• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    দেশ ও মানুষের জন্য নিবেদিত প্রাণ রুহুল আমীন রিজভী

    নিজস্ব প্রতিবেদক: | ২৪ জুলাই ২০১৭ | ১০:৪২ অপরাহ্ণ

    দেশ ও মানুষের জন্য নিবেদিত প্রাণ রুহুল আমীন রিজভী

    সাল ২০০১, কারচুপির নির্বাচনের মাধ্যমে ক্ষমতায় তখন বিএনপি-জামায়াতের নেতৃত্বাধীন জোট সরকার। তথাকথিত ওই নির্বাচনে ষড়যন্ত্র করে হারাবার পর শেখ হাসিনার নেতৃত্বে রাজপথে আন্দোলন সংগ্রাম শুরু করে আওয়ামী লীগ। সেই আন্দোলনের পুরোভাগে ছিল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ছাত্র সংগঠন – বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। সেই সময়ে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের যে কয়েকজন নেতা সামনে থেকে আন্দোলনের নেতৃত্ব দিয়েছেন তাঁদের মধ্যে ত‌ৎকালীন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক এস. এম. রুহুল আমীন (রিজভী) অন্যতম।


    শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সংঘটিত হওয়া রাজপথের ওই আন্দোলনে তৎকালীন ছাত্রলীগের নিবেদিত প্রাণ এস. এম. রুহুল আমীন (রিজভী) বেশ কয়েকবার কারাবরণ করেন এবং বিভিন্ন মামলায় তাকে আসামী করা হয়। ২০০৪ সালের ফেব্রুয়ারী মাসে বিএনপি-জামাত জোট সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে গেলে তৎকালীন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ সম্পাদক হেমায়েত উদ্দিন খান হিমুর সাথে দুইবার কারাবরণ করতে হয় রিজভীকে।

    বিএনপি-জামাত জোট সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানানোয় এস. এম. রুহুল আমীন (রিজভী)’র নামে ৩টি মামলা হয়। এর মধ্যে ত‌ৎকালীন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি দেলোয়ার হোসেনকে (বর্তমান কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক) এক নম্বর আসামী করে ১টি মামলা দায়ের করা হয় জোট সরকারের পক্ষ থেকে। এ দায়েরকৃত মামলায় রিজভীকে দুই নম্বর আসামী করা হয়। দীর্ঘ প্রায় তিন বছর ধরে মামলা চলার পর ২০০৭ সালের ২২শে জানুয়ারীতে ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দ মামলা থেকে খালাস পান।

    ajkerograbani.com

    দল ও দেশের সমূহ বিপদের মূহুর্তে ত‌ৎকালীন সরকারের দু:শাসনের বিরুদ্ধে আন্দোলনকে বেগবান করে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের উক্ত নেতাকর্মীরা জননেত্রী শেখ হাসিনা, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ও সর্বোপরি দেশ ও জনগনের স্বার্থে অনন্য সাহস ও ত্যাগের নজীর স্থাপন করেছিলেন।পরবর্তীতে কৃতিত্বের সাথে শিক্ষাজীবণ শেষ করে রুহুল আমীন রিজভী বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে যোগ হয়ে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার সংগ্রামে অবদান রেখে চলেছেন। রুহুল আমীন রিজভীকে ত্যাগের পুরস্কার স্বরুপ প্রথমে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের উপ-সমাজসেবা সম্পাদক করা হয়। নিষ্ঠা ও সফলতার সাথে অর্পিত দায়িত্ব পালন করার ফলস্রুতিতে পরবর্তীতে জননেত্রী শেখ হাসিনা রুহুল আমীন রিজভীকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপকমিটির সহসম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব দেন যা তিনি কৃতিত্বের সাথে পালন করেন। বর্তমানে এস. এম. রুহুল আমীন (রিজভী) বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, ঝালকাঠি জেলা শাখার একজন নির্বাহী সদস্য হিসেবে কাজ করে যাচ্ছেন।

    রিজভী স্কুলজীবনে ঝালকাঠি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় শাখার সহসভাপতি ছিলেন। স্কুল জীবন পার করে রিজভী প্রথমে ভর্তি হন নটরডেম কলেজে। তবে একমাত্র ছাত্রলীগ করার জন্যই তিনি কলেজ পরিবর্তন করে ঢাকা কলেজে ভর্তি হন এবং ছাত্রলীগের সক্রিয় একজন সদস্য হিসেবে সুনাম অর্জন করেন।

    বঙ্গবন্ধুর আদর্শ মনে প্রাণে ধারণকারী রুহুল আমিন রিজভী সব সময়েই দেশ ও মানুষের জন্য নিবেদিত প্রাণ। বিশেষ করে গরীব মেধাবী শিক্ষার্থীদেরকে তিনি সব সময়েই সাধ্যমত সাহায্য সহযোগীতা করে থাকেন। তিনি বিভিন্ন সমাজসেবামূলক কাজের সাথে জড়িত। এছাড়া রিজভী বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে নানা রকম গবেষণামূলক কাজের সাথেও জড়িত।

    উল্লেখ্য, এস. এম. রুহুল আমীন (রিজভী)র সাংসারিক জীবন সহধর্মীনি মুনিরা জাহান সুমি এবং একমাত্র ছেলে সুহৃদ রিজিককে ঘিরে। রিজভী’র সহধর্মীনি সুমি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক হিসেবে কর্মরত। বর্তমানে তিনি ইউনিভার্সিটি অব মালায়াতে (মালয়েশিয়া) পিএইচডি গবেষণারত। রিজভীর মতো সুমিও মনে প্রাণে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে বিশ্বাসী একজন মানুষ। বঙ্গব্নধুর মানবদর্শণ নিয়ে তিনি একটি বই লিখেছেন যা প্রকাশের অপেক্ষায় রয়েছে। এছাড়া গণহত্যা নিয়ে তার লেখা ৪টি বইয়ের মধ্যে ৩টি প্রকাশিত হয়েছে। প্রকাশিত বইগুলো হলো: রমানাথপুর গণহত্যা, বেশাইনখান গণহত্যা, কাঠিপাড়া গণহত্যা। গণহত্যা নিয়ে তার লেখা ৪র্থ বই ‘গাবখান গণহত্যা’ আগষ্ট ২০১৭-তে প্রকাশের জন্য অপেক্ষমান।

    পরিশেষ, দলের প্রবীণ ও তরুণ নেতাকর্মী থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষের কাছে এস. এম. রুহুল আমীন (রিজভী) অত্যন্ত জনপ্রিয় একজন নেতা। বর্তমান শিল্পমন্ত্রী ও ঝালকাঠি-২ আসনের এম.পি. জননেতা আলহাজ্ব আমির হোসেন আমু’র স্নেহের পাত্র এস. এম. রুহুল আমীন (রিজভী)’র বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময়ে ষড়যন্ত্রকারীরা নানা রকম কুৎসা রটানোর চেষ্টা করে যাচ্ছে; বঙ্গবন্ধুর আদর্শ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশিত পথে চলতে বাধার সৃষ্টি করে যাচ্ছে। কিন্তু রিজভী অটল। কোন বাঁধাই তাকে আটকাতে পারবেনা। মনে প্রাণে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ নিয়েই তিনি এগিয়ে যেতে চান; দেশের উন্নয়নে সর্বদা নিজেকে নিয়োজিত রাখতে চান।

    Facebook Comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২
    ১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
    ২০২১২২২৩২৪২৫২৬
    ২৭২৮  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4755