শনিবার ২৪শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ৯ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

টঙ্গীতে আনসার কমান্ডার মোঃ মতিউর উদ্যোগে জনসচেতনামূলক কার্যক্রম

টঙ্গী (গাজীপুর) প্রতিনিধি   |   রবিবার, ১৯ এপ্রিল ২০২০ | প্রিন্ট  

টঙ্গীতে আনসার কমান্ডার মোঃ মতিউর উদ্যোগে জনসচেতনামূলক কার্যক্রম

বর্তমান সময়ের বিশ্বে সবচেয়ে আলোচিত বিষয় করোনাভাইরাস। এই ভাইরাসের কারণে সারা বিশ্বের মানুষ আজ গৃহবন্দী। প্রতিদিনই সারাবিশ্ব থেকে নতুন করে রোগীদের আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংবাদ আসছে।
বাংলাদেশ সরকার গত ২৬শে মার্চ থেকে বাংলাদেশের সকল নাগরিকদের ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত বাসায় থাকার সাধারণ ছুটি ঘোষণা ও কিছু বিশেষ নির্দেশনা মেনে চলার তাগিদ দিয়েছেন। এই নির্দেশনা গুলো সঠিকভাবে সবার পক্ষে মেনে চলা একটু কষ্টসাধ্য। বিশেষ করে গরিব দিনমজুর খেটে খাওয়া মানুষদের জন্য। যখন সাধারণ মানুষ এ সকল বিষয় নিয়ে খুবই চিন্তিত তখনই বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর গাজীপুর মহানগরের ৪৭নং ওয়ার্ডের দলনেতা (কমান্ডার) মোঃ মতিউর রহমান মতি নিজ উদ্যোগে আরো কিছু কর্মী বৃন্দদের নিয়ে প্রতিদিনই করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সংগ্রাম চালিয়ে যাচ্ছে। যার মধ্যে জনসাধারণের সচেতনতার জন্য সরকারি সকল নির্দেশনা প্রতিদিন মাইকিং করার মাধ্যমে জনগণকে জানিয়ে দিচ্ছেন। করোনা প্রতিরোধের জন্য প্রতিদিন জীবাণুনাশক স্প্রে ,মাক্স হ্যান্ড গ্লাভস,হ্যান্ড সেনেটারীজ ব্যবহার করা,সাবান দিয়ে কমপক্ষে ২০সেকেন্ড হাত ধোয়াসহ সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার নিরলস পরিশ্রম করে করে যাচ্ছেন।
সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করার জন্য নিত্য প্রয়োজনীয় দোকান এর সামনে চিহ্নিত বর্ডার দেওয়া হচ্ছে। যাতে করে ক্রেতা সাধারণ নির্দিষ্ট দূরত্বে থেকে কেনাকাটা করতে পারেন। প্রতিদিন এলাকার বিভিন্ন জায়গায় আনসার বাহিনীর বাঁশি বাজিয়ে ১০জনের একটি টহল টিমের কার্যক্রম চলমান রয়েছে। এই ব্যাপার বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর গাজীপুর মহানগরের ৪৭নং ওয়ার্ডের দলনেতা (কমান্ডার) মোঃ মতিউর রহমান মতি সাথে কথা বললে তিনি বলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী হাসিনা অনুপ্রেরণায় করোনার বিরুদ্ধে সংগ্রাম চালিয়ে যাচ্ছি। একজন আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর সদস্য হিসেবে শিখেছে কিভাবে দেশের প্রয়োজনে নিজেকে বিলিয়ে দিতে হয়। যতদিন এই করোনাভাইরাস এর প্রাদুর্ভাব বাংলাদেশ থেকে নিশ্চিহ্ন না হবে ততদিন আমার এই সংগ্রাম অব্যাহত থাকবে।
ওয়ার্ড কমান্ডার মতিউর রহমান মতি আরো বলেন, আমি ৪৭নং ওয়ার্ডের শিলমন পশ্চিম পাড়া এলাকায় বসবাস করি। শিলমুন পশ্চিম পাড়া এলাকায় সর্ব প্রথম ১০জন নিয়ে আমি একটি টিম তৈরি করে সাধারণ মানুষকে সেবা দেওয়া শুরু করি। আমার এই জনকল্যাণ মূলক কাজকে সমর্থন দিয়ে, এক ঝাঁক তরুণ কিছু যুবকরা এসে এলাকার জন্য তথাপি দেশ ও দেশের জনগণের জন্য স্বেচ্ছায় কাজ করার ইচ্ছে পোষণ করে।তখন আমি ওই যুবকদের নিয়ে করোনা যুদ্ধে জয়ী হওয়ার জন্য প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করি এবং প্রশিক্ষণ শেষে সদর দপ্তর সাথে যোগাযোগ করে তাদের জন্য আনসার বাহিনী পোশাকের ব্যবস্থা করি। বর্তমানে এই আনসার বাহিনী শিলমুন এলাকাসহ ৪৭নং ওয়ার্ডের বিভিন্ন এলাকায় ২৪ ঘন্টা নিরাপত্তা ও নিরলস ভাবে জনসচেতনা কার্যক্রমে নিয়োজিত রয়েছে। আপনাদের মাধ্যমে সকল জনসাধারণকে সরকারের সকল নির্দেশনা মেনে চলার জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি কারণ এই করোনাভাইরাস বিরুদ্ধে নিজের ও নিজ পরিবারের সচেতনতাই হচ্ছে সবচেয়ে বড় প্রতিরোধ।

Facebook Comments Box


Posted ৪:০১ অপরাহ্ণ | রবিবার, ১৯ এপ্রিল ২০২০

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১