• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    নির্বাচন ঘিরে যেসব সিদ্ধান্তে যাচ্ছেন মা-ছেলে

    আজকের অগ্রবাণী ডেস্ক: | ২৫ জুলাই ২০১৭ | ৯:৩৪ পূর্বাহ্ণ

    নির্বাচন ঘিরে যেসব সিদ্ধান্তে যাচ্ছেন মা-ছেলে

    আগামী নির্বাচন বয়কট করে আওয়ামী লীগকে খালি মাঠে গোলের সুযোগ আর দিতে রাজি নন বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া ও সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান। রাজনৈতিক আলোচনায় প্রাথমিক ভাবে এ সিদ্ধান্তেই উপনিত হয়েছেন দলটির দুই শীর্ষ নেতা মা ও ছেলে। সাবেক প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী একজনের বরাত দিয়ে যুক্তরাজ্য বিএনপি’র একটি সূত্র এমনটি জানিয়েছে।


    লন্ডন অবস্থানের গত এক সপ্তাহ কিংস্টোনে ছেলের বাসায় শুধুমাত্র পরিবারের সাথেই একান্ত সান্নিধ্যে কাটিয়েছেন বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া। চিকিৎসা গ্রহন লন্ডন আসার অন্যতম একটি কারণ, দলীয় সূত্র এমনটি জানালেও তা এখনো শুরু হয়নি বলে জানা গেছে। বিষয়টি একান্তভাবে তারেক রহমানই দেখছেন এমনটি জানিয়ে যুক্তরাজ্য বিএনপি’র একজন নেতা বলেন, দলীয় বিষয় নিয়ে যুক্তরাজ্য বিএনপি’র ২/১জন শীর্ষনেতার সাথে মাঝে মাঝে কথা হলেও মায়ের চিকিৎসার বিষয়টি নিজেই দেখভাল করছেন তারেক রহমান।

    ajkerograbani.com

    অবশ্য পুত্র তারেক রহমান, দুই পুত্রবধূ ও নাতি নাতনিদের সান্নিধ্যে সাবেক প্রধানমন্ত্রী ফুরফুরে মেজাজে পারিবারিক ভাবে সময় কাটালেও রাজনৈতিক আলোচনা অনুপস্থিত নেই মা-ছেলের মধ্যে, সূত্র এমনটি জানায়।

    সূত্র জানায়, আগামী নির্বাচন, মূল দলসহ অঙ্গ সংগঠনগুলোর নেতৃত্ব, কেন্দ্রীয় নেতাদের গতিবিধি, চলমান মামলা সবকিছু নিয়েই আলোচনা, পরামর্শ ও সিদ্ধান্ত গ্রহনের চেষ্টা হচ্ছে বিএনপি’র দুই শীর্ষ নেতা মা-ছেলের মধ্যে। ২/১জন শীর্ষনেতা ছাড়া যুক্তরাজ্য বিএনপি’র নেতাকর্মীদের দেখা সাক্ষাতের কোন সুযোগ নেই দলীয় চেয়ারপার্সনের সাথে। ঈদ উপলক্ষে সবার সাথে মিলিত হবেন নেত্রী, এমন আশ্বাস-স্বান্তনা দিয়েই রাখা হচ্ছে কর্মীদের। অনুষ্ঠান কখন হবে তা এখনও জানা যায়নি।

    লন্ডনে কতদিন অবস্থান করবেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী, এমনটি জানতে চাইলে বিএনপি চেয়ারপার্সনের সফরসঙ্গীর বরাত দিয়ে সূত্র জানায়, চিকিৎসা গ্রহণের পদ্ধতির উপরই নির্ভর করছে এটি। তবে এবারের লন্ডন অবস্থানের সময় বেশ দীর্ঘ হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি।

    ওই সূত্র জানায়, সফরকালীন সময়ে লন্ডনে থেকেই দলের নেতৃত্ব দেবেন খালেদা জিয়া। মহাসচিব মির্জা ফখরুল ও যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী নিয়মিতই দিক নির্দেশনা নিচ্ছেন তাঁর।

    লন্ডন অবস্থানকালীন ব্রিটিশ রাজনীতিক কারো কারো সাথে খালেদার সাক্ষাত অনুষ্ঠান আয়োজনের ব্যবস্থা করতে যুক্তরাজ্য বিএনপি’র শীর্ষনেতাদের পরামর্শ দিয়েছেন তারেক এমনটি জানা গেলেও এবিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানাতে পারেনি সূত্র।

