• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    জেনে নিন আকর্ষণীয় ঠোঁটের কিছু গোপন তথ্য

    অনলাইন ডেস্ক: | ১২ জুলাই ২০১৭ | ৫:২৫ অপরাহ্ণ

    জেনে নিন আকর্ষণীয় ঠোঁটের কিছু গোপন তথ্য

    ঠোঁট হবে আকর্ষণীয় এটাই সবার কাম্য। কিছু ঠোঁট শুষ্ক হয়ে যাওয়া, চামড়া ওঠা, ফাটাভাব ও কালচে হওয়া খুবই নিয়মিত সমস্যা। ঠোঁট মিউকার্স মেমব্রেন দ্বারা আবৃত। ঠোঁটের ত্বক খুবই নরম ও সেনসেটিভ। ঠোঁটে কোন তেল গ্রন্থি থাকে না। তাই বাইরের আবহাওয়া থেকে নিজেকে রক্ষা করা ঠোঁটের জন্য বেশ কঠিন। ঠাণ্ডা গরম, সূর্যরশ্মি, দুষণ সবই ঠোঁটের জন্য ক্ষতিকর। এছাড়া ঠোঁট কামড়ানো বা জিভ দিয়ে ঠোঁট বারবার ভিজানোও ক্ষতিকর।


    অপ্রয়োজনীয় প্রসাধন :
    অপ্রয়োজনীয় প্রসাধন ঠোঁটকে শুষ্ক করে তোলে। সাময়িক সৌন্দর্যের জন্য অপ্রয়োজনীয় প্রসাধন ব্যবহার করবেন না।

    ajkerograbani.com

    টুথপেস্ট :
    টুথপেস্ট আমাদের ঠোঁটের সংস্পর্শে আসে দু’বেলা। তাই যথাযথ টুথপেস্ট ব্যবহার না করলে ঠোঁটের ক্ষতি হতে পারে।

    লিপস্টিক :
    লিপস্টিকের কারণে ঠোঁটে এ্যালার্জি ও ঠোঁটের ক্ষতি হতে পারে, তাই আপনার ঠোঁটে যে কোম্পানির লিপস্টিক কোন প্রতিক্রিয়া করবে না, সেটাই ব্যবহার করুন। প্রয়োজনে নামী কোম্পানির লিপস্টিক ব্যবহার করা ভাল।

    লিপ বাম ও চ্যাপস্টিক :
    ফাটা ঠোঁটের জন্য লিপবাম ও চ্যাপস্টিক প্রয়োজন। এটা ঠোঁট কোমল ও মসৃণ করে। তবে অতি সুগন্ধিযুক্ত ও রসযুক্ত চ্যাপস্টিক ব্যবহার না করাই ভাল।

    সাবান :
    ঠোঁটের ত্বক সংবেদনশীল বলেই সাবান দেবেন না ঠোঁটে। চোখের চার পাশ এবং ঠোঁটে সাবান ব্যবহার করলে ক্ষতি হয়।

    ধূমপান :
    ধূপপান ঠোঁটের ত্বকের ক্ষতি করে ও কালচে ভাব আনে।

    ভিটামিন বিও ভিটামিনের অভাব :
    ভিটামিন বি এর অভাবে ঠোঁট ফেটে যেতে পারে ও ঠোঁটের কোণে ঘা হতে পারে। পুষ্টিকর খাবার খাওয়া প্রয়োজন।

    ত্বকের অসুখ :
    ত্বকের অসুখ যেমন একজিমা এ্যালার্জি ইত্যাদির কারণেও ঠোঁটের ৰতি হতে পারে। এতে চিকিৎসার প্রয়োজন।

    শুষ্ক ঠোঁটের যত্ন :
    ঠোঁট শুষ্ক হওয়ার আগেই তা প্রতিরোধের ব্যবস্থা নেয়া প্রয়োজন। ইমোলিয়েন্ট, পেট্রোলিয়াম জেলি, কোল্ডক্রিম ইত্যাদি ঠোঁটে ব্যবহার করা প্রয়োজন।
    যথাযথ লিপস্টিক ও কিন্তু ঠোঁটের শুষ্কতা প্রতিরোধ করে। তবে এ ক্ষেত্রে লিপস্টিকের উপাদান সম্পর্কে নিশ্চিত হতে হবে। ভিটামিন সমৃদ্ধ ও অয়েল বেসড লিপস্টিক ঠোঁটের জন্য ভাল। তবে লিপস্টিক ব্যবহারে ঠোঁটের ৰতি হলে সঙ্গে সঙ্গে তা ব্যবহার বন্ধ রাখুন। প্রয়োজনে টুথপেস্ট ব্যবহার করছেন তা বদলে ফেলুন। লক্ষ্য রাখবেন সাদা রঙের টুথপেস্ট সাধারণত ভাল হয় ঠোঁটের জন্য।

    এবার যা লক্ষ্যণীয় :

    সাবান ও ফেস ওয়াশ ঠোঁটে লাগাবেন না।

    সিগারেট খাওয়া থেকে বিরত থাকুন।

    পেট্রোলিয়াম জেলি বা ভেসলিন ব্যবহার করুন,যতক্ষণ বাড়িতে থাকবেন ঠোঁটে ভেসলিন লাগাবেন। এছাড়া সূর্যমুখী তেল ঠোঁটের জন্য খুব ভালো। এটা দিনে কয়েকবার ব্যবহার করতে পারেন। রাতে ভেসলিন লাগাতে ভুলবেন না।

    ঠোঁট বারবার জিভ দিয়ে ভেজাবেন না, বা ঠোঁট কামড়াবেন না।

    ঠোঁটের মেকআপ উঠাবার জন্য তুলোয় ভেসলিন লাগিয়ে আলতো ঘষে তুলবেন। কখনও লিপস্টিক লাগানো অবস্থায় ঘুমাতে যাবেন না।

    ভিটামিন, প্রচুর সবুজ শাকসবজি ও ফল খাবেন।

    বিশেষ সমস্যা হলে অবশ্যই ত্বক বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নেবেন।

    Facebook Comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২
    ১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
    ২০২১২২২৩২৪২৫২৬
    ২৭২৮  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4755