• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    নিজের সিনেমাই দেখেন না তাঁরা!

    অনলাইন ডেস্ক | ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৭ | ৬:৩৬ অপরাহ্ণ

    নিজের সিনেমাই দেখেন না তাঁরা!

    অনেক অভিনয়শিল্পীর কাছেই শোনা যায়—নিজেকে বড় পর্দায় দেখার অনুভূতি নাকি অন্য রকম। তবে এমন কয়েকজন তারকাও আছেন, যাঁরা বাড়ির ড্রয়িংরুমে বসেও নিজের অভিনীত সিনেমা দেখতে পছন্দ করেন না। নিজের ছবি দেখার ব্যাপারে কেন তাঁদের এই উদাসীনতা? পর্দায় নিজেকে অন্য কোনো চরিত্রে দেখতে কি তাঁদের অস্বস্তি হয়? হলিউডের যেসব তারকা নিজের সিনেমা দেখেন না, তাঁদের অবশ্য এই সমস্যা নেই। নিজের অভিনয় না দেখার পেছনে তাঁদের আছে অন্য কারণ। জেনে নিন, তারকারা কে কী কারণে নিজের ছবির প্রদর্শন থেকে থাকেন এক শ হাত দূরে।


    অ্যাঞ্জেলিনা জোলি
    হলিউড তারকা অ্যাঞ্জেলিনা জোলি এখন পর্যন্ত তাঁর মাত্র দুটি সিনেমা দেখেছেন। দুই বছর আগে ‘ভ্যানিটি ফেয়ার’ ম্যাগাজিনকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এই নায়িকা জানিয়েছিলেন, নিজের ছবি দেখার চেয়ে স্বামী ব্র্যাড পিটের ছবি দেখতেই নাকি বেশি পছন্দ করেন তিনি। ছাড়াছাড়ি হয়ে যাওয়ার পর এখন নিশ্চয়ই ব্র্যাডের ছবিও দেখেন না জোলি। এই অভিনেত্রীর কাছে সিনেমা দেখার চেয়ে একটি সিনেমা তৈরির প্রক্রিয়া বেশি আকর্ষণীয়। এমনিতেই সিনেমা দেখতে খুব একটা পছন্দ করেন না এই তারকা। আর যখন দেখেন, কাজের সময় যেমনটা ভেবেছিলেন, বাস্তবে সিনেমা সম্পাদনার পর আর তেমন নেই, তখন হতাশ হয়ে পড়েন। তবে নিজের অভিনীত একমাত্র ‘বাই দ্য সি’ ছবিটি একাধিকবার দেখেছেন এই অভিনেত্রী।

    ajkerograbani.com

     

    জনি ডেপ
    ‘পাইরেটস অব দ্য ক্যারিবিয়ান’ ছবির জনি ডেপও নিজের কাজ খুব একটা দেখেন না। এর পেছনে তাঁর আছে এক অদ্ভুত যুক্তি। ডেপ মনে করেন, কোনো চলচ্চিত্রের একটি চরিত্রে অভিনয় শেষ করার পর সেটা নিয়ে অভিনয়শিল্পীর আর করার কিছু নেই। বাকি দায়িত্ব ছেড়ে দিতে হবে পরিচালক ও প্রযোজকের ওপর। তা ছাড়া বছরের বেশির ভাগ সময়ই কাজ নিয়ে ব্যস্ত থাকেন এই তারকা। অবসরে নিজের অভিনয় দেখে সময় ‘নষ্ট’ করতে চান না তাই, পাছে সহকর্মীদের দুর্দান্ত কিছু কাজ যদি মিস করে ফেলেন। তাই নিজের অভিনয় না দেখার পণ তিনি বহু আগেই করে রেখেছেন।

    এমা স্টোন
    ‘লা লা ল্যান্ড’ ছবির এই তারকার অবশ্য নিজের ছবি না দেখার ব্যাপারে কোনো কড়াকড়ি নিয়ম নেই। তবে নিজের সিনেমা নাকি তেমন উপভোগ করেন না তিনি। কারণ, ছবির শুটিংয়ের সময় যে পরিমাণ কষ্ট হয়, তারপর আর সেই কাজ দেখতে ইচ্ছা করে না তাঁর। বারবার সেই কষ্টের কথাই বোধ হয় মনে পড়ে যায় তখন। এমনকি নিজের অন্যতম সেরা কাজ ‘ইজি এ’-ও নাকি একবারও দেখেননি এমা স্টোন। এমা বলেন, ‘উফ্‌, সে সময় আমার ভীষণ বাজে অবস্থা ছিল। এই সিনেমার শুটিংয়ের সময় আমি ভালোমতো একটু ঘুমাতেও পারিনি। যেদিন শুটিং শেষ হয়, সেদিনের কথা আমার এখনো মনে আছে। আমি যেন হাঁফ ছেড়ে বেঁচেছিলাম সেদিন। আজ পর্যন্ত আমি এই ছবিটি দেখিনি।’

     

    মেরিল স্ট্রিপ
    হলিউডের একসময়ের ব্যস্ত অভিনেত্রী মেরিল স্ট্রিপ। যখন নায়িকা ছিলেন, তখন একটানা কাজ করে যেতে হয়েছে তাঁকে। বসে বসে নিজের সিনেমা দেখার মতো অবসর তখন তাঁর ছিল না—এ কথা সত্যি। কিন্তু এখন তো আর আগের মতো ব্যস্ততা নেই। চাইলেই নিজের কাজ দেখতে পারেন মেরিল। কিন্তু না, তিনি দেখবেন না। কারণ, বর্ষীয়ান এই হলিউড তারকা সামনে কী আছে, তা-ই দেখতে চান। যে কাজ সম্পন্ন হয়েছে, সেটি তাঁর কাছে কেবল অতীত। আর মেরিলের কারবার শুধুই ভবিষ্যতের সঙ্গে।
    সূত্র: ভ্যানিটি ফেয়ার, টেলিগ্রাফ, দ্য ইনডিপেনডেন্ট

    Facebook Comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২
    ১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
    ২০২১২২২৩২৪২৫২৬
    ২৭২৮২৯৩০৩১  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4755