    এদিকে, বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনায় ঐক্যমত-দ্বিমত হলেও আগামী নির্বাচনে দলের অংশগ্রহণের বিষয়ে একমত খালেদা-তারেক, সূত্র এমনটি নিশ্চিত করছে। তবে এখনই এ বিষয়ে চূড়ান্ত ঘোষণা না দিয়ে যতটুকু সম্ভব দাবি আদায়ের লক্ষ্যে সরকারের উপর চাপ অব্যাহত রাখার পক্ষে দুজন। এক্ষেত্রে প্রভাবশালী দেশগুলোর কুটনীতিকদের মধ্যস্থতাকারী হিসেবে কাজে লাগানোর সম্ভাব্যতা নিয়ে মাকে পরামর্শ দিচ্ছেন তারেক। জিয়া পরিবারের বিশ্বস্ত, বিদেশী দূতাবাসগুলোর সাথে ভালো সম্পর্ক আছে দলের এমন নেতাদের এ বিষয়ে কাজে লাগাতে বলেন তিনি খালেদাকে। আওয়ামী লীগকে আর খালি মাঠে গোল দেয়ার সুযোগ নয়, এমন সিদ্ধান্ত এখন খালেদা-তারেকের। এক্ষেত্রে বিদেশিদের দিয়ে চাপ দিয়ে দাবি যাই আদায় করা যায় এই চেষ্টাই এখন তাদের। সহায়ক সরকার বা নূন্যতম শেখ হাসিনাকে ক্ষমতাহীন প্রধানমন্ত্রী রেখে ক্ষমতাধর নির্বাচন কমিশনের নেতৃত্বে অন্তর্বর্তী সরকার যেকোন ফর্মুলাই আদায় করা যায়, নির্বাচন বয়কট করছেনা এবার বিএনপি।

    দলীয় নেতা শমসের মোবিন চৌধুরীর পদত্যাগ ও সাম্প্রতিক সময়ে ২/১জন নেতার বিব্রতকর মন্তব্যের বিষয়টিও আলোচনায় মায়ের নজরে এনেছেন তারেক। এসময় নেতাদের গতিবিধির উপর আরও কঠোর নজরদারী প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেন তিনি। ছাত্রদলের নতুন কমিটিসহ দলের নেতৃত্ব নিয়েও কিছুটা কথা হয় খালেদা-তারেকের। বিএনপি চেয়ারপার্সন এসময় প্রবীণ নেতৃত্বের প্রয়োজনীয়তার পক্ষে কথা বলতে চাইলে দ্বিমত পোষণ করেন তারেক। তার মতে, রাজনীতির মাট দখলে তরুণ নেতৃত্বের বিকল্প নেই। পুরোনো নেতাদের কারো কারো সাম্প্রতিক বিতর্কিত মন্তব্য সম্পর্কে খালেদা’র দৃষ্টি আকর্ষন করে এদের সম্পর্কে নিজের আস্থাহীনতার কথা এসময় মাকে জানান দলের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

    দলীয় চেয়ারপার্সনের লন্ডন সফরের বিস্তারিত কর্মসূচী সম্পর্কে জানতে চাইলে যুক্তরাজ্য বিএনপি’র সভাপতি এম এ মালেক বলেন, ‘চিকিৎসার উদ্দেশ্যে একান্ত পারিবারিক সফরে আছেন আমাদের নেত্রী। নেতা তারেক রহমান চিকিৎসাসহ পারিবারিক এই সফরটি নিজেই তদারক করছেন। যেহেতু সফর রাজনৈতিক নয়, সেহেতু আমরাও এনিয়ে বিস্তারিত কিছু বলতে পারছিনা।’

    নেতাকর্মীদের সাথে সাবেক প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাত অনুষ্ঠানের কোন পরিকল্পনা আছে কি না এমনটি জানতে চাইলে পরিস্কার কিছু না বলে যুক্তরাজ্য বিএনপি সভাপতি বলেন, ‘স্বৈরশাসনের মধ্যে অত্যন্ত প্রতিকূল পরিবেশে গণতন্ত্র উদ্ধার আন্দোলনে দেশের মানুষকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন আমাদের নেত্রী। এই নেত্রীর সাথে সাক্ষাতের আগ্রহতো অবশ্যই থাকবে নেতাকর্মীদের।’

    Facebook Comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২
    ১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
    ২০২১২২২৩২৪২৫২৬
    ২৭২৮২৯৩০৩১  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4755