• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    তরুণীকে রাতে শোয়ার প্রস্তাব ওসির!

    আজকের অগ্রবাণী ডেস্ক | ১৯ জুলাই ২০১৮ | ৪:৪০ অপরাহ্ণ

    তরুণীকে রাতে শোয়ার প্রস্তাব ওসির!

    বগুড়ার ধুনট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার খান মো. এরফানের বিরুদ্ধে অসদাচরণের অভিযোগ এনেছেন একজন তরুণী। তার অভিযোগ, মামলা করতে গেলে পুলিশ কর্মকর্তা তার কাছে টাকা চান, আর টাকা দিতে না পারলে রাতে তার সঙ্গে থাকতে হবে বলে জানান।মেয়েটির বাবা এ ঘটনার প্রতিকার চেয়ে মঙ্গলবার বগুড়া পুলিশ সুপার আশরাফ আলী ভূঞার কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। যদিও ওসি এরফান সব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছেন, তার কাছে মামলা করতেই যাননি ওই তরুণী।তবে তরুণীটির অভিযোগ, তিনি মামলা করেতে গেলে ওসি এরফান তাকে বলেন, মামলা করতে আসছোস, কত টাকা আনছস? যদি টাকা না দিস তাহলে রাতে আমার সঙ্গে থাকবি? থাকলে মামলাও নেব আসামিও ধারব।


    তরুণীর অভিযোগ, প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় ওসি মামলার আবেদনের কপি ছিঁড়ে টুকরো টুকরো করে মুখের দিকে ছুঁড়ে দেন। তারপর থানা থেকে বের করে দেয়া হয় তাকে।স্থানীয়রা জানান, সোমবার উপজেলার কালেরপাড়া ইউনিয়নের আনারপুর গ্রামে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে এক দিনমজুর ও এক বিধবার ঘরবাড়ি ভাঙচুর করে ডোবায় ফেলে দেয় সন্ত্রাসীরা।


    এ সময় বাধা দেয়ায় তিন নারীকে মারধর করা হয়।এ ঘটনায় সোমবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে ক্ষতিগ্রস্ত একজন ধুনট থানায় একটি মামলা দিতে গেলে ওসি মামলা না নিয়ে কক্ষ থেকে বের করে দেন বলে অভিযোগ উঠে।ভুক্তভোগী ব্যক্তির সঙ্গে মামলা করতে থানায় গিয়েছিলেন তার মেয়ে। তার সেখানেই এই আপত্তিকর ঘটনা ঘটে বলে দাবি করা হয়।তরুণীটি জানান, গত এক বছর আগে আনারপুর গ্রামের পাশ্ববর্তী ঘুগরাপাড়া গ্রামে একই প্রতিপক্ষ তাদের ঘরবাড়ি ভাঙচুর করে। এ কারণে তার বাবা পৈত্রিক ভিটেমাটি ছেড়ে আনারপুর গ্রামে ঘরবাড়ি নির্মাণ করেন।

    এরপর প্রতিপক্ষ তার বাবা, চাচা সহ ১৬ জন স্বজনের বিরুদ্ধে বগুড়া আদালতে মামলা করে। ওই মামলায় সোমবার সকালে তার বাবা, চাচা ও স্বজনেরা হাজিরা দিতে যান। আর বাড়িতে কোনো পুরুষ না থাকার সুযোগে প্রতিপক্ষ লাঠিসোটা নিয়ে তাদের বাড়িতে হামলা চালিয়ে তিনটি ঘর ভেঙে পাশের ডোবায় ফেলে দেয়।
    এ সময় বাধা দিতে গেলে ওই তরুণী ও তার দুই ফুফুকে পেটানো হয় বলে অভিযোগ করেছেন তিনি। আর এই অভিযোগ নিয়েই ওই তরুণী ও তার বাবা থানায় গিয়েছিলেন।ওসির বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ পাওয়ার কথা স্বীকার করে বগুড়ার পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভূঞা ঢাকাটাইমসকে বলেন, অভিযোগের তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।পুলিশ সুপার বলেন, বাড়ি ভাঙচুর সংক্রান্ত একটি অভিযোগ পেয়েছি। ধুনট থানার ওসিকে মামলা গ্রহনের জন্য বলা হয়েছে। ওসি খান মো. এরফানের কাছে তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি সব অস্বীকার করেন। বলেন, যে কথা বলা হচ্ছে, তেমন কিছুই ঘটেনি। ওসি বলেন, বাড়ি ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে সেটি তিনি জানেন। তবে মামলা করার জন্য তার কাছে কেউ আসেনি।

    Facebook Comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫
    ১৬১৭১৮১৯২০২১২২
    ২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
    ৩০৩১  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4673