সোমবার, মার্চ ২৩, ২০২০

শিরোনাম >>
শিরোনাম >>

টঙ্গীতে চাউল ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি দোকানেই অনিয়ম

সুজন সারোয়ার, টঙ্গী   |   সোমবার, ২৩ মার্চ ২০২০ | প্রিন্ট  

টঙ্গীতে চাউল ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি দোকানেই অনিয়ম

করোনা ভাইরাসের অজুহাত দেখিয়ে ন্যায্য দামের থেকে অতিরিক্ত মূল্যে চাউল বিক্রির অভিযোগ পাওয়া গেছে টঙ্গী বাজার চাউল ব্যবসায়ী সমিতিরি সভাপতি, ভাই ভাই রাইস স্টোরের মালিক হাজী জামাল উদ্দিন খানের বিরুদ্ধে।
সোমবার সকালে বাজার নিয়ন্ত্রণে রাখার লক্ষ্যে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের ৫৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আলহাজ¦ মো: গিয়াস উদ্দিন সরকার। টঙ্গীতে কর্মরত বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক্স মিডিয়ার সাংবাদিকদের নিয়ে বাজার মনিটরিংয়ে গিয়ে এ সত্যতা পান। এব্যাপারে তাৎক্ষণিক ভুক্তভোগীরা বাজার মূল্যের চাইতে অতিরিক্ত মূল্যে চাউল বিক্রির ক্যাশ মেমো দেখান এবং কাউন্সিলরের উপস্থিতি অতিরিক্ত মূল্যে চাউল বিক্রির অভিযোগ তুলে ধরেন।
এব্যাপারে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের ৫৭নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো: গিয়াস উদ্দিন সরকার বলেন, আমাদের পর্যাপ্ত চাউল ও নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র মজুদ রয়েছে। আপনারা গুজবে কান দিবেন না। চাউল বাজার পরিচালনা কমিটির সভাপতি হাজী জামাল উদ্দিন খানের দোকানে চাউল বিক্রিতে ব্যাপক অনিয়ম হয়েছে, যা প্রমাণিত হয়েছে। আশা রাখি সে সামনের দিকে অতিরিক্ত মূল্যে চাউল বিক্রি করবে না। বাজারে যেই অনিয়ম করবে আমরা তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিব।
এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, টঙ্গী বাজার চাউল ব্যবসায়ী সমিতির সাধারণ সম্পাদক মজিবুর রহমান, সাবেক চাউল ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি মো: ইসমাইল হোসেন, মুদি দোকান মালিক সমিতির সভাপতি অলিউর রহমান, সাধারণ সম্পাদক নাসির উদ্দিন, টঙ্গী বাজার আড়ৎদার মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক এস এম মিন্টু হোসেন, সোনাবান বিপনী মার্কেট পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক শাহ আলম, সহ সভাপতি আব্দুল করিম প্রমুখ।
অপরদিকে করোনা ভাইরাসের অজুহাত দেখিয়ে ন্যায্য দামের চেয়ে অতিরিক্ত মূল্যে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস বিক্রি করার অভিযোগে টঙ্গী বাজার আড়ৎদার মালিক সমিতির সভাপতি, পাইকারী বিক্রেতা সাঈদ এন্ড বাদ্রাসের মালিক সবুজ মিয়াকে অতিরিক্ত দামে বিক্রি করার অপরাধে ২০ হাজার টাকা, খুচরা বিক্রেতা ডালিমকে ৬হাজার টাকা, পেয়াজ বিক্রেতা মীর হোসেন খানকে ৫হাজার টাকা জরিমানা করেছেন গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের টঙ্গী অ লের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো: সোহরাব হোসেন। এ সময় মুদি মাল ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দরা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেডের কাছে প্রতিশ্রুতি দেন যে, তারা ন্যায মূল্যেই নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র বিক্রি করবেন। অতিরিক্ত দামে বিক্রি করবেন না। ব্যবসায়ীদের এই প্রতিশ্রুতির পরিপ্রেক্ষিতে ম্যাজিষ্ট্রেট অভিযান সমাপ্ত করেন এবং বিভিন্ন বাজারে অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানান গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের টঙ্গী অ লের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো: সোহরাব হোসেন।


Posted ১০:৩৫ পিএম | সোমবার, ২৩ মার্চ ২০২০

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement