• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    ধর্ষকের কান ছিঁড়ে নিয়ে থানায় তরুণী

    অনলাইন ডেস্ক | ০৭ অক্টোবর ২০১৭ | ৭:১৭ অপরাহ্ণ

    ধর্ষকের কান ছিঁড়ে নিয়ে থানায় তরুণী

    টানা তিন দিন থানায় পড়ে থেকেও লাভ হয়নি। তিনি যে গণধর্ষণের শিকার তা কিছুতেই মানতে চাননি পুলিশ কর্মীরা। তাই অভিযোগও নেননি। শেষে প্রমাণ দিতে এক অভিযুক্তের কাটা কান নিয়ে পুলিশকর্তার ঘরে হাজির হন নির্যাতিতা। সম্ভ্রম বাঁচাতে গণধর্ষণের রাতেই যে কানটি তিনি কামড়ে ছিঁড়ে নিয়েছিলেন। ‘প্রমাণ’ পেয়ে অবশেষে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।


    বৃহস্পতিবার ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের উত্তরপ্রদেশের আলিগড়ে। তার ঠিক তিন দিন আগে অর্থাৎ সোমবার রাতে গণধর্ষণের শিকার হন তিনি। নির্যাতিতার দাবি, ওই রাতে সন্তানের সঙ্গে ঘরের ভিতরে শুয়েছিলেন তিনি। তাঁর স্বামী ছিলেন ঘরের বাইরে। অভিযোগ, রাতে স্থানীয় চার যুবক ঘরের ভিতরে ঢুকে তাঁকে ধর্ষণ করে। তাঁর চিৎকারে স্বামী ঘরে এলে তাঁর উপরও চড়াও হয় অভিযুক্তেরা। তখনই ধস্তাধস্তির সময় সম্ভ্রম বাঁচাতে এক দুষ্কৃতীর কান কামড়ে ছিঁড়ে নেন নির্যাতিতা।


    সোমবার রাতের ওই ঘটনার পরদিনই আলিগড় থানায় যান মহিলা ও তাঁর স্বামী। কিন্তু তাঁদের অভিযোগ, পুলিশ তাঁদের অভিযোগ নিতে অস্বীকার করে। তিনি যে সত্যিই গণধর্ষণের শিকার, তা কিছুতেই মানতে চাইছিল না পুলিশ। তিনি জানান, এই ভাবে তিন দিন কেটে যায়, হাজার কান্নাকাটিতেও কাজ হয়নি। অভিযুক্তেরা তাঁদের হুমকি দিচ্ছে বলার পরও পুলিশ কোনও ব্যবস্থা নেয়নি বলে অভিযোগ।

    এর পরেই কামড়ে ছিঁড়ে ফেলা কানের টুকরো নির্যাতিতা নিয়ে সোজা হাজির হন আলিগড়ের এসএসপি রাজেশ পাণ্ডের অফিসে। কানের টুকরো দেখে তাজ্জব হয়ে যান তিনি। পুরোটা শোনার পর তড়িঘড়ি তদন্ত শুরু করার নির্দেশ দেন তিনি। এতদিন ওই মহিলার অভিযোগ কেন নেওয়া হচ্ছিল না তাও জানার চেষ্টা করছেন তিনি।

    Facebook Comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4670