• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    ধর্ষণ নিয়ে যত উদ্ভট মন্তব্য

    অনলাইন ডেস্ক | ১৩ মে ২০১৭ | ৯:৩৩ অপরাহ্ণ

    ধর্ষণ নিয়ে যত উদ্ভট মন্তব্য

    প্রতিদিন ভারতের কোথাও না-কোথাও ধর্ষণের ঘটনা ঘটেই চলেছে। এটি ভারতের জন্য উত্কণ্ঠার কারণ হলেও রাজনীতিবিদদের মধ্যে যেন কোনো উদ্বেগ নেই। অনেকটাই নির্বিকারভাবে তাঁরা করে যাচ্ছেন একের পর এক দায়িত্বজ্ঞানহীন মন্তব্য। ভারতের রাজনীতিবিদদের এমনই কিছু উদ্ভট মন্তব্য তুলে ধরা হলো।


    ‘ইচ্ছাকৃতভাবে কেউ ধর্ষণ করে না’
    ছত্তিশগড় রাজ্যের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রামসেবাগ পাইকরা গত শনিবার বলেছেন, ‘ইচ্ছাকৃতভাবে কেউ ধর্ষণ করে না। এটা ভুলবশত হয়ে থাকে।’ তাঁর বক্তব্যের মানে দাঁড়ায়, কারও ধর্ষণ করার অভিপ্রায় থাকে না। কিন্তু অজানা কারণে এটি হয়ে যায়।

    ajkerograbani.com

    ‘পুলিশ ধর্ষণ বন্ধ করতে পারবে না’
    ভোপাল বিধানসভার ১০ বারের নির্বাচিত বিধায়ক বাবুলাল গাড়ুর অবশ্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর ওপর কোনো আস্থা নেই। তিনি বলেছেন, ‘ঈশ্বর ছাড়া কেউই ধর্ষণ বন্ধ করতে পারবে না।’ ধর্ষণের ঘটনায় পুলিশের ব্যর্থতাও মানতে নারাজ গাড়ু বলেন, ‘আমি মনে করি, পুলিশ ধর্ষণ বন্ধ করতে পারবে না। কেবল অভিযোগ করার পরই পুলিশ ব্যবস্থা নিতে পারে। বদ্ধ ঘর কিংবা জনমানবহীন স্থানে ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। আগে থেকে তথ্য না পেলে পুলিশ কীভাবে ধর্ষণ বন্ধ করবে?’

    ‘ধর্ষকের ফাঁসি হওয়া উচিত নয়’
    সমাজবাদী পার্টির প্রধান মুলায়ম সিং যাদব অবশ্য ধর্ষকদের শাস্তির বিপক্ষে। এক শোভাযাত্রায় তিনি বলেন, ‘ধর্ষককে ফাঁসি দেওয়া উচিত নয়। মানুষ ভুল করতেই পারে। যখন বন্ধুত্ব শেষ হয়, তখনই মেয়েটি অভিযোগ করে, সে ধর্ষণের শিকার হয়েছে।’

    ‘আপনার কিছু তো হয়নি’
    উত্তর প্রদেশের বাদাউনে সম্প্রতি ঘটে দলিত সম্প্রদায়ের দুই বোনকে ধর্ষণের পর গাছের সঙ্গে ঝুলিয়ে হত্যার ঘটনা। এই রাজ্যে নারীদের ওপর একের পর এক অমার্জনীয় সহিংসতার ঘটনা নিয়ে সেখানকার মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ যাদবকে প্রশ্ন করা হলে তিনি ওই নারী সাংবাদিককে পাল্টা প্রশ্ন করেন, ‘আপনার কিছু তো হয়নি?’

