• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    গোপালগঞ্জে দোকান ঘর ও জমি দখলের জন্য হামলায় কলেজ ছাত্রী আহত

    নিজস্ব প্রতিনিধি, গোপালগঞ্জ : | ০৬ জুলাই ২০১৮ | ৪:২৫ অপরাহ্ণ

    গোপালগঞ্জে দোকান ঘর ও জমি দখলের জন্য হামলায় কলেজ ছাত্রী আহত

    গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার সাতপাড় পশ্চিম পাড়ার গান্ধিয়াশুর বাজারে দোকান ঘর ও জমি দখলের জন্য সন্ত্রাসী হামলায় আহত হয়েছে এক কলেজ ছাত্রী। শুক্রবার সকাল সাড়ে ৮ টায় জোর পূর্বক দোকান ঘর দখলের জন্য এ হামলা করে সন্ত্রাসীরা। সন্ত্রাসী হামলায় আহত টিয়া বালা সরকারী বঙ্গবন্ধু কলেজের অনার্স বাংলা বিভাগের ৩য় বর্ষের ছাত্রী।
    প্রত্যক্ষ দর্শী ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, সাতপাড় পশ্চিমপাড়া বাবু কীর্ত্তনীয়ার পৈত্রিক জমি তার জামাতা মনোরঞ্জন বালার ছেলে মিন্টু বালাকে দোকান ঘর করার চুক্তিপত্র দেয়। সেই চুক্তিপত্র পাওয়ার পরে সেখানে মিন্টু বালা দোকান ঘর করে ব্যাবসা করে আসছে। সাতপাড় পশ্চিমপাড়া নকুল ভক্ত স্ত্রী স্মৃতি ভক্ত তার কথিত প্রেমিকের সূত্রে এই দোকান ঘর দাবী করে আসছে।
    আহত টিয়া বালা বলেন, শুক্রবার সকালে আমি বাসার সামনে দাড়িয়ে ছিলাম। কিছু সময় পরে দেখি স্মৃতি ভক্ত দোকান ঘর মেরামত করার জন্য লোকজন নিয়ে আসে। এ সময় তপন কির্ত্তণীয়া হুকুমে স্মৃতি ভক্ত তার সন্ত্রাসী বাহিনী দিয়ে আমাকে মারপিট শুরু করে। তার সাথে জগদিশ বালার ছেলে বিবেক বালা, বিবেক বালার ছেলে চয়ন বালা, বিবেক বালার স্ত্রী লতিকা বালা, মনোবালা, সুজিৎ মৃধা, সঞ্জয় কির্ত্তনীয়া সহ ১৫ থেকে ১৭ জনের মত আসে। এ সময় তারা এলোপাথারী ভাবে আমাকে মারতে শুরু করে। তখন আমার চিৎকার শুনে আমার পরিবার ও বাজারের লোকজন এসে আমাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে।
    এ ব্যাপারে বৌলতলী তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ তদন্ত সাজিদুর রহমান বলেন, আমরা খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদেরকে সরিয়ে দেই। বৌলতলী ইউপি চেয়ারম্যান ও সাতপাড় ইউপি চেয়ারম্যান বিষয়টি মিমাংসা করার জন্য দায়ীত্ব নেন।


    Facebook Comments


    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫
    ১৬১৭১৮১৯২০২১২২
    ২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
    ৩০৩১  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4673