বৃহস্পতিবার ২১শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৫ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

চতুর্থ বিয়েতে পরিবারের অসম্মতি, ময়মনসিংহে যুবকের আত্মহত্যা

  |   সোমবার, ০২ মার্চ ২০২০ | প্রিন্ট  

চতুর্থ বিয়েতে পরিবারের অসম্মতি, ময়মনসিংহে যুবকের আত্মহত্যা

ময়মনসিংহে চতুর্থ বিয়ে দিতে রাজি না হওয়ায় মায়ের সঙ্গে অভিমান করে নাঈম (২২) নামে এক তরুণ নেশা জাতীয় ইঞ্জেকশন নেয়। এরপর পরই গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। গফরগাঁও উপজেলার বারবাড়িয়া ইউনিয়নের পাকাটি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পরে তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর মারা যান তিনি। মরদেহ ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার বারবাড়িয়া গ্রামের জুলেন মিয়ার ছেলে রিকশাচালক নাঈম আগেও তিনটি বিয়ে করেছেন। একজন স্ত্রী তার সঙ্গেই থাকেন। বেশ কিছুদিন ধরে নাঈম পরিবারের কাছে তার চতুর্থ বিয়ের ইচ্ছার কথা জানান। এ নিয়ে মায়ের সঙ্গে নাঈমের বাক-বিতণ্ডা হয়। এতে অভিমান করে নাঈম একসঙ্গে নেশাজাতীয় তিনটি ইঞ্জেকশন নিলে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন। প্রতিবেশীরা নাঈমকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে অবস্থার অবনতি হয়। পরে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর তিনি মারা যান। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ নাঈমের লাশ হাসপাতাল মর্গে রেখেছেন।
অনেকেই বলছেন, তিনি আত্মহত্যা করতেই ইঞ্জেকশনগুলো নেন। গফরগাঁও থানার অফিসার ইনচার্জ অনুকুল সরকার বলেন, যেহেতু ময়মনসিংহে মারা গেছে তাই কোতোয়ালি পুলিশ আইনগত পদক্ষেপ নেবে। এ ব্যাপারে আমাদের কাছে কেউ কোনো লিখিত অভিযোগ করেননি।

Facebook Comments Box


Posted ৮:৪০ অপরাহ্ণ | সোমবার, ০২ মার্চ ২০২০

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫
১৬১৭১৮১৯২০২১২২
২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
৩০৩১