• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    ধুঁকছে বুড়িগঙ্গা

    অনলাইন ডেস্ক | ০৪ জুন ২০১৭ | ১২:৫৩ অপরাহ্ণ

    ধুঁকছে বুড়িগঙ্গা

    দখল আর দূষণে ধুঁকছে বুড়িগঙ্গা। বুড়িগঙ্গার পাড় ঘেঁষে গড়ে উঠা ওয়াশিং ও ডাইং কারখানার রঙিন বর্জ্যে প্রতিনিয়ত সরাসরি নদীতে পড়ছে। এ এলাকার সমিতির বাইরে থাকা কারখানা তো দূরের কথা, সমিতিভুক্ত ৭২টি ওয়াশিং কারখানার একটিরও বর্জ্য শোধনের (ইটিপি) ব্যবস্থা নেই। এছাড়া শ্যামপুর-কদমতলী শিল্প এলাকার কমপক্ষে ৫০টি কারখানার বর্জ্যও সরাসরি বুড়িগঙ্গায় পড়ে।


    বুড়িগঙ্গার পানিতে দ্রবীভূত অক্সিজেন অনেক কমে গেছে। নষ্ট হয়ে গেছে পানির গুণাগুণ। রাজধানী ঢাকার প্রাণরূপী বুড়িগঙ্গা এখন নগরবাসীর আবর্জনা ফেলার ভাগাড় মাত্র।

    ajkerograbani.com

    পরিবেশ অধিদফতরের ২০১৫ সালের তথ্য অনুযায়ী, প্রতিদিন ৬০ হাজার কিউমেক (ঘনমিটার প্রতি সেকেন্ডে) অপরিশোধিত তরল বিষাক্ত বর্জ্য বুড়িগঙ্গায় পড়ে। এর মধ্যে ওয়াশিং ও ডাইং কারখানার বর্জ্যই প্রধান। আর হাজারীবাগের ট্যানারি থেকে প্রতিদিন তরল বর্জ্য নদীতে পড়ত ২২ হাজার কিউমেক মিটার। ৯০০ কিউমেক মিটার গৃহস্থালির বর্জ্য এখনো প্রতিদিন যায় বুড়িগঙ্গায়।

    সরকারি হিসাবে, বুড়িগঙ্গায় ২০ শতাংশ দূষণ ঘটাত হাজারীবাগের ১৫৪টি ট্যানারি। বহু বছরের চেষ্টায় সম্প্রতি এসব কারখানা বন্ধ করে সাভারে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। কিন্তু বুড়িগঙ্গার ২৫ থেকে ৩০ শতাংশ দূষণের জন্য দায়ী কোরানীগঞ্জ ও শ্যামপুর-কদমতলী শিল্প এলাকার ১২২টি ডাইং-ওয়াশিং কারখানা।

    কেরানীগঞ্জের ওয়াশিং মালিক সমিতির তথ্য অনুযায়ী, এখানকার প্রতিটি কারখানায় দিনে ২৫ থেকে ৩০ হাজার লিটার পানি ব্যবহৃত হয়। কাপড় রং করার পর এসব পানি গিয়ে পড়ে বুড়িগঙ্গায়। এ হিসেবে কেরানীগঞ্জ এলাকার কারখানাগুলো থেকে প্রতিদিন অন্তত ১৮ লাখ লিটার বিষাক্ত তরল বর্জ্য মিশছে বুড়িগঙ্গায়।

    পরিবেশ অধিদফতরের মহাপরিচালক রইছউল আলম মণ্ডল বলেন, ‘গুটিকয়েক মানুষ নিজেদের স্বার্থে বুড়িগঙ্গা নদী শেষ করে দিচ্ছে। একাধিকবার সেখানকার কারখানাগুলো সিলগালা করে দেওয়া হয়েছে। জরিমানা করা হয়েছে। এগুলো করলে শুরু হয় রাজনীতি। বিকল্প দরজা খুলে তারা কারখানা চালিয়ে যায়।’

    ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) তাকসিম এ খান জানান, ওয়াসার পয়োশোধনাগারে শিল্প বর্জ্য শোধন সম্ভব নয়। আইন অনুযায়ী, প্রতিটি কারখানাকে ইটিপি করতে হবে।

    এছাড়া কদমতলী শিল্পমালিক সমিতির সভাপতি সৈয়দ আবু হোসেন জানান, কেন্দ্রীয় ইটিপি করার জন্য পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে।

    Facebook Comments Box

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫১৬
    ১৭১৮১৯২০২১২২২৩
    ২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4757