• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    ঢাবিতে ডিন রদবদল

    ঢাবি প্রতিনিধি | ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৭ | ১১:১৫ অপরাহ্ণ

    ঢাবিতে ডিন রদবদল

    ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদে নির্বাচন না দিয়ে পুনরায় অন্য একজনকে ভারপ্রাপ্ত ডিনের দায়িত্ব দেওয়া বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের আক্রোশের শিকার বলে অভিযোগ করেছেন অনুষদের ডিন অধ্যাপক এ জে এম শফিউল আলম ভুঁইয়া। তিনি এ ঘটনাকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় পরিচালনার সংবিধানখ্যাত-১৯৭৩’র আদেশে উল্লিখিত নিয়মের সুস্পষ্ট লঙ্ঘন হিসেবে অভিহিত করেন।
    গতকাল শুক্রবার বিকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অফিসে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে শফিউল ইসলাম এসব বক্তব্য তুলে ধরেন। এছাড়া ৪৩ এর আদেশ লঙ্ঘন করে সম্প্রতি ফার্মেসি বিভাগে একজনকে দ্বিতীয় মেয়াদে চেয়ারম্যানের দায়িত্ব দেওয়া হয় বলেও অভিযোগ করেন তিনি। এর আগে গত বুধবার বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেটের সভায় ভারপ্রাপ্ত ডিন হিসেবে তার জায়গায় অন্য একজনকে নিয়োগ দেওয়া হয়।
    লিখিত বক্তব্যে অধ্যাপক শফিউল আলম ভূঁইয়া বলেন, একজন ভারপ্রাপ্ত ডিনকে সরিয়ে অন্য একজনকে ভারপ্রাপ্ত ডিন হিসেবে নিয়োগ দেওয়া সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রীতি নীতির পরিপন্থীত। বিনা কারণে একজন ভারপ্রাপ্ত ডিনকে অন্য একজনকে ভারপ্রাপ্ত ডিন হিসেবে নিয়োগের ঘটনা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাসে নেই বললেই চলে। তাহলে আমাকে কেন নির্বাচন না দিয়ে সরিয়ে দেওয়া হলো? তাহলে আমি কি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের আক্রোশের শিকার?
    তিনি বলেন, গত ২ জুলাই বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাদেশ ১৯৭৩ এ ১৭ নম্বর অনুচ্ছেদ অনুযায়ী সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ভারপ্রাপ্ত ডিন হিসেবে দায়িত্ব গ্রহন করি। সে অনুযায়ী আগামী ১ অক্টোবর ভারপ্রাপ্ত ডিন হিসেবে আমার কার্যকাল ৯০ দিন পূরণ হবার কথা। এ অবস্থায় নতুন ডিন নিযুক্ত করতে হলে তা নির্বাচন প্রক্রিয়ার মাধ্যমে করাটাই আইনসিদ্ধ। কিন্তু ২৭ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সিন্ডিকেট সভায় সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ভারপ্রাপ্ত ডিন হিসেবে অধ্যাপক ড. সাদেকা হালিমকে নিয়োগের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয় যা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ঐতিহ্য ও প্রচলিত রেওয়াজের পরিপন্থী এবং অধ্যাদেশের সুস্পষ্ট লঙ্ঘন।
    তিনি আরও বলেন, নির্বাচিত ডিন অধ্যাপক ফরিদউদ্দিন আহমেদ অবসর গ্রহণ প্রস্তুতিমূলক ছুটিতে যাওয়ায় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ আমাকে সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ভারপ্রাপ্ত ডিন হিসেবে নিয়োগ প্রদান করেন। নিয়োগপত্রে বলা ছিল, ০২.০৭.১৭ তারিখ হতে অনধিক ৯০ দিন অথবা পরবর্তী নির্বাচিত ডিন কাজে যোগদান না করা পর্যন্ত সময়ের জন্য উপাচার্য মহোদয় আপনাকে সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ভারপ্রাপ্ত ডিন নিয়োগ করেছেন। এমতাবস্থায় নতুন করে আরেকজনকে ডিন হিসেবে নিয়োগ দেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের আইনের লংঘন ও রীতি নীতি বিরোধী। আমাকে এমন এক সময় সরানো হলো যখন আমি ’ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষার সমন্বয়কারী হিসেবে কাজ করছি। ’ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা ২০ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হবে


    Facebook Comments


    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫
    ১৬১৭১৮১৯২০২১২২
    ২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
    ৩০৩১  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4673