানার শ্রমিকরা জানায়, শ্রীপুর পৌরসভার বহেরারচালা-কড়ইতলা এলাকার টি-ডিজাইন নিটওয়্যার লিমিটেডে কয়েকদিন ধরে শ্রমিকদের মধ্যে ভূত আতঙ্ক দেখা দেয়। গতকাল শনিবার দুপুর ১২টার দিকে সোহেল (৩৮) নামের এক সুপারভাইজার কারখানা ভবনের চারতলার শৌচাগারে যান। দীর্ঘ সময়েও শৌচাগার থেকে বের না হওয়ায় সহকর্মীরা তাঁকে ডাকাডাকি ও দরজায় ধাক্কাধাক্কি করেন। তাতেও তাঁর সাড়া না পাওয়ায় প্রায় আধাঘণ্টা পর এক শ্রমিক ওপর দিয়ে শৌচাগারে প্রবেশ করে সোহেলকে অচেতন অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন। এ সময় সেখানে ওই শ্রমিকও অচেতন হয়ে পড়েন। প্রায় একই সময়ে ওই তলার অপর এক নারী শ্রমিক শৌচাগারে গিয়ে অচেতন হয়ে পড়েন।

    ajkerograbani.com

    শৌচাগারে গিয়ে শ্রমিকরা অচেতন হয়ে পড়ছেন এমন খবর মুহূর্তে কারখানার বিভিন্ন ফ্লোরে ছড়িয়ে পড়ে। এতে শ্রমিকদের মধ্যে ভূত আতঙ্ক দেখা দেয়। কারখানার শৌচাগারে যাওয়া শ্রমিকদের ওপর আক্রমণ চালিয়ে ‘ভূত’ শ্রমিকদের ঘাড় মটকে দিচ্ছে, ভয় দেখাচ্ছে, শ্রমিকদের ওপর আছর করছে… এমন নানা গুজব ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় শ্রমিকরা কারখানায় চিৎকার শুরু করেন। অনেকে কাজ ফেলে কারখানা থেকে বেরিয়ে যান। অনেকে এ কারখানায় কাজ করতে অস্বীকার করেন। এতে কারখানা কর্তৃপক্ষ গতকাল শনিবারের জন্য কারখানা ছুটি ঘোষণা করে। একপর্যায়ে শ্রমিকদের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে কারখানা থেকে ‘ভূত’ তাড়ানোর জন্য আজ দিনভর কারখানায় ঝাড় ফুঁক, পবিত্র কোরআন শরিফ তিলাওয়াত ও মিলাদের আয়োজন করে কর্তৃপক্ষ।

    বিভিন্ন কবিরাজ ও হুজুর ডেকে কারখানায় ঝাড় ফুঁক করায় এবং ভূত-প্রেত যাতে কারখানায় প্রবেশ করতে না পারে এবং শ্রমিক-কর্মচারীদের কোনো ক্ষতি করতে না পারে সেজন্য বেষ্টনী দিয়ে কারখানার চারদিকে তাবিজ পোঁতা হয়। এতে শ্রমিকদের মধ্যে আতঙ্ক কমে।

    এ ব্যাপারে শ্রীপুর মুক্তিযোদ্ধা রহমত আলী কলেজের রসায়ন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আবুল কালাম আজাদ বলেন, ‘কারখানার টয়লেটে ভূতের উপস্থিতির ঘটনাটি হাস্যকর। গরমের কারণে বা শ্রমিকদের অপুষ্টি বা শারীরিক অসুস্থতার কারণে শ্রমিকদের জ্ঞান হারানোর ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা রয়েছে। এ ছাড়া কারখানার সেপটিক ট্যাংকে অতিরিক্ত ক্লোরিন এবং মিথেন গ্যাসের উপস্থিতি মানুষকে অচেতন করে দিতে পারে।’

    এ ব্যাপারে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) ডা. হুজ্জাতুল ইসলাম পলাশ বলেন, ‘মাস হিস্ট্রির কারণে শ্রমিকদের মধ্যে অজ্ঞান হওয়ার প্রভাব থাকতে পারে। এটি বিশেষ করে নারীদের ক্ষেত্রেই বেশি হয়।’

    নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক পুলিশের এক কর্মকর্তা জানান, কারখানার এত শ্রমিকদের মধ্যে দুই-চারজন শ্রমিক অসুস্থ হওয়া অস্বাভাবিক নয়। শারীরিক অসুস্থতা বা প্রচণ্ড গরমের কারণে ওই শ্রমিকরা অসুস্থ হয়ে থাকতে পারে। অথবা কারখানার কাজে ফাঁকি দেওয়ার জন্য শ্রমিকরা ইচ্ছাকৃতভাবে অচেতন হওয়ার ঘটনাটি সাজিয়ে থাকতে পারে।

    এ ব্যাপারে টি-ডিজাইন নিটওয়্যার লিমিটেড কারখানার পরিচালক তারিকুল ইসলাম বলেন, ‘যে সব শ্রমিক আতঙ্কিত এবং জ্ঞান হারিয়ে ফেলেছিলেন তাঁরা শারীরিকভাবে অপুষ্টির শিকার। তাঁদের কারখানার তত্ত্বাবধানে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। তবে কারখানায় ভূতের কোনো উপস্থিতি নেই।’

    কারখানার মহাব্যবস্থাপক কর্নেল (অব.) মীর সাইদুর রেজা বলেন, ‘শ্রমিকদের আবেদনের ভিত্তিতে আজ সকাল থেকে ১০ জন কোরআনে হাফেজকে দিয়ে কোরআন খতম করানো হয়েছে। টয়লেটগুলো নিয়মিত পরিষ্কারের পাশাপাশি নতুন করে আবারও পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করানো হয়েছে।’

    Facebook Comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২
    ১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
    ২০২১২২২৩২৪২৫২৬
    ২৭২৮  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4755