শনিবার ২৫শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ | ১০ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ডেঙ্গু থেকে বাঁচতে যা জানতে হবে

ডেস্ক রিপোর্ট   |   রবিবার, ০১ আগস্ট ২০২১ | প্রিন্ট  

ডেঙ্গু থেকে বাঁচতে যা জানতে হবে

বর্ষার মৌসুমে মশার উপদ্রপ বেড়ে যায়। আর এই মশার কামড়েই নানা রকম মশা বাহিত রোগ দেখা দেয়। ডেঙ্গু এসব রোগের মধ্যে অন্যতম। করোনার সঙ্গে সঙ্গে দেশে এখন বেড়েছে ডেঙ্গুর আতঙ্কও। দিন দিন বাড়ছে ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা। এ সময় ডেঙ্গু থেকে বাঁচতে সবচেয়ে বেশি জরুরি সচেতনতা।

সেই সঙ্গে ডেঙ্গু থেকে বাঁচতে কী কী করতে হবে তাও আমাদের জানতে হবে। তবেই ডেঙ্গু প্রতিরোধ সম্ভব হবে। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক ডেঙ্গু প্রতিরোধে আমাদের করণীয়-


>> দিন ও রাতে ঘুমানোর সময় মশারি ব্যবহার করুন।

>> ঘরে যেন মশা ঢুকতে না পারে এজন্য জানালাসহ বারান্দার গ্রিলেও নেট লাগাতে পারেন।


>> শিশুদের ফুলহাতা জামা ও ফুলপ্যান্ট পরাবেন। সাদা কাপড় পরা ভালো। দিনের বেলায় ঘুমালে মশারি টানানো উচিত। শরীরে উন্মুক্ত স্থানে মশা প্রতিরোধক ক্রিম লাগাতে পারেন।

>> এডিস মশার জন্ম হয় পাত্রে জমে থাকা পানিতে। তাই সপ্তাহে অন্তত একদিন আপনার বাড়ি এবং তার চারদিকে ঘুরে দেখুন কোথাও কোনো পাত্রে পানি জমে আছে কি-না। থাকলে ফেলে দিন বা পরিষ্কার করুন।

>> বাড়ির আশপাশ পরিচ্ছন্ন রাখুন। ফুলের টব, মাটি বা প্লাস্টিকের পাত্র ও ফুলদানিতে কয়েকদিনের বাসি পানি যেন না জমে।

>> যদি কোনো পাত্রের পানি ফেলে দেওয়া না যায়, তাহলে সেখানে ব্লিচিং পাউডার বা লবণ দিন।

>> গাড়ির অব্যবহৃত টায়ার ঘরে রাখবেন না, কারণ সেখানে এডিস মশার জন্ম হতে পারে।

>> দই বা যে কোনো খাবারের কৌটা বাইরে ফেলবেন না। এসব পাত্রেও পানি জমে থাকতে পারে।

>> বাথরুমে যদি পানি ধরে রাখতে হয় তাহলে পানির পাত্র সপ্তাহে অন্তত একবার ব্লিচিং পাউডার দিয়ে ভালো করে ধুয়ে আবার পানি ভর্তি করুন।

>> এডিস মশা পানির পাত্রের কিনারে ডিম পাড়ে এবং পাত্রের গায়ে আটকে থাকে, যে কারণে পানি ফেলে দিলেও ডিম যায় না। তাই এটিকে ব্লিচিং পাউডার দিয়ে ভালোভাবে ঘষে পরিষ্কারের প্রয়োজন পড়ে।

>> আপনার বাড়ির পাশে কোনো নির্মাণাধীন ভবন থাকলে, এটির লিফটের গর্ত, ইট ভেজানোর চৌবাচ্চা, ড্রাম পরীক্ষা করুন। যদি এসব জায়গায় জমে থাকা পানিতে ছোট ছোট পোকা দেখতে পান, তাহলে বুঝবেন সেটি এডিস মশার লার্ভা বা বাচ্চা।

>> বাড়ির আশপাশে যদি কোনো সরকারি-বেসরকারি স্থাপনা থাকে মশা জন্মানোর মতো, তাহলে কর্তৃপক্ষকে জানান। বাড়ির আশপাশে গাছের গর্ত বা কাটা বাঁশের গোড়া মাটি দিয়ে বন্ধ করে দিন।

>> অ্যাপার্টমেন্ট বা পাড়ায় পাড়ায় কমিটি করে নিয়মিত পরিচ্ছন্নতা অভিযান ও মশার ওষুধ স্প্রে করা, লার্ভিসাইড ছিটানোর মতো কার্যক্রম শুরু করুন।

Facebook Comments Box

Posted ৪:৫২ অপরাহ্ণ | রবিবার, ০১ আগস্ট ২০২১

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০
১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
১৮১৯২০২১২২২৩২৪
২৫২৬২৭২৮২৯৩০