• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    পুষ্টিকর, ঔষধি গুণসম্পন্ন সবজি ঢেঁড়স

    অনলাইন ডেস্ক | ২১ আগস্ট ২০১৭ | ১১:৪৩ অপরাহ্ণ

    পুষ্টিকর, ঔষধি গুণসম্পন্ন সবজি ঢেঁড়স

    দেশের অন্যতম প্রধান গ্রীষ্মকালীন সবজি হিসেবেই পরিচিত ‘ঢেঁড়স’। স্বাস্থ্যের জন্য খুব উপকারী একটি সবজি এটি। অত্যন্ত পুষ্টিকর ঔষধি গুণসম্পন্ন সবজি ঢেঁড়স।


    ঢেঁড়সে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন, ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম, লোহা ও ভিটামিন এ, বি, সি। এছাড়াও এতে রয়েছে ক্যারোটিন, ফলিক এসিড, থায়ামিন, রিবোফ্লাভিন, নিয়াসিন, অক্সালিক এসিড এবং অত্যাবশ্যকীয় অ্যামাইনো এসিড।

    ajkerograbani.com

    ঢেঁড়সের রিবোফ্লাভিনের পরিমাণ বেগুন, মূলা, টমেটো ও শিমের চেয়েও বেশি। তাই স্বাস্থ্য সুরক্ষায় এটি খাওয়া ভালো।

    জেনে নিন ঢেঁড়সের বিস্ময়কর উপকারী ও ঔষধিগুণ সম্পর্কে:

    হাঁপানিতে উপকারি:
    হাঁপানিতে খুব ভালো কাজ করে ঢেঁড়স। রোগটির হারবাল চিকিৎসায় ঔষধি হিসেবে এটি ব্যবহার করা হয়। এছাড়া ঢেঁড়স বীজের তেল শ্বাসকষ্ট কমাতে পারে।

    ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে:
    ব্লাড সুগার কমাতে এর বিকল্প নেই। প্রতি ১০০ গ্রাম ঢেঁড়সে ০.০৭ মিলিগ্রাম থায়ামিন, ০.০৬ মিলিগ্রাম নিয়াসিন ও ০.০১ মিলিগ্রাম রিবোফ্লাভিন রয়েছে। যা ডায়াবেটিস রোগীর স্নায়ুতন্ত্রে পুষ্টি সরবরাহ করে সতেজ রাখে। তাই প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় এটা রাখা উচিত।

    প্রোস্টেট গ্রন্থির অসুখে:
    এর একটা দারুণ ঔষধিগুণ হলো এটি প্রসাবের প্রবাহ বৃদ্ধি করে। এতে প্রোস্টেট গ্রন্থির বৃদ্ধি কমে আসে। এটি পানিতে সেদ্ধ করে তরল পিচ্ছিল পদার্থ ছেঁকে পান করলে প্রসাবের প্রবাহ বাড়বে।

    কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে:
    এতে রয়েছে প্রচুর আঁশ যা কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে। সহজে হজম হয় বলে বিপাকক্রিয়ায় সহায়তা করে।

    ত্বকের যত্নে:
    নিয়মিত ঢেঁড়স খেলে ব্রণ কম হয়। এটি ত্বকের ময়লা পরিষ্কার করতেও ভালো কাজ দেয়। এটি খাওয়ার ফলে রক্ত চলাচল বৃদ্ধি পায়, এতে ত্বকের উজ্জ্বলতাও বাড়ে।
    নিরাময়ে সাহায্য করে।

    ক্যান্সার থেকে সুরক্ষা

    ঢেঁড়সের অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট মানবদেহের কোষের মিউটেশন প্রতিরোধ করে। সেই সাথে ক্ষতিকর ফ্রি-র্যা ডিকেল দূর করে থাকে। এতে করে দেহে ক্যান্সারের কোষ জন্মাতে পারে না। নিয়মিত ঢেঁড়স খাওয়ার অভ্যাস আপনাকে ক্যান্সার থেকে রক্ষা করতে পারে।

    হাড়ের ক্ষয় প্রতিরোধ করে

    বৃদ্ধ বয়সী মানুষের একটি সাধারণ রোগ হলো হাড়ের ক্ষয় রোগ। হাড়ের ক্ষয়ের কারণে শরীরে বিভিন্ন জয়েন্টে ব্যথা অনুভব হয়। বিশেষ করে হাটুতে ব্যথা অনুভব করার কারণে হাটা-চলা করতে বিশেষ সমস্যা হয়। এই সমস্যা প্রতিরোধে আপনার খাদ্য তালিকায় ঢেঁড়স রাখতে পারেন। ঢেঁড়সে বিদ্যমান ফোলায়েট উপাদান হাড়ের গঠন মজবুত করে এবং হাড়ের ক্ষয় প্রতিরোধে সহায়তা করে।

    রক্তস্বল্পতা দূর করে

    দেহে লোহিত রক্তকণিকা উৎপাদনে সহায়তা করে ঢেঁড়স। এতে করে অ্যানিমিয়া অর্থাৎ রক্তস্বল্পতা দূর করে। নিয়মিত ঢেঁড়স খেলে অ্যানিমিয়া প্রতিরোধ করা যেতে পারে।

    হৃদপিণ্ডের সমস্যা থেকে মুক্তি

    ঢেঁড়সে রয়েছে স্যলুবল ফাইবার যা দেহের কোলেস্টরল কমাতে বিশেষভাবে কার্যকরী। এতে করে কার্ডিওভ্যস্কুলার সমস্যা ও হৃদপিণ্ডের সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

    মাতৃত্বকালীন শারীরিক সমস্যায়

    মাতৃত্বকালীন নানা ধরনের সমস্যা সমাধানে ঢেঁড়স কার্যকরী ভূমিকা পালন করে থাকে। যেমন গর্ভকালীন সময়ে ফেটুসের নিউরাল টিউব ডিফেক্ট দূর করতে ঢেঁড়স কার্যকরী ভূমিকা রাখে।

    অ্যাজমা প্রতিরোধে

    ঢেঁড়সের রয়েছে ভিটামিন সি ও এ উপাদান। এগুলো অ্যাজমার প্রকোপ কমায় এবং অ্যাজমা সমস্যা দূর করতে সাহায্য করে। যাদের অ্যাজমা সমস্যা রয়েছে তারা বেশি বেশি ঢেঁড়স খেলে বেশ ভালো ফল পেতে পারেন। ঢেঁড়সের ভিটামিন এ এবং সি দেহের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়, এতে করে নানা ধরণের ছোটোখাটো ভাইরাস ও ব্যাকটেরিয়াজনিত রোগের হাত থেকে নিজেকে সুরক্ষিত রাখা যায়।

    দৃষ্টিশক্তি বাড়ায়

    ঢেঁড়সে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন এ, লুটেইন ও বিটা ক্যারোটিন। যা আমাদের দৃষ্টিশক্তি উন্নত করে এবং দৃষ্টিশক্তি সংক্রান্ত সমস্যা থেকে রক্ষা করে।

    Facebook Comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২
    ১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
    ২০২১২২২৩২৪২৫২৬
    ২৭২৮২৯৩০৩১  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4755