• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    পুদিনা পাতার উপকারিতা ও ব্যবহার

    ডা. আলমগীর মতি | ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১ | ১০:৪৪ অপরাহ্ণ

    পুদিনা পাতার উপকারিতা ও ব্যবহার

    পুদিনা সাধারন খাবার হলেও এর গুনাগুন অসাধারন। কেননা এ থেকে আমরা পেকে পারি রোগ প্রতিরোধ ও নিরাময়ের অনন্য কিছু উপাদান। ম্যানথল হলো জৈব রাসায়নিক উপাদান যা পুদিনা পাতা বা পুদিনার তেলে পাওয়া যায়। ম্যানথল নরম, স্বচ্ছ, পরিষ্কার অথবা সাদা রঙের, যার তাপমাত্রা অপরিবর্তিত থাকে। ম্যানথল পুদিনা পাতা থেকে নিষ্কাশন করা হয় কিন্তু এটা কৃত্রিমভাবে তৈরি করা হয়। ম্যানথল লোকজ চিকিৎসায় এনেসথেটিক বা অবশকারক হিসেবে কাজ করে এবং গলার, নাকে, সাইনাসের অস্বস্তিভাব দূর করে। ম্যানথল ঠাণ্ডা ও কফজনিত চিকিৎসায় ব্যবহার করা হয় কারণ এটা মুখে শীতল প্রভাব দেয় এবং বিভিন্ন ওষুধে এটা সুগন্ধি হিসেবে ব্যবহার করা হয়।
    কার্যকারিতা
    ম্যানথল আমাদের প্রাত্যহিক জীবনে ব্যবহৃত অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি রাসায়নিক উপাদান। পূর্ববর্তী গবেষণা থেকে দেখা গেছে, ম্যানথল স্নায়ুবিক ব্যথা ও আঘাতজনিত তীব্র ব্যথা দূর করে। গবেষণায় আরো দেখা গেছে, ম্যানথল সাইনাল কর্ডের ওপরও কার্যকর। সাধারণত মনে করা হয় ম্যানথল বায়োফ্রিজ পেইন রিলিভার হিসেবে কাজ করে। গেট কন্ট্রোল থিওরি মতে, আমাদের শরীরে দুই ধরনের নার্ভ ফাইবার আছে। একটি হচ্ছে, এ-ভেল্টা ফাইবার আরেকটি হচ্ছে সি-ফাইবার।
    ফাইবার ব্যথা তৈরির কেন্দ্র থেকে উদ্দীপনা ব্রেন- অ সরবরাহ করে এবং ঈ- ফাইবার ব্যথার উদ্দীপনা ব্যথার কেন্দ্রে পাঠিয়ে দেয়, ফলে তীব্র ব্যথা অনুভূত হয়। আরো এক প্রকার ফাইবার আছে, নন-নসিসেপটিভ অ-বিটা ফাইবার যা কোনো ধরনের ব্যথার উদ্দীপনা সরবরাহ করে না। ম্যানথল এই নন-নসিসেপটিভ অ-কে উত্তেজিত করে অ- ডেল্টা ও ঈ-পেইন ফাইবারের ভেতরে উদ্দীপনা সরবরাহে বাধা তৈরি করে ব্যথা দূর করে। সা¤প্রতিক গবেষণায় দেখা গেছে, ম্যানথল ঞজচগ৮ নামক কোল্ড রিসেপটরকে উত্তেজিত করে যা নিউরনের মাধ্যমে ব্যথাযুক্ত স্থানকে ঠাণ্ডা করে।


