• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    পরকীয়ার কাছে হার মানলো গর্ভজাত সন্তান

    অনলাইন ডেস্ক | ০৭ নভেম্বর ২০১৭ | ১:৩৪ অপরাহ্ণ

    পরকীয়ার কাছে হার মানলো গর্ভজাত সন্তান

    যে সন্তানকে ১০ মাস গর্ভে ধারণের পর বুকের দুধ পান করিয়ে অতি যত্নে লালন করলেন মা, পরকীয়ার জন্য তাকেই হত্যার নির্দেশ দিলেন! খুন করলেন স্বামীকেও। রাজধানীর বাড্ডায় বাবা-মেয়ে হত্যার ঘটনায় এমন তথ্য আগেই এসেছে। এবার জানা গেছে আরেক তথ্য। খুনের আগে তরকারিতে ঘুমের ওষুধ মিশিয়ে স্বামীকে খাইয়েছিলেন আরজিনা যাতে প্রেমিক ঘরে ঢুকে সহজেই তাকে মারতে পারে। হয়েছেও তাই। ঘরের মানুষের বিশ্বাসঘাতকতা কিছুতেই বুঝতে পারেননি স্বামী জামিল শেখ।


    স্বামী ও মেয়েকে হত্যার পর নাটক সাজান স্ত্রী আরজিনা। ‘ডাকাতের হাতে স্বামী ও মেয়ে খুন হয়েছে। এমনকি ডাকাতরা তাকে ধর্ষণ করে সবকিছু লুট করে নিয়ে পালিয়ে গেছে।’ -এমন বিষয় প্রতিষ্ঠা করতে অভিনয় শুরু করেছিলেন আরজিনা। খুনের পর থেকে দরজার বাইরে মুখে বিষাদের ছাঁয়া নিয়ে বসে ছিলেন।


    অভিযুক্তদের আটকের পর জিজ্ঞাসাবাদে বেরিয়ে আসছে নিত্য নতুন তথ্য। জানা গেছে, হত্যার বিষয়টি সহজ করতে স্বামী জামিল শেখকে রাতে তরকারির সঙ্গে ঘুমের ওষুধ খাইয়েছিলেন আর্জিনা। এজন্য আঘাত পেয়ে জেগে উঠলেও জামিল শেখ তা প্রতিহত করতে পারেননি। আরজিনার প্রেমিক শাহিন এ তথ্য জানিয়েছেন।

    গত বৃহস্পতিবার উত্তর বাড্ডার ময়নার বাগের ৩০৬ নম্বর বাসায় জামিল শেখ ও তার ৯ বছরের মেয়ে নুসরাত জাহান খুন হন। ঘটনাটি জানাজানি হলে প্রতিবেশীদের কাছে আরজিনা দাবি করেন, তিন-চারজন ডাকাত তার ঘরে ডাকাতি করে স্বামী-সন্তানকে হত্যা করে পালিয়েছে। এমনকি তাকে ধর্ষণও করেছে। পরে সন্দেহভাজনদের আটকের পর বেরিয়ে আসে আসল খবর।

    সাবলেটের সঙ্গে তার পরকীয়ার বাধা দূর করতে স্বামীকে হত্যার পরিকল্পনা করে আরজিনা। আর সেই পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করে প্রেমিক শাহিন। হত্যা করা হয় জামিল শেখকে। আর সেই সময় বাবাকে খুনের দৃশ্য দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে দেখে ৯ বছরের মেয়ে নুসরাত। ভয়ে গুটিয়ে গিয়েছিল ছোট্ট মেয়েটি। তখনও হয়ত সে বুঝতে পারেনি এরপরই তার পালা; জন্মদাত্রী মা নিজে বাঁচতে তাকেই পৃথিবী থেকে সরিয়ে দেবে! এরপর মায়ের সামনেই মেয়েকে নৃশংসভাবে হত্যা করে প্রেমিক, দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে দেখেন মা! এমন ঘটনায় ধিক্কার জানাচ্ছেন সমাজের সকল শ্রেণির মানুষ। সোশ্যাল মিডিয়ায় বইছে সমালোচনার ঝড়।

    জামিলের খুনের ঘটনাটি দেখে ফেলেছিল মেয়ে নুসরাত। এ কারণে আদরের মেয়েকেও পৃথিবী থেকে সরিয়ে দেয় আরজিনা। নিজের নাড়ী ছেড়া ধনকে চোখের সামনে খুন করে অবৈধ প্রেমিক।

    ওই রাতেই স্ত্রীকে নিয়ে খুলনায় পালিয়ে যান আরজিনার প্রেমিকা ‘ঘাতক’ শাহিন।

    এ ঘটনায় বাড্ডা থানায় আরজিনা ও শাহিনকে আসামি করে মামলা করেন নিহত জামিল শেখের ভাই শামীম শেখ। চাঞ্চল্যকর এই জোড়া খুনের সঙ্গে জড়িত সন্দেহে জামিল শেখের স্ত্রী আরজিনাকে (২৫) আটক করে পুলিশ। খুলনা থেকে গ্রেপ্তার করা হয় শাহিনকে। রিমান্ডে নেওয়া হয় আরজিনার কথিত প্রেমিক শাহিন ও তার বন্ধু খোয়াজকে।

    তাদের আটক করার পর থেকে চাঞ্চল্যকর সব তথ্য বেরিয়ে আসছে।

    জানা গেছে, গত কোরবানির ঈদের পর স্ত্রী আরজিনা, মেয়ে নুসরাত ও ছেলে আলফিকে নিয়ে ওই বাসায় উঠেন জামিল। নিহতের স্বজনরা জানান, জামিলের সঙ্গে স্ত্রীর সম্পর্ক ভালো ছিল না। বিয়ের পর থেকেই তাদের পরিবারে অশান্তি লেগে ছিল। আরজিনা মোবাইলে বিভিন্ন লোকজনের সঙ্গে কথা বলত। এ নিয়ে তাদের মধ্যে ঝগড়াও হয়েছে অনেকবার।

    Facebook Comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫১৬
    ১৭১৮১৯২০২১২২২৩
    ২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
    ৩১  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4669