সোমবার, মার্চ ২, ২০২০

চতুর্থ বিয়েতে পরিবারের অসম্মতি, ময়মনসিংহে যুবকের আত্মহত্যা

  |   সোমবার, ০২ মার্চ ২০২০ | প্রিন্ট  

চতুর্থ বিয়েতে পরিবারের অসম্মতি, ময়মনসিংহে যুবকের আত্মহত্যা

ময়মনসিংহে চতুর্থ বিয়ে দিতে রাজি না হওয়ায় মায়ের সঙ্গে অভিমান করে নাঈম (২২) নামে এক তরুণ নেশা জাতীয় ইঞ্জেকশন নেয়। এরপর পরই গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। গফরগাঁও উপজেলার বারবাড়িয়া ইউনিয়নের পাকাটি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পরে তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর মারা যান তিনি। মরদেহ ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার বারবাড়িয়া গ্রামের জুলেন মিয়ার ছেলে রিকশাচালক নাঈম আগেও তিনটি বিয়ে করেছেন। একজন স্ত্রী তার সঙ্গেই থাকেন। বেশ কিছুদিন ধরে নাঈম পরিবারের কাছে তার চতুর্থ বিয়ের ইচ্ছার কথা জানান। এ নিয়ে মায়ের সঙ্গে নাঈমের বাক-বিতণ্ডা হয়। এতে অভিমান করে নাঈম একসঙ্গে নেশাজাতীয় তিনটি ইঞ্জেকশন নিলে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন। প্রতিবেশীরা নাঈমকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে অবস্থার অবনতি হয়। পরে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর তিনি মারা যান। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ নাঈমের লাশ হাসপাতাল মর্গে রেখেছেন।
অনেকেই বলছেন, তিনি আত্মহত্যা করতেই ইঞ্জেকশনগুলো নেন। গফরগাঁও থানার অফিসার ইনচার্জ অনুকুল সরকার বলেন, যেহেতু ময়মনসিংহে মারা গেছে তাই কোতোয়ালি পুলিশ আইনগত পদক্ষেপ নেবে। এ ব্যাপারে আমাদের কাছে কেউ কোনো লিখিত অভিযোগ করেননি।


Posted ৮:৪০ অপরাহ্ণ | সোমবার, ০২ মার্চ ২০২০

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

Archive Calendar

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১  
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি) মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।
বার্তা ও সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭।

হেল্প লাইনঃ ০১৭১২১৭০৭৭১

E-mail: [email protected] | [email protected]