    চিকিৎসা বিজ্ঞানে ম্যানথলের ব্যবহার
    হজমশক্তি বৃদ্ধিতে : হজমশক্তির জন্য ম্যানথল খুবই উপকারী ভূমিকা পালন করে। খাবার আগে পানিতে ম্যানথল মিশিয়ে খেলে হজমে কার্যকর ভূমিকা পালন করে। ম্যানথল শরীরের অতিরক্ত গ্যাস বের করে দেয়। ম্যানথল মুখের রুচি বৃদ্ধি করে এবং অসুস্থভাব, বমি বমি ভাব এবং পাকস্থলীর বিভিন্ন সমস্যা দূর করে। এক গবেষণায় দেখা যায়, যারা পেটের ব্যথা ও পাকস্থলীর বিভিন্ন সমস্যায় ভুগছিল ম্যানথল সমৃদ্ধ খাবার খাওয়ায় তাদের হজমশক্তি বৃদ্ধি পেয়েছে।
    মাথাব্যথা ও বমি বমি ভাব দূর করতে : ম্যানথল সুগন্ধি খুব তাড়াতাড়ি বমি বমি ভাব দূর করে। অনেক লোক আছে যারা বমি বমি ভাব দূর করার জন্য ম্যানথল তেল অথবা ম্যানথলের সুগন্ধি পণ্য ব্যবহার করে। ম্যানথল সমৃদ্ধ পুদিনা অথবা পুদিনার তেল কপালে এবং নাকে ঘষলে খুব তাড়াতাড়ি মাথাব্যথা দূর হয়ে যায়। পুদিনা হচ্ছে প্রাকৃতিক শীতল উপাদান। তাই এটা প্রদাহনাশক এবং তাপমাত্রা বৃদ্ধি করে মাথাব্যথা এবং মাইগ্রেন ব্যথাকে প্রতিরোধ করে।
    ঠাণ্ডা ও অ্যাজমা দূর করে : ম্যানথল সুগন্ধি যা ঠাণ্ডায় শ্বাসপ্রশ্বাসের সময় আরাম প্রদান করে। ম্যানথল ঠাণ্ডার সময় কফ নিষ্কাশন করতে সাহায্য করে এবং রোগী খুব তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়। ম্যানথল ব্যাকটেরিয়ানাশক ও প্রদাহনাশক বৈশিষ্ট্যের কারণে শ্বাসপ্রশ্বাসের সময় প্রদাহকে দূর করে। যদি কেউ ঠাণ্ডাজনিত সমস্যায় ভোগে তখন ম্যানথল কুসুম গরম পানির সাথে মিশিয়ে খেলে ঠাণ্ডা, কফ, গলাব্যথার সমস্যা দূর হয়।
    বিষণ্নতা দূর করতে : ম্যানথল অ্যারোমা থেরাপি হিসেবে কাজ করে যা দুশ্চিন্তা দূর করে এবং মনকে উজ্জীবিত করে। যদি কেউ উদ্বিগ্নতা, দুশ্চিন্তায় ভোগে তখন ম্যানথল সমৃদ্ধ খাবার দুশ্চিন্তা দূর করে। ম্যানথল ব্রেনে সেরোটোনিনকে নিঃসরণ করে যা উদ্বিগ্নতা, দুশ্চিন্তাকে প্রতিরোধ করে।
    ত্বকের যতেœ ও ব্রণ প্রতিরোধে : ম্যানথলের অতুলনীয় বৈশিষ্ট্য রয়েছে যা শীতল এবং ত্বককে চর্মরোগ থেকে ভালো রাখে। এতে শক্তিশালী প্রদাহনাশক এবং ব্যাকটেরিয়ানাশক বৈশিষ্ট্য রয়েছে যা মুখে ব্রণ প্রতিরোধ করে এবং মুখ পরিষ্কার রাখে এবং লিপ ব্লাম হিসেবে ব্যবহার করা হয়। ম্যানথল শক্তিশালী অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট হিসেবে কাজ করে, যা ত্বককেও উজ্জ্বল রাখে এবং ত্বকের লাবণ্য বৃদ্ধি করে। ম্যানথল শুষ্ক ত্বক ও নিস্তেজ ত্বককে ব্রণের হাত থেকে রক্ষা করে।
    মুখের যতেœ : ম্যানথলে ব্যাকটেরিয়ানাশক ও প্রদাহনাশক বৈশিষ্ট্য রয়েছে, যা মুখের যতেœ অতি কার্যকর ভূমিকা পালন করে। ম্যানথল ব্যাকটেরিয়াকে মেরে ফেলে দাঁতের ক্ষয়, নিঃশ্বাসে দুর্গন্ধকে প্রতিরোধ করে এবং দাঁত ও জিহŸাকে পরিষ্কার রাখে। আজকাল ম্যানথলকে টুথপেস্ট, মাউথওয়াশ ও দন্ত চিকিৎসায় বিভিন্ন পণ্যে ব্যবহার করা হয়। প্রতিদিন কিছু পুদিনা পাতা খেলে দন্ত সুস্থ রাখতে কার্যকর ভূমিকা পালন করে।
    ব্যথা প্রতিরোধ করে : যেকোনো ব্যথায় পুদিনার নির্যাস ব্যবহার করা হয় কারণ শরীরের যেকোনো জায়গায় ব্যথা অনুভূত হলে ম্যানথল সে জায়গায় শীতল অনুভূতি দেয় এবং ব্যথাকে কমাতে সাহায্য করে। ম্যানথল মাংসপেশিকে শীতল রাখে এবং শরীরে প্রশান্তি অনুভূত হয়।
    গর্ভবতী মহিলাকে সুস্থ রাখতে : গর্ভবতী মহিলাদের জন্য ম্যানথল খুব উপকারী। গর্ভবতী মহিলাদের যখন বমি বমি ভাব অনুভূত হয় তখন ম্যানথল সমৃদ্ধ পুদিনা পাতার ঘ্রাণ নাক দিয়ে নিলে গর্ভবতী মহিলাদের খুব উপকার হয় ও বমি বমি ভাব দূর হয়।
    ক্যান্সার প্রতিরোধে : ম্যানথল হচ্ছে শক্তিশালী ফাইটোকেমিক্যাল, যা বিভিন্ন ধরনের ক্যান্সার কোষ সৃষ্টিতে বাধা প্রদান করে। স¤প্রতি এক গবেষণায় দেখা যায়, ম্যানথল ক্যান্সার প্রতিরোধে কার্যকর ভূমিকা পালন করে।
    রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধিতে : ম্যানথলে অনেক পুষ্টি রয়েছে। ম্যানথল শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে বাড়িয়ে দেয় এবং বিভিন্ন প্রদাহ থেকে শরীরকে রক্ষা করে এবং শরীরকে সুস্থ রাখে।
    মাসিকের ব্যথা প্রতিরোধে : ম্যানথল সমৃদ্ধ পুদিনা যা রক্তকে পরিষ্কার রাখে এবং মাংসপেশিকে প্রশমিত করে। ম্যানথল মাসিকের ব্যথা প্রতিরোধে কার্যকর ভূমিকা পালন করে। দিনে কয়েকবার পুদিনার চা পান করলে এটা প্রশান্ত অনুভূতি দেয় এবং জরায়ুকে ভালো রাখতে সাহায্য করে।

    ajkerograbani.com

    স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধিতে : ম্যানথলের সুগন্ধি যা স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধিতে মানসিক সতর্কতা বৃদ্ধি করে এবং মাথাকে ঠাণ্ডা রাখে।

    লেখক: হারবাল গবেষক ও চিকিৎসক, চেয়ারম্যান মডার্ন হারবাল গ্র“প
    ০১৯১১৩৮৬৬১৭

    Facebook Comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২
    ১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
    ২০২১২২২৩২৪২৫২৬
    ২৭২৮২৯৩০৩১  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4755