• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    রহিঙ্গাদের নিয়ে লেখা

    প্রভাতি স্বাধীনতা

    রামিম বিশ্বাস | ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৭ | ৯:৫৯ অপরাহ্ণ

    প্রভাতি স্বাধীনতা

    মন দীপ্ত হয়ে ক্ষীপ্ত এ বেলা কেনো যায় বয়ে।
    মন চঞ্চল শাড়ী উচ্ছল অন্যায় কে কেনো সয়ে?
    এ প্রভাতে কে যে আছে জানালাটা আটকিয়ে?
    তবু মন যায় যাই ছুটে কোন খানে দেখি তারে!
    নাফ নদীতে ভাসে শিশু লাশ মা চিৎকার করে কাদে।
    কুমারীর ইজ্জত ওড়ে বাতাসে পড়ে শান্তিদেবীর ফাদে!
    মায়া চক্ষু করে টলমল চোখ ছলছল করে স্বাদে?
    অলকেতে এ যমীন যে পরিচ্ছন্ন হয়ে যায় যে।
    কাশিতে বুক কাপে থরথর বলে কিছু কর, কর কররে।
    কিযে করি কে এ পরী বলে আমায় এ প্রভাতে
    দুষ্টুকে করে বিনাশ হাসি ফুটবে সব চোখে
    সে খুশিতে পদ্মফোটে পরীর বেণী হাসে হাহা
    কিযে করি ভেবে মরি।শত্রু সব শক্তিমান
    কহে ভয় নেই আমি আছি স্রষ্টা বড় বলিয়ান
    শত্রু দম্ভ করে ক্ষুন্ন তুমি জিতবে ধারতিতে
    প্রভাত ফেরির কাক ডাকে বয়ে যাচ্ছে গতি সব যে।
    তুমি তিতুমির! তুমি পারবে নাহি হারবে শত্রু হস্তে।
    যাহা করবে কর এখনি হে মানব তুমি চির সত্য।
    রবি প্রতাপে বাড়বে লোভ হে পথিক পথ হারাবে।
    সে দুপুরে পাবে রম্য হাত ধরে তুমি হাটবে।
    বেলা গড়াবে বেলা গড়াবে আসবে ক্ষনে গধূলী।
    হারাবে সবে কান পাতলায় ভুলবে সব যা বলি।
    মুক্তি যাও মুক্তি যাও হে যুবক আমি স্বাধীনতা।
    এ শাষকের এ শোষণে আমি মা অম্রলতা।
    তুমি ওঠো জেগে ওঠো ডাকো ভাইদের বল সব কথা।
    আমি যাচ্ছি কোন দেশে মিশে সমীরের দ্বারে
    এ সত্যি যেনো ভুলনা আমি এসেছিলুম জানালার পারে।
    তুমি পারবে চাবি আনতে বেধে দিতে মায়ের আঁচলে।
    তুমি সৌরভ চড়ুই কলরব থামবেনা কোন বিকালে।
    এ প্রভাবে সব সাক্ষী চক্ষু তন্দ্রা ফেলো ঝেড়ে।
    রাখাইন পেলে স্বাধিনতা পাখি যাবে উড়ে আপন নিড়ে।
    রহিঙ্গা চায় শুধু অন্য সে গণি নয় চাবে পণ্য।
    চিত করনা নিজ হস্ত পিছনে সব হবে শুন্য
    মাতৃদুগ্ধর কর সম্মান সম পুর্ব পুরুষের।
    আছে তাকিয়ে চোখ বাকিয়ে কি চায় সে পিতা হয়ে।
    সেই প্রভাবে তারা ক্ষিপ্ত নিজ অস্ত্রে সব কেড়েছে
    বিনা পয়শায় বিনা শ্রমে নেই মুল্য স্বাধীনতার।
    কেনো পিশাচ ভিনদেশি গান মস্তকে বাধে বাসা।
    ঝেড়ে ফেলো হাচিঁ দিয়ে তুমি ইব্রাহীমের সন্তান।
    পিতা গেছে সব নাহি মিছে তাই করনা তুমি তামাসা।
    লাল সকালে লাল ফুলে লাল রক্তে ভিজে রাজপথ।
    নও দুর্বল নও দুর্বল মন বলে আজি বাধো রথ।
    হাতে হাতে ফুল দিয়ে বলো ফিরে চাই স্বাধীনতা।
    অধিকার চাই, চাই চাকুরী বিনা পয়সায় দিয়ে সততা।
    কে পারবে? নেতা হারবে?? হিহি চলে আসছে ধরে যুগ যুগ।
    ভেঙ্গে ফেলো সেই কড়া মর্মরে তবু পাবে সুখ।
    সমতা চাই।চাই চাকুরী আরো চাই নারী ইজ্জত।
    এসো সাথে ধরি বাহুবল করি মহাকালের মতন বড় রথ।


    লেখক: শিক্ষার্থী বাংলা বিভাগ তিতুমির কলেজ

    ajkerograbani.com

    Facebook Comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২
    ১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
    ২০২১২২২৩২৪২৫২৬
    ২৭২৮  
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4755