• শিরোনাম

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    ছাত্রী অপহরণকারীকে করা হচ্ছে স্কুলের সভাপতি

    রামগঞ্জ সংবাদদাতা: | ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | ৮:৩৭ অপরাহ্ণ

    ছাত্রী অপহরণকারীকে করা হচ্ছে স্কুলের সভাপতি

    রামগঞ্জে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা কমিটি নিয়ে চলেছ টাকার বাণিজ্য। এর সাথে জড়িত সাবেক জাসদ নেত্রী বর্তমান উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শুরাইয়া ও তার স্বামী সাবেক জাসদ নেতা বর্তমান কৃষকলীগ নেতা আবুল কাশেম (দমা কাশেম)।

    রামগঞ্জ চন্ডীপুরে স্কুল ছাত্রী অপহরণকারী ননমেট্রিক এলাকার চিহ্নিত বখাটে, যাকে সবাই আলা উদ্দিন আলো নামে চেনেন (কাশেম মহুরির ছেলে)। গেল ২ বছর পূর্বে চন্ডীপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ ম শ্রেনির মেধাবী ছাত্রী তাছলিমা পিতা আব্দু ছাত্তার (আবুল কালাম চেয়ারম্যানের ছোট ভাই এর মেয়ে ) ১৪ কে দিনের বেলায়া স্কুল চলাকালিন সময়ে মাক্রো করে ৫-৬ জনের একটি গ্রুপ অশ্র দেখিয়ে উচ্চ ও প্রাথমিক বিদ্যালয়ের একহাজার ছাত্র ছাত্রীর ও শিক্ষকদের সামনে থেকে তুলে নিয়ে যায় বিষয়টি নিয়ে থানায় মামলা হয় ।


    তৎকালিন নুরুল ইসলাম চেয়ারম্যানের মধ্যস্থতায় তিনদিন পর তাকে ফিরিয়ে দেয় । সে মেয়ে লজ্জায় আর স্কুলে যেতে পারেনি । বাবা ৬ মাস মেয়েকে নিয়ে বাড়ির বাহিরে থেকে বোনের দেবরের কাছে তাকে বিবাহ দেয় । স্কুল শিক্ষকের সাথে বহুবার বেয়াদবী করে ও কোন বিচার হয়নি। কিছুদিন পূর্বে চন্ডিপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কমিটির মিটিং অনুষ্ঠিত হয়।

    মিটিংয়ে সাবেক সভাপতিকে উপস্থিত অভিভাবকরা পূনরয়ায় থাকার জন্য অনুরোধকরেন এবং প্রস্তাব সমর্থনের মাধ্যমে তাকে বিদ্যুৎসাহি হিসেবে মনোনিত করে মিটিং শেষ হয় । ১৫ দিন পর জানাযায় সাবেক সভাপতিকে ১ নাম্বর ( মাস্টার্স পাস) রামগঞ্জ উপেজলা আওয়ামী লীগের বর্তমান কমিটির গুরুত্বপূর্ন সম্পাদক পদে আছেন। ২ য় আলাউদ্দিন আলো ননমেট্রিক । ৩য় স্নাতক পাস ) (১ ও ৩ তাদের নাম প্রকাশ না করতে অনুধো করেছে)।

    এই সিরিয়াল বাদ দিয়ে উপজেলা মহিলা ভাস চেয়ারম্যান শুরাইয়া বেগম জোর পূর্বক প্রধান শিক্ষকের কাছ থেকে পরম নিয়ে ২ নাম্বার ছাত্রী অপহরন কারিকে বিদ্যুৎসাহী হিসেবে নামের উপরে স্থানিয় এমিপর সই করে আনে এবং পরদিন প্রধান শিক্ষকে চাপ প্রয়োগকরে কাউকে না জানিয়ে সভাপতি বানিয়ে পেলে । এই বিষয়টি যানাযানি হয়ে গেলে এলাকার অভিভাবকদের মধ্যে খোবের সৃষ্টি হয় । সাবেক সভাপতির সাথে এই বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে তিনি বিষয়টি নিয়ে প্রথমে কথা বলতে রাজি হয়নি । পরে বলেন এটি মূলত স্থানীয় এমপি মহোদয়ের এখতিয়ার, তিনি স্কুলের জন্য যাকে যোগ্যমনে করেছেন তাকেই বানাবেন । স্থানীয় এমপি মহোদয়ের সাথে এই বিষয়ে বিভিন্ন মাধ্যমে থেকে যোগাযোগকরলে তিনি বলেন অনেক সইয়ের ফাঁকে কেউ হয়ত উদ্দেশ্য প্রনোদিত ভাবে এটি সই করে নিয়েছে,তবে বিষয়টি আমি গুরুত্ব সহকারে দেখছি। বিষয়টি এখানে থেমে নেই এলাকার অভিভাবকরা এই বিষটি শুরাহ না হলে মানব বন্ধন সহ বিভিন্ন কর্মসূচি হাতে নিয়েছে । তাদের সন্তানদেরকে উক্ত স্কুল থেকে গনহারে নিয়ে যাওয়ারও হুমকি দিয়েছে। এই ছাড়াও এমপি মহোদয়কে ভূল বুঝিয়ে একটি গ্র্রুপ টাকার বিনিময়ে সারা রামগঞ্জে অফিস পিয়ন,গাড়ী ড্রাভার এলাকার মাদকামক্তদের বিদ্যুৎসাহী ও সভাপতি বানানোর হিড়িক পেলে দিয়েছে বলে চন্ডীপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান কামাল হোসেন জানান। অনেকের মন্তব্য স্থানিয় এমপিকে ও সরকারকে বির্তকিত করতে এমপির কাছের ( এরা সবসময় বিভিন্ন কৌশলে ক্ষমতার কাছে থাকে) চরম ভাবে শিক্ষাব্যবস্থানিয়ে জুয়া খেলছে । অন্যদিকে সরকার আইন করতে যাচ্ছে স্নাতক পাস ছাড়া সভাপতি করা যাবেনা । তবে রামগঞ্জের হিসেব উল্টোটা।

    Comments

    comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩
    ১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
    ২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
    ২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী