• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    চামড়া ছিদ্র করে ঝুলে থাকাই তার শখ!

    অনলাইন ডেস্ক | ১২ মার্চ ২০১৭ | ৮:০৬ পূর্বাহ্ণ

    চামড়া ছিদ্র করে ঝুলে থাকাই তার শখ!

    শখের জিনিসগুলো করে মানুষ এক ধরনের শান্তি পায়। কিন্তু নিজেকে যন্ত্রণা দিয়ে শান্তি পাওয়ার কথা হয়তো আমরা কখনোই শুনিনি। কিন্তু এবার এমন এক নারীর খোঁজ পাওয়া গেছে যিনি চামড়া ছিদ্র করে শিকল বেঁধে বাদুড়ের মতো ঝুলে থাকতে পছন্দ করেন এবং এভাবে ঝুলে তিনি খুবই মজা পান। ২৪ বছর বয়সী ওই নারীর নাম সামান্থা চার্চিল। থাকেন যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগোতে। নিজের চামড়ায় পিন কাঁটা ঢুকিয়ে তাতে ঝুলে থাকার জন্য খুবই পরিচিত তিনি। এ অদ্ভুত কায়দায় ঝুলে থেকে তিনি এক ধরনের সুখ অনুভব করেন।
    সামান্থা চার্চিল এভাবে চামড়ায় ভর করে ঝুলে থাকাকে এক ধরনের আর্ট মনে করেন।
    জানা যায়, তার বয়স যখন মাত্র ১৩ বছর তখন থেকেই তিনি এ কাজ শুরু করেন। এখনো তা চালিয়ে যাচ্ছেন। এখন তার সঙ্গে আরো অনেকে যোগ দিয়েছেন। এভাবে শুধু শরীরের পাতলা চামড়ায় ভর দিয়ে ঝুলে থাকার মধ্যে একটা আর্ট আছে বলে মনে করেন তিনি। মানুষ মনে করে চামড়া হয়তো খুবই পাতলা। সেই পাতলা চামড়ায় ভর দিয়ে ঝুললে তা ছিঁড়ে যাবে। কিন্তু বাস্তবে তা হয় না। শরীরের পুরো ভর সামলে রাখে চামড়াগুলো। বুক ও পেট ছিদ্র করে লোহার পিন আঁটকেছেন সামান্থা। এভাবে শিকল বেঁধেও ব্যথার চেয়ে আনন্দ বেশি পান তিনি।
    সামান্থা ছোটবেলা থেকেই শরীর নিয়ে খেলা করা পছন্দ করতেন। কিন্তু এভাবে যে চামড়ায় শিকল বেঁধে ঝুলে থাকবেন তা কোনোদিনও ভাবেননি। টিভিতে একদিন এক কুস্তিগিরকে এভাবে ঝুলে থাকতে দেখে তার মাথায় ভূত চাপে তিনিও চামড়ায় ছিদ্র করে তার ওপর ভর করে শূন্য ঝুলে থাকবেন। আগে যা দেখলে গা শিহরে উঠত সামান্থা এখন দিনে তাই করেন ৩০-৩৫ বার। কিন্তু এতে চামড়া ছিঁড়ে না সামান্থার। কারণ মানুষের চামড়া খুবই শক্ত। সঠিক পদ্ধতিতে ঝুললে শরীরের পুরো ভর করে সামলে নিতে পারে। সামান্থা বলেন, ‘মানুষ আসলে জানে না তাদের চামড়া কতটা শক্তিশালী। সঠিক ঝোলানোর পদ্ধতি অবলম্বন করলে চামড়া ছিঁড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে না।’ আর এভাবে চামড়া ছিদ্র করে পিন ঢোকানোয় কোনো সমস্যা হয় কিনা জানতে চাইলে সামান্থা জানান, তিনি দীর্ঘদিন ধরে এ কাজ চালিয়ে আসছেন। তারপরও মাঝে মাঝে পিন কাঁটাগুলোতে ব্যথা করে। তবে ঝুলে থাকায় যে মজা পান, তার কাছে সেই ব্যথা কিছুই না। সামান্থা চার্চিল হাঁটুতে লোহার শিকল বেঁধেছেন। তিনি জানান, শিকল বাঁধার একটা কৌশল আছে। কৌশলটি না জানলে ইনফেকশন হতে পারে। আগে এমন রীতি তেমন একটা প্রচলন ছিল না। কিন্তু এখন অনেকে এভাবে চামড়ায় ভারসাম্য রক্ষা করে ঝুলে থাকার কৌশল আয়ত্ত করছেন। তারপরও বিষয়টিতে খুব সাবধানতা অবলম্বন করতে হয় বলে জানান সামান্থা। কারণ চামড়া ছিদ্র করার সময় খুব দক্ষতার পরিচয় দিতে হয়।


    Facebook Comments


    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    webnewsdesign.com

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    বিয়ে করাই তার নেশা!

    ২১ জুলাই ২০১৭

    কে এই নারী, তার বাবা কে?

    ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4669