• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    টয়লেটে ফোন ব্যবহার করেন? সাবধান!

    অনলাইন ডেস্ক | ২৫ আগস্ট ২০১৭ | ১০:৩৫ অপরাহ্ণ

    টয়লেটে ফোন ব্যবহার করেন? সাবধান!

    আপনি কী টয়লেটে ফোন নিয়ে যান? প্রতিদিন টয়লেটে যাওয়ার সময় মোবাইল যদি আপনার নিত্যসঙ্গী হয়, তাহলে সাবধান! নিত্যদিনের এই অভ্যাস ডেকে আনতে পারে বড় বিপদ। ক্ষতিকারক রোগ বাসা বাঁধতে পারে শরীরে। এমনটাই মত বিশেষজ্ঞদের।


    এক সমীক্ষায় দেখা গেছে ৪১ শতাংশ অস্ট্রেলিয়ার বাসিন্দা এবং প্রায় ৭৫ শতাংশ আমেরিকাবাসী টয়লেটে ফোন ব্যবহার করেন। সেই তালিকায় রয়েছেন ভারতীয়রাও। শুধু মোবাইল নয়, অনেকে আবার তাঁদের ট্যাবলেটও নিয়ে যান টয়লেটে। গবেষকেরা জানাচ্ছেন, মোবাইলের কভার রাবারের তৈরি। সেখানে বাসা বাঁধে যাবতীয় ক্ষতিকর ভাইরাস ও ব্যাকটেরিয়া। বাথরুমের ফ্লাশ, কল বা দরজার লক ব্যবহারের পর মোবাইলের স্ক্রিনে হাত দিলে সেখানেও জন্মাতে পারে সালমোনেল্লার মতো ভয়ঙ্কর ব্যাকটেরিয়া। যা থেকে হতে পারে টাইফয়েডের মতো রোগ।

    ajkerograbani.com

    গবেষকেরা জানাচ্ছেন, টয়লেটের ভিজে পরিবেশে ব্যাকটেরিয়া দ্রুত বংশ বৃদ্ধি করে।
    ঠিকভাবে হাত না ধোয়া বা টয়লেট ব্যবহারের সময় সেই জায়গায় মোবাইল রাখার ফলে তাতে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে সালমোনেল্লা, ই. কোলাই, সিগেল্লা এবং ক্যামফাইলোব্যাকটরের মতো ব্যাকটেরিয়া। ফোনের টাচস্ক্রিনে গ্যাসট্রো এবং স্ট্যাপের মত ক্ষতিকর ভাইরাস জন্মাতে পারে বলে মত বিশেষজ্ঞদের। টয়লেটে ব্যবহারের পর সেই ফোন আমরা বিছানায় বা খাবার জায়গায় রাখি এবং সেখানেও ব্যবহার করি।

    চিকিৎসকরা জানাচ্ছেন, মোবাইলে বাসা বাঁধা এই ক্ষতিকর ভাইরাস ও ব্যাকটেরিয়া খাবারের সঙ্গে লালায় মিশে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে শরীরে। টয়লেট ব্যবহারের পর ঠিক ভাবে হাত না ধুয়ে মোবাইল ব্যবহার করেন অনেকে। তার থেকেই ছড়ায় রোগ। কোনো কোনো গবেষকের মতে, মোবাইল অন থাকলে এবং ক্রমাগত ব্যবহারের ফলে তার তাপমাত্রা এমনিতেই বেশি থাকে। এই তাপ ব্যাকটিরিয়াদের বৃদ্ধিতে সাহায্য করে।

    Facebook Comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২
    ১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
    ২০২১২২২৩২৪২৫২৬
    ২৭২৮২৯৩০৩১  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4755