• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    ‘পরকীয়া সন্দেহে স্বামী-স্ত্রী ঝগড়া’, ‘শ্বশুরের হাতে’ তরুণ খুন

    অগ্রবাণী ডেস্ক | ২০ এপ্রিল ২০১৭ | ৮:৪৫ পূর্বাহ্ণ

    ‘পরকীয়া সন্দেহে স্বামী-স্ত্রী ঝগড়া’, ‘শ্বশুরের হাতে’ তরুণ খুন

    ঢাকার কেরানীগঞ্জে স্ত্রীর ‘পরকীয়ার জের ধরে’ শ্বশুরের হাতে এক ব্যক্তি খুন হয়েছেন বলে জানা গেছে। তাঁর নাম জুয়েল রানা (৩৩)। গতকাল বুধবার সকালে কেরানীগঞ্জের ঝিলমিল প্রজেক্টের কাছে একটি সেতুর নিচ থেকে লাশ উদ্ধার করেছে দক্ষিণ কেরানিগঞ্জ থানা পুলিশ।


    নিহত জুয়েল রানার ভাই মেহেদী হাসান জানান, জুয়েল রানা ঢাকায় একটি বেসরকারি কোম্পানিতে মার্কেটিং অফিসার হিসেবে কাজ করতেন। তাঁর গ্রামের বাড়ি বরিশালের হিজলা থানায়।

    ajkerograbani.com

    স্থানীয় লোকজন ও পরিবার সূত্রে জানা যায়, প্রায় সাত বছর আগে কেরানীগঞ্জের জাহাঙ্গীর শেখের মেয়ে চম্পা আক্তার আঁখির (২৪) সঙ্গে বিয়ে হয়েছিল জুয়েলের। আঁখি ঢাকা মহানগর কলেজের অর্থনীতি বিষয়ে স্নাতক শ্রেণিতে পড়ছেন। বিয়ের পর থেকেই আঁখি তার নিজের বাবার বাড়িতেই বসবাস করে আসছেন। জুয়েল শ্বশুড়বাড়িতে ঘরজামাই হিসেবে থাকতেন। বছরখানেক আগে জুয়েল তাঁর স্ত্রীকে নিয়ে সন্দেহ শুরু করেন। আঁখি প্রায়ই মোবাইল ফোনে অন্য ছেলেদের সঙ্গে কথা বলতেন। এ নিয়ে সম্প্রতি আঁখির সঙ্গে জুয়েলের ঝগড়া হয়। এতে শ্বশুরবাড়ির লোকজন তাকে মারধর করে এবং প্রাণনাশের হুমকি দেয়। এরপর জুয়েল রাগ করে কেরানীগঞ্জের শ্বশুড়বাড়ি থেকে চলে যান।

    আরো জানা যায়, ২০ দিন আগে জুয়েল ও তাঁর স্ত্রী আঁখি বরিশালে কিছু দিনের জন্য ঘুরে আসেন। ফিরে এসে জুয়েলকে ঢাকায় আলাদা বাসা নিতে বলেন আঁখি। তারা মিরপুর এলাকায় শেওড়াপাড়ায় ভাড়া বাসা নেন। গত ১৫ এপ্রিল গিয়ে সেখানে ওঠেন তাঁরা। পরের দিন তাঁরা জুয়েলের খালুর বাসায় বেড়াতে যান। সেখানে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া হয়। এরপর জুয়েলের শ্বশুর আঁখিকে ফোন করে জামাইকে নিয়ে কেরানীগঞ্জে যেতে বলেন। কিন্তু জুয়েল যেতে রাজি হননি। আঁখির পীড়াপিড়িতে জুয়েল শ্বশুরবাড়ি যান।

    নিহত জুয়েলের বাবা এ এস এম হারুনুর রশিদ বলেন, বেশ কিছুদিন ধরে জুয়েলের স্ত্রীর সঙ্গে আঁখির ঝগড়া চলে আসছিল। গতকাল মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে ছেলে জুয়েলের মোবাইলে ফোন দিলে নম্বর বন্ধ পান তিনি। আজ সকালে তাঁর নম্বরে ফোন দিলে এক পুলিশ সদস্য ফোন রিসিভ করে জানান, তাঁরা জুয়েলের লাশ উদ্ধার করেছেন।

    এ ঘটনায় দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা করেছেন বলে জানান হারুনুর রশিদ। মামলায় তাঁর ছেলের বউ আঁখি, জুয়েলের শ্বশুরসহ ছয়জন এবং অজ্ঞাতপরিচয় কয়েকজনকে আসামি করা হয়েছে।

    দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার উপপরিদর্শশক (এসআই) কবির হোসেন জানান, সকালে ঝিলমিল প্রজেক্ট এলাকা থেকে জুয়েলের লাশ উদ্ধার করা হয়। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ স্যার সলিমুল্লাহ মেডিকেল কলেজে হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। [LS]

    Facebook Comments Box

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
    ১০১১১২১৩১৪
    ১৫১৬১৭১৮১৯২০২১
    ২২২৩২৪২৫২৬২৭২৮
    ২৯৩০৩১  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4757