• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    গোপালগঞ্জের বশেমুরবিপ্রবির এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে আরেক শিক্ষকের উকিল নোটিশ

    | ০৭ মে ২০২১ | ২:৪৯ অপরাহ্ণ

    গোপালগঞ্জের বশেমুরবিপ্রবির এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে আরেক শিক্ষকের উকিল নোটিশ

    ফেসবুক পোস্টে মন্তব্য করায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) অর্থনীতি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক গাজী মোহাম্মদ মাহাবুবকে উকিল নোটিশ পাঠিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ডিন ও সাবেক রুটিন উপাচার্য ড. মো. শাহজাহান।


    বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের প্রাইভেট ফেসবুক গ্রুপে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সাদ্দাম হোসেনের একটি পোস্টে অন্যান্য অনেক শিক্ষকের মতোই কমেন্ট করেন অর্থনীতি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক গাজী মোহাম্মদ মাহবুব।

    ajkerograbani.com

    জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের ক্লোজ গ্রুপটিতে বিশ্ববিদ্যালয়-সংক্রান্ত আলোচনা ও মন্তব্য করার জন্য বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক প্রতিনিধি এই গ্রুপের পরিচালনা করেন। কোভিড-১৯ মহামারিতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে তথ্য আদান-প্রদানের লক্ষ্যে গ্রুপটি সক্রিয় ভূমিকা পালন করে আসছে। এই রকম একটি আলোচনার অংশ হিসেবে অনলাইন ক্লাসে অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বশেমুরবিপ্রবির পিছিয়ে যাওয়া ও আপগ্রেডেশন বোর্ডে শর্তারোপসহ বিভিন্ন অনিয়ম বিষয়ে লেখা হয়। এরই অংশ হিসেবে ডিন’স কমিটির মেম্বারদের অনলাইন প্রশিক্ষণ নিয়ে মন্তব্য করেন অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষক সহকারী অধ্যাপক গাজী মাহাবুব। তিনি পরোক্ষভাবে ডিনদের কাজের সীমাবদ্ধতা ও জবাবদিহি প্রসঙ্গে উল্লেখ করেছেন যা বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার পরিবেশ তৈরি করতে সহায়ক।

    পরবর্তীতে ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ডিন ও সাবেক রুটিন উপাচার্য ড. মো. শাহজাহান অর্থনীতি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক গাজী মোহাম্মদ মাহবুবের বিরুদ্ধে উকিল নোটিশ পাঠান এবং সন্তোষজনক উত্তর না পেলে ডিজিটাল আইনে মামলার হুঁশিয়ারি দেন।

    এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের শতাধিক শিক্ষক চরম ক্ষোভ প্রকাশ করেন। সাধারণ শিক্ষক এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষকদের প্রতিনিধি সদস্যরা মনে করেন, যে শিক্ষার্থীরা অনলাইন ক্লাসে আশানুরূপ ফল পাচ্ছেন না। এই মহামারি কালীন সময়ে শিক্ষকদের সঙ্গে শিক্ষার্থীদের পাঠদান এবং কাউন্সেলিংয়ের প্রয়োজন। বাংলাদেশসহ পৃথিবীর সব বিশ্ববিদ্যালয় অনলাইন পদ্ধতি ব্যবহার করে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে কার্যকলাপ অব্যাহত রেখেছে। এ বিষয়ে বশেমুরবিপ্রবি অনেক পিছিয়ে এবং অগ্রায়নের কোনো উদ্যোগ চোখে পড়ে না। এক্ষেত্রে ডিনস কমিটির ভূমিকা অপরিহার্য। এখন এমন আইনি নোটিশ এলে শিক্ষার্থীদের এ বিষয়েও আমাদের কথা বলার পথ বন্ধ করা হবে।

    শিক্ষকের বিরুদ্ধে শিক্ষকের উকিল নোটিশ এবং মামলার হুমকিতে সবাই হতাশা প্রকাশ করেছেন এবং ক্ষুব্ধ হয়েছেন। এতে করে কেবল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাবমূর্তি খারাপ করবে বলে মন্তব্য করেন অনেক শিক্ষক। অর্থনীতি বিভাগসহ অন্যান্য বিভাগের শিক্ষার্থীরাও বিষয়টিতে ক্ষোভ প্রকাশ করে মন্তব্য করেন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে।

    উকিল নোটিশ পাওয়া শিক্ষক অর্থনীতি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক গাজী মোহাম্মদ মাহাবুব বলেন, ‘শিক্ষকদের প্রাইভেট গ্রুপে মূলত শিক্ষকদের সুখ, দুঃখ, রিসার্চ বিষয়ে মতামত দেওয়া হয় সেখানে একটি পোস্টে কমেন্টের কারণে উকিল নোটিশ পাঠানো নজিরবিহীন ঘটনা, যা আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রথমবার ঘটল।’

    এ বিষয়ে জানতে চেয়ে ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ডিন ড. মো. শাহজাহানকে একাধিকবার কল করেও পাওয়া যায়নি।

    Facebook Comments Box

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4757