• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    নীলনদের কাছে খলীফা ওমর (রা:) এর চিঠি

    মুহাম্মদ জাহিদুল ইসলাম | ০৮ মে ২০১৭ | ৯:৪১ অপরাহ্ণ

    নীলনদের কাছে খলীফা ওমর (রা:) এর চিঠি

    মিসরের নীলনদ যখন পানিশূন্য হয়ে পড়েছিল, তখন খলীফা ওমর রা: নীলনদের কাছে একটা চিঠি লেখেন এবং ওই চিঠি পাবার পর থেকে নীলনদে পানি প্রবাহ কোনদিন বন্ধ হয়নি!:


    ২০ হিজরী সনে দ্বিতীয় খলীফা ওমর (রাঃ)-এর শাসনামলে বিখ্যাত সাহাবী আমর ইবনুল আস (রাঃ)-এর নেতৃত্বে সর্বপ্রথম মিসর বিজিত হয়। মিসরে তখন প্রবল খরা চলছিল। নীলনদ পানি শূন্য হয়ে পড়েছে। সেনাপতি আমরের নিকট সেখানকার অধিবাসীরা অভিযোগ তুলল, হে আমর! নীলনদ তো একটি নির্দিষ্ট নিয়ম পালন ছাড়া প্রবাহিত হয় না।

    ajkerograbani.com

    তিনি বললেন, সেটা কি? তারা বলল, এ মাসের ১৮ দিন অতিবাহিত হওয়ার পর আমরা কোন এক সুন্দরী যুবতীকে নির্বাচন করব। অতঃপর তার পিতা-মাতাকে রাজী করিয়ে তাকে সুন্দরতম অলংকারাদি ও উত্তম পোষাক পরিধান করানোর পর নীলনদে নিক্ষেপ করব। আর এ যুবতীর ভরা যৌবনের পরশে নীলনদ পানিতে পূর্ণ হয়ে উঠবে।

    আমর ইবনুল আস রা: তাদেরকে বললেন, ইসলামে এ কাজের কোন অনুমোদন নেই। কেননা ইসলাম প্রাচীন সব জাহেলী রীতি-নীতিকে ধ্বংস করে দেয়। অতঃপর তারা পর পর তিন মাস পানির অপেক্ষায় কাটিয়ে দিল। কিন্তু নীলনদের পানিতে হ্রাস-বৃদ্ধি কিছুই পরিলক্ষিত হ’ল না। এদিকে খরার প্রচন্ডতায় সেখানকার অধিবাসীরা দেশত্যাগের কথা চিন্তা করতে লাগল।

    এ দুর্যোগময় অবস্থার কথা বর্ণনা করে সেনাপতি আমর ইবনুল আস রা: খলীফা ওমর (রাঃ)-এর নিকটে পত্র প্রেরণ করলেন। উত্তরে ওমর (রাঃ) লিখলেন, হে আমর! তুমি যা করেছ ঠিকই করেছ। আমি এ পত্রের মাঝে একটি পৃষ্ঠা প্রেরণ করলাম, যা তুমি নীলনদে নিক্ষেপ করবে।’ ওমরের পত্র যখন আমরের নিকটে পৌছাল, তখন তিনি পত্রটি খুলে তাতে নীলনদের উদ্দেশ্যে এ বাক্যগুলি লিখিত দেখলেন:
    ﻣﻦ ﻋﻤﺮ ﺃَﻣِﻴﺮ ﺍﻟْﻤُﺆﻣﻨِﻴﻦَ ﺇِﻟَﻰ ﻧﻴﻞ
    ﻣﺼﺮ ﺃﻣﺎ ﺑﻌﺪ ﻓَﺈِﻥ ﻛﻨﺖ ﺗﺠﺮﻯ ﻣﻦ ﻗﺒﻠﻚ ﻓَﻼَ
    ﺗﺠﺮ ﻭَﺇِﻥ ﻛَﺎﻥَ ﺍﻟﻠﻪ ﺍﻟْﻮَﺍﺣِﺪ ﺍﻟﻘﻬﺎﺭ ﻫُﻮَ ﺍﻟَّﺬِﻱ
    ﻳُﺠْﺮِﻳﻚَ ﻓَﻨَﺴْﺄَﻝُ ﺍﻟﻠَّﻪَ ﺗَﻌَﺎﻟَﻰ ﺃَﻥْ ﻳُﺠْﺮِﻳَﻚَ
    “আল্লাহর বান্দা আমীরুল মুমিনীন ওমর-এর পক্ষ থেকে মিসরের নীলনদের প্রতি। যদি তুমি নিজে নিজেই প্রবাহিত হয়ে থাক, তবে প্রবাহিত হয়ো না। আর যদি একক সত্তা, মহাপরাক্রমশালী আল্লাহ তোমাকে প্রবাহিত করান, তবে আমরা আল্লাহর নিকটে প্রার্থনা করছি, যেন তিনি তোমাকে প্রবাহিত করেন।”

    অতঃপর আমর (রাঃ)পত্রটি নীলনদে নিক্ষেপ করলেন। পরদিন শনিবার সকালে মিসরবাসী দেখতে পেল আল্লাহ তা‘আলা এক রাত্রে নীলনদের পানিকে ১৬ গজ উচ্চতায় প্রবাহিত করে দিয়েছেন। (সুবহানাল্লাহ) তারপর থেকে আজও পর্যন্ত নীলনদ প্রবাহিতই রয়েছে। কখনো শুষ্ক হয়নি। (আল-বিদায়াহ ৭/১০০; তারীখু দিমাশক ৪৪/৩৩৭)।

    Facebook Comments Box

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
    ১০১১১২১৩১৪
    ১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
    ২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
    ২৯৩০৩১  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4757