• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    দুই অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল হচ্ছেন কারা

    | ২৯ অক্টোবর ২০২০ | ১১:০৬ পূর্বাহ্ণ

    দুই অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল হচ্ছেন কারা

    অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেলের দায়িত্বে থাকা রাষ্ট্রের দুই আইন কর্মকর্তা পদত্যাগ করায় পদ দুটি শূন্য হয়েছে। এ দুই পদে কারা নিয়োগ পাচ্ছেন- এ নিয়ে আইনজীবীদের মাঝে জল্পনা-কল্পনা চলছে। পদ দুটি শূন্য ঘোষণার পর সরকার নতুন অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল নিয়োগের প্রক্রিয়া শুরু করেছে।


    সরকারের একটি দায়িত্বশীল সূত্র জানিয়েছে, গুরুত্বপূর্ণ এ পদ পূরণে পেশাদার আইনজীবীদের মধ্য থেকে যোগ্য ও উপযুক্ত ব্যক্তিকেই নিয়োগ দেয়া হবে। শিগগিরই অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেলের শূন্য পদে নিয়োগ দিতে যাচ্ছে সরকার। গুরুত্বপূর্ণ এই দুই পদে নিয়োগ পেতে অনেকেই চেষ্টা করছেন। সরকারও এ বিষয়ে সতর্ক অবস্থানে রয়েছে।


    জানতে চাইলে আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক বলেন, ‘অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেলের শূন্যপদে শিগগিরই নিয়োগ দেয়া হবে।’

    সুপ্রিমকোর্টের উভয় বিভাগে রাষ্ট্রপক্ষের মামলা পরিচালনার জন্য অ্যাটর্নি জেনারেল কার্যালয়ে অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেলের তিনটি পদ রয়েছে। অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম ২৭ সেপ্টেম্বর ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

    এরপর ৮ অক্টোবর ওই পদে সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি আবু মোহাম্মদ আমিন উদ্দিনকে (এএম আমিন উদ্দিন) অ্যাটর্নি জেনারেল হিসেবে নিয়োগ দেয় সরকার। এদিকে ১১ অক্টোবর অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেলের দায়িত্বে থাকা মুরাদ রেজা ও মো. মোমতাজ উদ্দিন ফকির পদত্যাগ করেন। রাষ্ট্রপতি এরই মধ্যে তাদের পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেছেন।

    দু’জন অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল পদত্যাগ করায় ওই কার্যালয়ে এখন শুধু একজন অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল এমএম মুনীর রয়েছেন। এছাড়া ৬৭ জন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ও ১৫৩ জন সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল মিলিয়ে মোট ২২৩ জন আইন কর্মকর্তা রয়েছে অ্যাটর্নি জেনারেলের কার্যালয়ে।

    আইনজীবীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল নিয়োগের ক্ষেত্রে তিনটি বিষয়কে গুরুত্ব দিচ্ছেন সরকারের সংশ্লিষ্টরা। এগুলো হল- ব্যক্তির বিগত দিনে আওয়ামী রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্তদ্ধতা, সততা ও আইন পেশায় যোগ্যতা এবং দক্ষতা।

    ইতোমধ্যে নিয়োগের তালিকায় অর্ধডজন আইনজীবীর নাম উঠে এসেছে। তারা হলেন- সাবেক ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল অ্যাডভোকেট মোতাহার হোসেন সাজু, সাবেক ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ফরহাদ আহমেদ, অ্যাডভোকেট শাহ মঞ্জুরুল হক, আজহার উল্লাহ ভূঁইয়া, অ্যাডভোকেট শেখ আওসাফুর রহমান বুলু, ব্যারিস্টার তানজীব উল আলম ও ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিশ্বজিৎ দেবনাথ।

    তবে সাবেক ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ফরহাদ আহমেদ, মোতাহার হোসেন সাজু ও ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিশ্বজিৎ দেবনাথের নাম আলোচনার শীর্ষে রয়েছে। সুপ্রিমকোর্টে কাজ করে যাওয়া সিনিয়র আইনজীবীদের মধ্য থেকে অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল পদে নিয়োগ দেয়া হবে? নাকি ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেলদের মধ্য থেকে দু’জনকে নিয়োগ দেয়া হবে, তা নিয়েও আইনজীবীদের আলোচনা চলছে।

    প্রয়াত ব্যারিস্টার রফিক-উল হকের জুনিয়র হিসেবে দীর্ঘদিন কাজ করেছেন অ্যাডভোকেট শাহ মঞ্জুরুল হক। আইনজীবী হিসেবে তার সুনাম রয়েছে। বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদের সম্মেলন প্রস্তুত কমিটির সদস্য তিনি।

    শাহ মঞ্জুরুল হক গত বছর আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্যানেল থেকে সম্পাদক পদে নির্বাচন করেছিলেন। সরকারের শীর্ষ মহলের সঙ্গে তার নিবিড় সম্পর্ক রয়েছে। অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল হিসেবে তিনি নিয়োগ পেতে পারেন।

    সাবেক ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ফরহাদ আহমেদ একজন মুক্তিযোদ্ধা। ছাত্রজীবন থেকে ছাত্রলীগের রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত। ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জসিম উদ্দিন হল শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি। ফরহাদ আহমেদ বৃহত্তর ফরিদপুর জেলা ছাত্রলীগ পুনর্গঠনে নেতৃত্ব দিয়েছেন। তিনি বিডিআর বিদ্রোহসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী হিসেবে আইনি সহায়তা প্রদান করেছেন।

    আইনজীবী শেখ আওসাফুর রহমান বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের আমলে সুপ্রিমকোর্ট অঙ্গনে আওয়ামী লীগের রাজনীতির পক্ষে সাহসী ভূমিকা পালন করেছেন। ওই সময় তার বিরুদ্ধে কয়েকটি মামলাও হয়েছিল। আইনজীবী হিসেবেও তার সুনাম রয়েছে।

    মাহবুবে আলম অ্যাটর্নি জেনারেল থাকা অবস্থায় অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল হিসেবে নিয়োগের তালিকায় বারবার অ্যাডভোকেট মোতাহার হোসেন সাজুর নাম উঠে এসেছে। সম্প্রতি দুই অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল পদত্যাগের পর আবার নতুন করে আলোচনায় আসছে তার নামও।

    ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিশ্বজিৎ দেবনাথ দীর্ঘসময় ধরে দক্ষতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। তিনি ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের সার্বক্ষণিক সঙ্গী। গুরুত্বপূর্ণ সব মামলার নথিপত্র তার নখদর্পণে। তাই অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল হিসেবে তাকে পদোন্নতি দেয়া হতে পারে বলেও আইনজীবীদের বিভিন্ন সূত্র দাবি করছে।

    ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক বলেন, অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেলের দুটি পদ শূন্য থাকায় অ্যাটর্নি জেনারেল কার্যালয়ের বিভিন্ন দাফতরিক কাজ ব্যাহত হচ্ছে। যেমন পদাধিকার বলে দুই অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল বিভিন্ন সাব কমিটির প্রধান ছিলেন। এসব কমিটি এখন নিষ্ক্রিয়, নতুন কর্মকর্তা নিয়োগের পর এসব কমিটি পুনর্গঠন করতে হবে।

    Facebook Comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩
    ১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
    ২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
    ২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4673