• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    যুক্তরাজ্যের নির্বাচন

    টিউলিপ, রুপা ও রুশনারা জয়ী

    অগ্রবাণী ডেস্ক | ০৯ জুন ২০১৭ | ১০:৪৪ পূর্বাহ্ণ

    টিউলিপ, রুপা ও রুশনারা জয়ী

    যুক্তরাজ্যের সাধারণ নির্বাচনে জয়ী হয়েছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত প্রার্থী টিউলিপ রেজওয়ানা সিদ্দিক, রুপা হক ও রুশনারা আলী।


    রুপা লন্ডনের ইলিং সেন্ট্রাল অ্যান্ড অ্যাকটন আসন থেকে ও টিউলিপ একই শহরের হ্যাম্পস্টেড অ্যান্ড কিলবার্ন আসন থেকে মেম্বার অব পার্লামেন্ট (এমপি) নির্বাচিত হয়েছেন। আর রুশনারা জয়ী হয়েছেন বেথনাল অ্যান্ড গ্রিন বো আসন থেকে।

    ajkerograbani.com

    তাঁদের মধ্যে রুপা হক ও রুশনারা আলী তৃতীয়বার আর টিউলিপ সিদ্দিক দ্বিতীয়বারের মতো লেবার পার্টি থেকে এমপি নির্বাচিত হলেন।

    এ তিনজনই যুক্তরাজ্যে সদ্য ভেঙে দেওয়া পার্লামেন্টে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত এমপি ছিলেন।

    স্কাই নিউজ জানায়, লন্ডনের সবচেয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ আসনগুলোর অন্যতম ইলিং সেন্ট্রাল অ্যান্ড অ্যাকটন আসনে লেবার প্রার্থীর রুপা ৩৩ হাজার ৩৭ ভোট পেয়েছেন। তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী কনজারভেটিভ দলের জে মোরিসি পেয়েছেন ১৯ হাজার ২৩০ ভোট। গতবার রুপা জিতেছিলেন মাত্র ২৭৪ ভোটের ব্যবধানে। আর এবার প্রতিদ্বন্দ্বীর চেয়ে প্রায় ১৪ হাজার বেশি ভোট পেয়েছেন।

    ১৫ হাজারের বেশি ভোটের ব্যবধানে জিতেছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নাতনি টিউলিপ রেজওয়ানা সিদ্দিকও। হ্যাম্পস্টেড অ্যান্ড কিলবার্ন আসন থেকে তিনি ১৫ হাজার ৯৬টি ভোট বেশি পেয়ে কনজারভেটিভ প্রার্থী এডওয়ার্ড মোকে হারিয়েছেন।

    হ্যাম্পস্টেড অ্যান্ড কিলবার্নে টিউলিপ পেয়েছেন ৩৪ হাজার ৪৬৪ ভোট, যা ওই আসনের মোট ভোটের ৫৯ শতাংশ।

    এদিকে ব্রিটিশ পার্লামেন্ট নির্বাচনে বেথনাল অ্যান্ড গ্রিন বো আসনে রুশনারার হ্যাটট্রিক জয়ও এসেছে বিশাল ব্যবধানে। প্রতিদ্বন্দ্বী কনজারভেটিভ পার্টির প্রার্থীকে ৩৫ হাজার ৩৯৩ ভোটের বিশাল ব্যবধানে পরাজিত করেছেন তিনি।

    জানা গেছে, যুক্তরাজ্যের সাধারণ নির্বাচনে এবার বিভিন্ন দলের হয়ে ১৪ বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

    তাঁদের মধ্যে আটজন লড়ছেন লেবার পার্টির হয়ে। এ ছাড়া লিবারেল ডেমোক্রেট পার্টির একজন, ফ্রেন্ডস পার্টির একজন ও চারজন লড়ছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে।

    গত ১৮ এপ্রিল হঠাৎ করেই আগাম নির্বাচনের ঘোষণা দিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী টেরিজা মে। অথচ ব্রিটেনের পরবর্তী নির্বাচন ২০২০ সালে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। ব্রেক্সিট তথা ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে বের হয়ে আসার প্রক্রিয়া জোরদার করতে ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টির সংখ্যাগরিষ্ঠতা আরো নিরঙ্কুশ করতে তিনি এই ঘোষণা দিয়েছিলেন।

    Facebook Comments Box

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫১৬
    ১৭১৮১৯২০২১২২২৩
    ২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4757