    ‘ঘরে অসভ্যতা নিয়ে এসেছে টেলিভিশন’
    সমাজবাদী পার্টির প্রধান মুলায়ম সিং যাদবের আরেক ছেলে রাম গোপাল যাদব মনে করেন, বাদাউনের গণধর্ষণ ও হত্যার ঘটনাটি গণমাধ্যম মাত্রাতিরিক্তভাবে প্রচার করে দেশ এবং বিশেষ করে উত্তর প্রদেশের ভাবমূর্তিকে কলঙ্কিত করেছে। তিনি বলেন, ‘টেলিভিশন ঘরের মধ্যে অসভ্যতা নিয়ে এসেছে এবং যুবকদের মন নষ্ট করে দিচ্ছে।’

    ‘ধর্ষণের শিকার নারীরও ফাঁসি হওয়া উচিত’
    সমাজবাদী পার্টির আরেক নেতা এবং বলিউডের নায়িকা আয়েশা টাকিয়ার শ্বশুর আবু আজমি দাবি করেন, ‘যেসব নারীর বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক আছে, তাঁরা ধর্ষণের শিকার হলে, ধর্ষকদের সঙ্গে তাঁদেরও ফাঁসি হওয়া উচিত।’ তিনি আরও বলেন, ‘ইসলাম ধর্মে ধর্ষণ মৃত্যুদণ্ডের মতো অপরাধ। কিন্তু পুরুষদেরই শুধু শাস্তি হয়, নারীরা দোষী হলেও তাঁদের কিছুই হয় না।’ ধর্ষণ বন্ধে আজমি এক সমাধান দিয়ে বলেছেন, ‘বিবাহিত বা অবিবাহিত কোনো নারী স্বেচ্ছায় বা অনিচ্ছায় পরপুরুষের সঙ্গে যান, তাঁদেরও ফাঁসি দেওয়া উচিত।’

    ‘ছাত্রী নয়, সুন্দরী মহিলা’
    মেডিকেল শিক্ষার্থীকে গণধর্ষণ ও হত্যার প্রতিবাদ মিছিলে অংশগ্রহণকারী নারীদের ‘সুন্দরী রমণী’ অভিহিত করে আলোচিত হয়েছিলেন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জির ছেলে অভিজিত্ মুখার্জি। ২০১২ সালের ১৬ ডিসেম্বর মোমবাতি হাতে অংশ নেওয়া মিছিলকারীদের উদ্দেশে তাঁর মন্তব্য ছিল, ‘ওরা কেউ ছাত্রী নয়, সুন্দরী মহিলা।’

    ‘ভারতে নয় ইন্ডিয়ায় ধর্ষণের ঘটনা ঘটে’
    রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘের (আরএসএস) প্রধান মোহনরাও ভাগবত বলেছেন আরও অদ্ভুত কথা, ‘শুধু শহরগুলোতেই ধর্ষণের ঘটনা ঘটে, গ্রামে নয়।’ তিনি বলেন, ‘আপনি গ্রামে যান, দুর্গম বন-জঙ্গলে যান, সেখানে ধর্ষণ বা যৌননিপীড়নের মতো কোনো ঘটনা পাবেন না। এগুলো শহর এলাকায়ই ঘটে।’ প্রসঙ্গত, বিভিন্ন পরিসংখ্যানে দেখা গেছে, ভারতের ধর্ষণের ঘটনাগুলোর ৭৫ শতাংশই গ্রামাঞ্চলে ঘটে থাকে।

    ‘সাজানো নাটক’
    পশ্চিমবঙ্গের অভিজাত এলাকা পার্কস্ট্রিটে গাড়িতে এক নারীকে ধর্ষণের ঘটনাকে ‘সাজানো নাটক’ বলেছিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সরকারের বিরুদ্ধে দুর্নাম রটাতেই এ অভিযোগ আনা হয়েছে।

    Facebook Comments Box

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    বিয়ে করাই তার নেশা!

    ২১ জুলাই ২০১৭

    কে এই নারী, তার বাবা কে?

    ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
    ১০১১১২১৩১৪
    ১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
    ২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
    ২৯৩০৩১  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4757